Memories of Murder : Korean thriller at it’s best !
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

767WxKJFJLlVnOhzRcGQT1xX7Up

সিরিয়াল কিলিং আর ডিটেকটিভ মুভি আমার খুবই পছন্দের এক জনরা। হলিউডে এ নিয়ে অনেক ভালো ভালো মুভি হয়েছে (Seven,zodiac etc) ।তবে বাস্তবে আমেরিকায় ১৯৭০ এর দশকে “Zodiac Killer ” বা ব্রিটিশ মিডিয়ায় উনিশ শতকে ” Jack the Ripper ” কে নিয়ে অনেক মাতামাতি হলেও ১৯৮০ এর মাঝামাঝির আগে দক্ষিণ কোরিয়ায় এ নিয়ে এরকম তেমন কোন আলোচনা হয়নি।

কিন্তু এ সব হিসাব – নিকাশ পাল্টে দেয় এক ভয়াবহ সিরিয়াল কিলিং এর ঘটনা। এ ঘটনা এতো বিশাল প্রচারণা পায় যে এর মূল হোতাকে খুঁজতে দক্ষিন কোরিয়ার প্রায় প্রতিটি পুলিশকে লাগানো হয়েছিল এবং প্রায় ৩০০০ সন্দেহভাজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। আর এই বাস্তব ঘটনাকে অবলম্বন করেই পরিচালক Bong Joon-ho নির্মাণ করেন “Memories Of Murder” ।

memories-of-murder-still-2-e1445795143130
১৯৮০ এর মাঝামাঝি সময়ে দক্ষিণ কোরিয়া প্রচুর political turmoil এবং social unrest এর ভিতরে ছিল। তখন সেখানে মিলিটারি শাসন চলছিল আর যখন তখন জারি হতো জরুরি অবস্থা। এতে তখনকার পুলিশরা বেশ সুবিধায় পরে। তারা কোন কেসে কোনভাবে কাউকে ধরে তাকে সেই কেসে ফাঁসিয়ে দিত। আর অপরাধীর কপাল খারাপ হলে তাকে নর্থ কোরিয়ার স্পাই বলে চালিয়ে দিত ! পুরো শাসন ব্যবস্থার ছিল এক লেজে গোবরে অবস্থা। আর সেই সময়ই পুরো দক্ষিন কোরিয়ার পুলিশ বাহিনীর মাথা খারাপ করে দেয়া এক সিরিয়াল কিলার এর উথান ঘটে যা কোরিয়ান সিরিয়াল কিলিং এর ইতিহাসে এক নতুন মাত্রা যোগ করে।

“Memories Of Murder” মুভিটি শুরু হয় এক ধানক্ষেতের মধ্য দিয়ে ,যা দিয়ে তখনকার কোরিয়ান গ্রাম গুলো কেমন ছিল তার এক দারুন ধারণা পাওয়া যায়।বেশিরভাগ কোরিয়ান গ্রামগুলোতে তখন ও শহরের অত্যাধুনিক ছোয়া গায়ে লাগেনি। সেই ধান ক্ষেতের মধ্যে বাচ্চাদের খেলা চলাকালীন সময়ে হঠাৎ এক ট্রাক্টর এসে থামে। সেখান থেকে নেমে আসে স্থানীয় ডিটেকটিভ Park-Doo-Man, ধানক্ষেতের পাশেই এক ড্রেনের ভিতরে দেখতে পায় এক মেয়ের লাশ ! হাত পা বাধা সে মেয়ের লাশ দেখে যে কারো মত সে চমকিয়ে উঠে।

স্বভাবতই এ ঘটনায় স্থানীয় পুলিশ নড়েচড়ে বসে।তবে স্থানীয় ডিটেকটিভ Park Doo-Man এর কাছে প্রথমে এ কেস বেশ সহজ মনে হলো। সে প্রথমেই কিছু investigation করা শুরু করে এবং অনেক ব্যক্তিকে interrogate করা শুরু করে। এরই মাঝে পাওয়া যায় আরেকটি লাশ এবং ভয়ের কথা হলো এটিও একটি মেয়ে এবং তাকে একইভাবে মারা হয়েছে। ডিটেকটিভ পার্ক সেখানে ছুটে গিয়ে দেখেন crime scene এ হ-য-ব-র-ল অবস্থা। বাচ্চা – কাচ্চারা সেখানে দৌড়াদৌড়ি করছে , মানুষেরা ভিড় ঠেলে সেখানে আসতে চাচ্ছে এমনকি রাস্তার এক important crime scene ট্রাক্টর চাপা দিয়ে দিয়েছে।

অনেক interrogation এর পরে পার্ক আর তার সহযোগী একসময় একজন possible খুনির দেখা পায়। সে Kwang-Ho নামের একজন mentally retard মানুষ। তাকে পুলিশ স্টেশনে নিয়ে পার্ক আর তার সহযোগী কিছু উত্তম-মধ্যম দেয়। এর ফলে সে কিভাবে এই কাজ গুলো করেছে তা তাদের দেখাতে রাজি হয়। কেস শেষ করার খুশিতে পার্ক এবং তার গং মহা খুশিতে ছবিতে পোজ দিতে থাকে।

কিন্তু ঝামেলা বাধে demonstration এর সময়। সেই mentally retard তার বাবাকে দেখে তার কাছে যেতে চায় এবং সব পন্ড হয়ে যায়। আর মাঝে এ কেস তদন্ত করতে সিউল থেকে আসে ডিটেকটিভ Seo Tae-yoon। সে আগের কয়েকটি কেসের document পড়ে আরেকটি possible মার্ডার আবিষ্কার করে। এবং সাথে সাথে বের হতে আরো অনেক ক্লু। এখন এই সব ক্লু এর শেষ পরিণতি কি হয় তা জানতে দেখতে হবে “Memories of murder “।

screen_shot_2016-01-04_at_12.06.28_am
” Memories Of Murder ” পরিচালক Bong Joon-ho এর ২য় ছবি এবং এ ছবি তাকে A লিস্টেড কোরিয়ান পরিচালকদের তালিকায় নিয়ে যায়। সে ২০০০ সালে এ ছবির কাজ শুরু করলেও প্রথম ৬ মাস স্ক্রিপ্ট লেখাও শুরু করেন নি ,শুধু মার্ডার সম্পর্কিত তথ্য কালেক্ট করে গেছেন। এ থেকেই বোঝা যায় এ মুভি তৈরির আগে কতটা রিসার্চ করা হয়েছে। সত্য ঘটনা অনুসারে এ মুভি কিছুটা Alan moore এর গ্রাফিক নভেল ‘From Hell” থেকেও অনুপ্রাণিত। এ ছবির সাফল্যের পরে উনি The Host ,Mother ,Snowpiercer এর মতো দারুন কিছু ছবি উপহার দেন ।

559f0a2e776f72ea4d002447
ছবির প্রধান দুই অভিনেতা ছিল Song Kang-ho আর Kim Sang-kyung। একজন গ্রাম্য ডিটেকটিভ ( মারামারিতে,শামানিজম এ বিশ্বাসী ) আরেকজন শহুরে ডিটেকটিভ ( information,document এসবে বিশ্বাসী ) .পুরো মুভিতে তাদের খুনসুটি আর সময়ের সাথে সাথে চরিত্রের transformation দারুন লেগেছে।বিশেষ করে গ্রাম্য ডিটেকটিভ চরিত্রে Song Kang-ho এর অভিনয় ছিল একেবারে চোখ ধাধানো। এ দুর্দান্ত অভিনয়ের জন্য সে ওই বছর Grand Bell Award , Chunsa Film Awards , Korean Film Awards সহ প্রায় প্রতিটি Award ceremony এ Best Actor এর Award জিতে নেয়।

মুভির supporting cast ছিল বিশাল। তাদের ক্যারেক্টার গুলো বোঝানোর জন্য কিছু ছোট ছোট দৃশ্য সত্যি দারুন ছিল। বুট জুতা কাপড় দিয়ে বাধা যাতে মারার পরে দাগ না থাকে , ফিমেল ডিটেক্টিভের নিজেকে প্রমানের বার বার চেষ্টা , কিংবা থানার ভিতরে পুলিশ অফিসার এর কাজের চাপে ব্লাড প্রেসার মাপা – এরকম ছোট ছোট জিনিসই বাকি মুভিগুলো থেকে এ মুভিকে আলাদা করেছে। তবে এখানে prime suspect দের কথা না বললেই নয় , mentally retard এর চরিত্রে Park No-shik,nymphomaniac এর চরিত্রে Jeon Mi-seon কিংবা সুদর্শন Jeon Mi-seon,all of them nailed it in their character !

মুভির সেটিং এর সাথে সিনেমাটোগ্রাফি অদ্ভুতভাবে মিলে গেছে , সেটা বৃষ্টির রাত বা পড়ন্ত বিকেলে দিগন্তজোড়া ধানক্ষেত – যে রকম সিনই হোক না কেন। মুভির ফ্লো গতানুগতিক সিরিয়াল কিলিং মুভিগুলোর তুলনায় কিছুটা স্লো। তবে এ স্লো দিকটাই slow poison এর মত কাজ করেছে। একবার মুভির ভিতরে ঢুকে যাওয়ার পরে এর শেষ না দেখে অন্য কিছু করা মুশকিল,এমনকি শেষ হবার পরেও মুভির finishing মাথার ভিতরে খেলা করবে , আর এখানেই এই মুভির প্রধান স্বার্থকতা।

মুভির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক অসাধারণ। তখনকার আমলের জীবনব্যবস্থার খন্ডচিত্র ও দারুণভাবে তুলে ধরা হয়েছে ( জরুরি অবস্থা জারি করার সাথে সাথে সবকিছু বন্ধ হয়ে যাওয়া ,কাজের সময় পুলিশ না পাওয়া ) . তবে সবকিছু ছাপিয়ে গেছে এর অনবদ্য স্টোরিটেলিং,যা দর্শককে চুম্বকের মত আকর্ষণ করে রাখে , আর Dark humor যুক্ত ডায়ালগ আর সিনগুলো তো বোনাস হিসেবে আছেই !

এ ছবি মুক্তির পরে critical and commercial , দুই দিক থেকেই প্রচুর acclaim পায়। ২০০৩ সালের দক্ষিন কোরিয়ার সবচেয়ে ব্যবসাসফল ছবি ছিল এটি। আর সে বছর কোরিয়ার প্রায় সব award এর সেরা ছবির পুরস্কার জিতে নেয় এ ছবি। বর্তমানে IMDB এর টপ ২৫০ এর list এ এই মুভি রয়েছে এবং দক্ষিণ কোরিয়ার অন্যতম সেরা ছবি হিসেবে বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পেয়েছে।

বাস্তব ঘটনা থেকে মুভি বানানো অনেক কঠিন। আর যদি সেটি বিখ্যাত কোন সিরিয়াল কিলিং এর ঘটনা নিয়ে হয় তাহলে সে কাজ আরো কয়েকগুন বেড়ে যায়। এ সব দিক বিবেচনা করলে বলা যায় সিরিয়াল কিলিং নিয়ে এক অসাধারণ মুভি “Memories of Murder”। যাদের সিরিয়াল কিলিং আর ডিটেক্টিভ থ্রিলার পছন্দ তাদের জন্য একটি আদর্শ ছবি “Memories of Murder”।

এক নজরে Memories of Murder(2003) :

Directed by-Bong Joon-ho
Produced by-Cha Seung-jae
Starring-Song Kang-ho,Kim Sang-kyung,Kim Roi-ha etc.
Genre-Murder mystery /Detective thriller

IMDB- 8.1/10,Rotten Tomatoes – 89%
My overall rating -9.75/10

Memories of Murder (2003)
Memories of Murder poster Rating: 8.1/10 (70,395 votes)
Director: Joon-ho Bong
Writer: Joon-ho Bong, Kwang-rim Kim (play), Sung-bo Shim
Stars: Kang-ho Song, Sang-kyung Kim, Roe-ha Kim, Jae-ho Song
Runtime: 132 min
Rated: UNRATED
Genre: Crime, Drama, Mystery
Released: 02 May 2003
Plot: In 1986, in the province of Gyunggi, in South Korea, a second young and beautiful woman is found dead, raped and tied and gagged with her underwear. Detective Park Doo-Man and Detective Cho...

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন