The Wailing : কোরিয়ান ব্ল্যাক ম্যাজিকের জগতে স্বাগতম !
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

jkbjkb

ব্ল্যাক ম্যাজিক ,ভুডু , এক্সরসিজম এগুলো নিয়ে আমাদের অনেকের মনেই নানা ধরণের জল্পনা – কল্পনা আছে। হলিউডে এ নিয়ে বেশ কিছু দারুন মুভি হয়েছে যার ভিতরে “The Exorcist” কে তো বিশ্বের সেরা হরর মুভি হিসেবে ধরা হয়। আর এই ব্ল্যাক ম্যাজিক কে কেন্দ্র করেই The chaser আর the yellow sea এর director Hong-jin Na বানিয়েছেন অকাল্ট থ্রিলার মুভি “The wailing” যা মুক্তির পরে বিশাল critical acclaim পেয়েছে আর এর কমপ্লেক্স প্লটের জন্য আলোচিত হয়ে আসছে। বছর শেষে যে এই মুভি বছরের সেরা কোরিয়ান মুভির লিস্ট গুলোতে প্রথম দিকে থাকবে তা এখন বলাই যায়।

মুভিটি শুরু হয় আপাত দৃষ্টিতে সাধারণ কিন্তু আসলে দুর্দান্ত এক ওপেনিং সিন দিয়ে। ওপেনিং সিনের পরেই দেখা যায় সাউথ কোরিয়ার এক সাধারণ গ্রামে এক অদ্ভুত রোগের সৃষ্টি হয়েছে। এ রোগের ফলে মানুষজন জোম্বির মোট আচরণ শুরু করে এবং শেষে নিজের পরিবার কে ও মেরে ফেলে। এ কেসের দায়িত্ব পড়ে জং-উ এর কাছে। সে কেসের সাথে এক জাপানি লোকের সংশ্লিষ্টতা পায় আবার এক অদ্ভুত মেয়ে কেও কেস গুলোর আসে পাশে ঘুরতে দেখতে পায়। এদিকে তার মেয়েও এই রোগে আক্রান্ত হয়। ফলে সে একজন শামান (ওঝা টাইপ মানুষ ) এর সাহায্য নেয়। এখন এই ওঝা কি পারবে মেয়েটিকে ঠিক করতে ? জাপানিজ মানুষটি আসলে কে ? অদ্ভুত মেয়েটি কি ভালো নাকি পাগল ? আর এই রোগের আসল কারণ ই বা কি ? এই প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজতে হলে দেখতে হবে এই দুর্দান্ত টুইস্টিং অকাল্ট থ্রিলার মুভিটি।

Rating : 9.25/10 (আসলে মুভিটির কথা বলতে গেলে প্রথমেই বলতে হবে এর কাহিনীর গভীরতা নিয়ে। ডিরেক্টর বাইবেল , ব্ল্যাক ম্যাজিক আর কোরিয়ান ফোক গল্পগুলো থেকে অনেক গুলো রেফারেন্স দিয়ে মুভিটিকে অনেক দুর্বোধ্য ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন।পাহাড়ি ঘরবাড়ি আর প্রথমদিকে অবিরাম বৃষ্টি গল্পের ভিতরে ঢুকতে দারুণভাবে সাহায্য করেছে। অভিনয়ের কথা বললে Kwak Do-won,Chun Woo-hee,Jun Kunimura আসলে সবাই অনবদ্য অভিনয় করেছেন। বিশেষ করে ছোট মেয়েটি একদম পারফেক্ট ছিল possessed হবার সিন গুলোতে। আর শেষের আধা ঘন্টা এক রোলার কোস্টার রাইড যা শেষ করার পরেও দর্শকেরা বুঝতে পারবে না যে আসলে পুরো মুভিতে আসলে কে ভালো আর কেই বা খারাপ ,এর জন্য ডিরেক্টর এর প্রশংসা না করলেই নয় )
——————————Download Link—————————-

https://thepiratebay.org/torrent/15830091/The_Wailing_(2016)_720p_HDRip_1.2GB_x264_Ganool

———————-Movie Explanation(Spoiler Alert)—————–

আসলে মুভিটি open ending এ শেষ হয় তাই প্রথম দেখায় মুভির পুরো কাহিনী বোঝা খুব মুশকিল।যেহেতু এটি open ending movie,তাই আমি পুরো গল্পকে আমার মত interpret করার চেষ্টা করেছি।

কোরিয়ান ব্ল্যাক ম্যাজিক অনুসারে কোন আত্মাকে বন্দি করার জন্য ৫ টি স্টেপ লাগে। এখন জং – উ এর আত্মাকে বন্দি করার জন্য ডেভিল যেভাবে এই ৫ টি স্টেপ পূর্ণ করে তা নিয়েই এই মুভির কাহিনী।

আসলে মুভিটিকে পুরোপুরি বুঝতে হলে এর তিনটি রহস্যময় character গুলোকে আগে বুঝতে হবে।

the-wailing-japanese-man
জাপানিজ মানুষ : জাপানিজ মানুষ প্রথম থেকেই ডেভিলের কন্ট্রোলে ছিল। সেই গ্রামে এই অদ্ভুত রোগ ছড়ায়। সে প্রথমে জং- উ এর মেয়েকে possessed করে আর যে লোকগুলোকে হত্যা করে তা আসলে ডেভিলের জন্য করে জং – উ এর আত্মাকে বন্দি করার একটি অংশ হিসেবে । সিনেমার শেষ দিকে সে তার আসল রূপ দেখায়।

wailing2
সাদা পোশাকের মেয়ে : আসলে সে ডেভিলের হাত থেকে তার গ্রামকে রক্ষা করছিলো। প্রথম যখন তাকে দেখানো হয় তখন সে পাথর ছুড়ছিলো যা বাইবেলের রেফারেন্সে বোঝা যায় যে সে তাকে সাবধান করে দিচ্ছিলো। সে বলেছিলো যে জাপানিজ মানুষ থেকে দূরে থাকতে কারণ জং উ ছিল কার্সড। আর শেষ দিকে সে ডেভিল কে ধরার জন্য একটি ফাঁদ পেতেছিল ( মোরগের তিনবার ডাক ,এটিও বাইবেলের রেফারেন্স ) কিন্তু জং উ এর জন্য তা সম্ভব হয়নি। আর যে হেয়ার পিন জং উ দেখতে পায় সেটি দিয়েই সে তার পরিবারকে রক্ষা করে আসছিলো কিন্তু জং উ এর পাপ এর জন্য সে শেষ পর্যন্ত রক্ষা করতে পারেনি।

feature-thewailing
শামান : শামান লোকটিও আসলে ডেভিলের হয়ে কাজ করছিলো। এখন কখন সে ডেভিলের হয়ে কাজ করছিলো সে ব্যাপারে মতভেদ আছে। তবে সে যে ডেভিলের হয়ে কাজ করছিলো তা নিচের পয়েন্টগুলোতেই স্পষ্ট হয়ে যাবে।

১.শামান আর জাপানিজ একই আন্ডার ওয়ার পরে থাকতো ,আর এ রকম পোশাকেই অনেক সময় ডেভিলের আরাধনা করা হয়।

২.শামান এক্সরসিজম শেষ করতে না পাড়ার ফলে ডেভিল তার আত্মাকে কন্ট্রোল করা শুরু করে। (এক্ষেত্রে প্রথম পয়েন্ট just co-incidence )

৩. জং – উ জাপানিজ লোককে পানিতে ফেলার ফলে পাপ করে (এর আগেও কিছু পাপ করেছিল ) আর তখন শামান তার বাড়িতে যায় তার পরিবার আর তাকে শেষ করার জন্য। কিন্তু তখন মেয়ে বা গার্ডিয়ান তাকে বাধা দেয় এবং সে বমি করা শুরু করে।

৪.শামান প্রার্থনা করার সময় ডেভিল মোমবাতি নিভিয়ে দেয় আর পালানোর সময় মথ দিয়ে তাকে আটকায়।

৫.অবশেষে জং – উ যখন মেয়েটির কথা না শুনে বাড়িতে যায় তখন মেয়েটির আর ডেভিলকে আটকানোর ক্ষমতা থাকে না। শেষে শামান তাদের বাড়িতে যায় আর জং উ এর ছবি তুলে। এশিয়ান ফোক গল্পের হিসেবে ছবি তোলার অর্থ হলো আত্মাকে বন্দি করা। এভাবেই ডেভিলের ৫ টি স্টেপ পূর্ণ হয় আর সে জং উ এর আত্মাকে বন্দি করে।

এখন কিছু ব্যাপার লক্ষ্য করলে দেখা যায় শামান আসলে প্রথম থেকেই ডেভিলের হয়ে কাজ করছে।

১.আন্ডার ওয়ারের সিন এক্সরসিজম এর আগে ছিল।

২. শামান প্রথমে বাড়িতে এসেই একটি কলস ভেঙে ফেলে ,এখন সে তখন ভাল হয়ে থাকলে জাপানি লোকটি কলসের ভেতরে কাকটি রেখেছিলো আর প্রথম থেকেই ডেভিলের হয়ে কাজ করলে কাকটি সাদা পোশাকের মেয়ে রেখেছিলো।

৩.সে হিসেবে শামান এক্সরসিজম এর নামে আসলে মেয়েটিকে ডেভিলের কাছে sacrifice করছিলো , কিন্তু শেষ পর্যন্ত সে বাধাগ্রস্থ হয়।

৪.শেষ দৃশ্যে দেখা যায় তার কাছে অনেক গুলো ছবি আছে ,তার একটা মানে সে অনেক আগে থেকেই ডেভিলের হয়ে কাজ করছে।

এখন কথা হলো শামান কিভাবে প্রথম থেকেই এ কাজে জড়িত ? এক্ষেত্রে আমার ব্যাখ্যা হলো ডেভিল জানে জং – উ এর মেয়েকে করলে তার দাদি তাকে তার চেনা শামানের কাছে নিয়ে যাবে ,এজন্যই সে আগেই শামানকে হাত করেছিল। তাই শামান প্রথম থেকেই ডেভিলের সাথে যুক্ত এ কথাই বেশি যুক্তিযুক্ত।

এখন আসি ছবির ওপেনিং সীনে , এখানে দেখা যায় জাপানি দুইটি ফাঁদ দিয়ে একটি শিকার ধরছে। এখানে দুইটি ফাঁদ হলো জাপানি আর শামান ,শিকার হলো জং উ আর শিকারী ডেভিল নিজে,কি দুর্দান্ত !

মোটামুটি এই হলো The wailing এর কাহিনী আর confusing plot গুলির explanation । আশা করি এই point গুলি পড়লে এই মুভির বেশিরভাগ plot গুলো বুঝতে সবার সুবিধা হবে।

The Wailing (2016)
The Wailing poster Rating: 7.6/10 (3,206 votes)
Director: Hong-jin Na
Writer: Hong-jin Na
Stars: Woo-hee Chun, Jung-min Hwang, So-yeon Jang, Han-Cheol Jo
Runtime: 156 min
Rated: NOT RATED
Genre: Drama, Fantasy, Horror
Released: 03 Jun 2016
Plot: A stranger arrives in a little village and soon after a mysterious sickness starts spreading. A policeman is drawn into the incident and is forced to solve the mystery in order to save his daughter.

এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন