Anne with an E: নজরকাড়া কিশোর ক্লাসিক
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

ম্যাথু আর মেরিলা কাথবার্ট নামের দুই ভাইবোন এতিমখানা থেকে দত্তক নিতে চেয়েছিলেন একজন হাট্টাগাট্টা ছেলেকে, যে কিনা তাদের ফার্মের কাজে সাহায্য করতে পারবে। স্টেশনে গিয়ে দেখেন তার পরিবর্তে বসে আছে অ্যান শার্লি নামের হালকা পাতলা এক কিশোরী।

 

 

মাত্র ১৩ বছর বয়স হলেও অ্যান ইতিমধ্যেই জীবনের অনেক রূপ দেখে ফেলেছে। অনাথাশ্রমের দুর্বিষহ স্মৃতি ভুলে যেতে প্রায়ই সে হারিয়ে যায় কল্পনার জগতে। এই বয়সেই জেন আয়ার তার মুখস্থ। নতুন স্কুল, নতুন পরিবেশে মানিয়ে নিতে কষ্ট হলেও সবকিছুকে অ্যাডভেঞ্চারের চোখে দেখা অ্যানের কাছে তা পান্তাভাত। পড়াতে পিছিয়ে থাকলেও নিজের ফটোগ্রাফিক মেমোরি দিয়ে পুষিয়ে দেয়, এমনকি তাক লাগিয়ে দেয় ক্লাসের ফার্স্ট বয় সব মেয়ের ক্রাশ গিলবার্টকে!

 

 

 

 

 

পিটার প্যান, অলিভার টুইস্ট কিংবা টম সয়্যারের মতই এই সিরিজের জনরা হলো হল পিরিয়ড ড্রামা। পিরিয়ড ড্রামার যা মূল আকর্ষণ, সেই কস্টিউম আর সেট ডিজাইন ছিলো একেবারে নিখুঁত। সেই সাথে ওপেনিং ক্রেডিটের কথা না বললেই নয়।আর অ্যান চরিত্রের অ্যামিবেথ ম্যাকনাল্টিকে মনে হচ্ছিল বই থেকে তুলে আনা হয়েছে। গ্রীন গেবলস নামের ফিকশনাল গ্রামটার সৌন্দর্য চোখ জুড়িয়ে দেয়। সিরিজের মেকিং আর পেসিং দেখেই বোঝা যায় কতটা যত্ন করে বানানো। অনেকদিন পরে সেবার কিশোর ক্লাসিকের স্বাদ পেলাম যেন।

 

 

লুসি মন্টগোমারির Anne of Green Gables উপন্যাসের কিছুটা ভিন্নধর্মী অ্যাডাপ্টেশন হলেও Anne ( নেটফ্লিক্সে Anne with an e) সবার কাছে প্রিয় হয়ে যেতে সময় নেয়নি বেশি। ঠিক যেমন গত বছরের শেষের দিকে আসা CW এর Riverdale, Archie কমিকসের একটা ডার্ক গ্রিটি ভার্শন উপহার দিয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছিল। নির্মাতাদের উদ্দেশ্যও নিশ্চয়ই তাই ছিলো, নইলে Breaking Bad এর লেখকদলের একজনকে এর কাহিনী লেখার ভার দিতেন না।

 

 

মাত্র ৭ এপিসোডের সিরিজ, নির্মাতাদের ইচ্ছে ৩৫ এপিসোডে কাহিনী শেষ করার। রোটেন টমাটোসে ৮৭% ফ্রেশ, আমার রেটিং ৮.৮/১০।

 

 

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন