২০১৬: হরর মুভিপ্রেমীদের জন্য স্মরণীয় এক বছর
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

16105550_1404866842858984_5011978446801687797_n (1)

Lights out

কাহিনী সংক্ষেপ: সোফি মানসিকভাবে অসুস্থ। সবসময় তার ইমাজিনারি ফ্রেন্ড ডায়ানার সাথে কথা বলে। মুভির ভিলেন হল এমন এক মনস্টার, যে কীনা লাইট অফ করলেই উদয় হয় (hence the name)। সোফির মেয়ে রেবেকা সঙ্গত কারণেই মায়ের সাথে থাকেনা। যখন ডায়ানা রেবেকার ছোট ভাই মার্টিনের কাছে দেখা দেয়া শুরু করে, তখন রেবেকারও টনক নড়ে, কেননা ছোটবেলায় সেও এরকম ঘটনার শিকার হয়েছিল।সে উঠেপড়ে লাগে ডায়ানার অতীত জানার জন্য।

অন্ধকার নিয়ে মানুষের অস্বস্তি স্বভাবজাত আর পরিচালক সেই ফ্যাক্টটাকেই কাজে লাগিয়েছেন নিপুণভাবে,তবে এমন না যে কেবল লাইট অফ-অনের জাম্প স্কেয়ার দিয়েই কাহিনী শেষ। মুভির প্রধান কাহিনী ২০০৩ সালে মুক্তি পাওয়া Darkness Falls থেকে খুব ভিন্ন কিছু না হলেও কাহিনী এমনভাবে আগাবে যে চরিত্রগুলোর প্রতি সহানুভূতি জাগতে বাধ্য, যেমনটা ঘটেছিল Ju-on কিংবা The babadook এর বেলায়।তবে Babadook এর মত ওপেন এন্ডিং দেখলে আরো ভালো লাগত।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/lights-out-2016

Don’t Breath

ভিন্ন ধারার হরর মুভিতে এক অনন্য সংযোজন।মূলত থ্রিলার হলেও পদে পদে টুইস্ট আর কাহিনীর মারপ্যাঁচে জাম্প স্কেয়ার ছাড়াই শ্বাসরুদ্ধকর এক হরর।

The Conjuring 2

The Conjuring এর সিক্যুয়েল হিসেবে একটু হতাশ করলেও এড আর লরেন ওয়ারেনের চার্ম কখনোই কমবেনা। তাই নিউ ইংল্যান্ডে চার সন্তানকে নিয়ে বিপদে পড়া এক অসহায় মা কীভাবে রেহাই পেল অশুভ শক্তি থেকে আর এডের মারা যাওয়ার প্রিমোনিশন কে ব্যবহার করে লরেন কীভাবে অমিতিভিলের ঘটনা থেকে ক্লু নিয়ে তাদের নিজেদের পিছে লেগে থাকা পিশাচকে দূর করল, তা জানতে হলে Conjuring 2 দেখতেই হবে।

হরর ফ্র্যাঞ্চাইজির মাঝে আরো এসেছে Ouija 2: Origin of evil, The Purge 3: election year।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/the-conjuring-2-2016

Neon Demon

মেইন ক্যারেক্টার জেসি তার নিস্পাপ ন্যাচারাল সৌন্দর্য দিয়ে মডেলিং জগতে এক প্রকার সাড়া ফেলে দেয়, ফলে সমসাময়িক মডেলদের রোষের মুখে পড়ে।তবে কাহিনী এমনভাবে চলতে থাকে যে জেসির প্রতি কোন সহানুভূতি আসেনা।

মডেলিং আর ফ্যাশনের ঝলমলে জগতের পিছনের অন্ধকার জগত নিয়ে ড্রামা তেমন কোন ভায়োলেন্স ছাড়াই হঠাত করেই হয়ে গেল পিওর হরর ফিল্ম।তবে সবার জন্য রিকমেন্ডেড না। The Gift এর অনেকদিন পর কিয়ানু রিভসকে ডার্ক ক্যারেকটারে দেখে মজা পেলাম।গত বছরের Starry eyes এর মত তীব্র না হলেও দৃশ্যায়ন(বিশেষ করে বেগুনী, গোলাপী আর সাদা রঙের ব্যবহার) আর মিউজিক দিয়ে মন জয় করে নিতে বাধ্য।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/the-neon-demon-2016

The Witch: A New-England Folklore

কাহিনী সংক্ষেপ হলঃ নিজেদের গোষ্ঠী থেকে বিতাড়িত হয়ে এক পিউরিটান পরিবার নিউ ইংল্যান্ডে জংগলের কাছাকাছি এক ফার্মে বসবাস শুরু করে।কৃষক বাবা, গৃহকত্রী মা, কিশোরী মেয়ে থমাসিন , তার ১২ বছর বয়সী ছোট ভাই ক্যালেব, ৬-৭ বছর বয়সী টুইন ভাই-বোন জোনাস-মার্সি আর একেবারে শিশু স্যাম।এমনিতেই আর্থিক আর মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত পরিবারটির ওপর নেমে আসে একের পর এক দুর্যোগ। অতি ধার্মিক বাবা মনে করতে থাকে, এ হল তাদের পাপের শাস্তি। এদিকে তাদের পোষা ছাগল ব্ল্যাক ফিলিপ নাকি টুইন ভাইবোনের সাথে কথা বলে। গুজব আছে জংগলে বাস করে এক ডাইনী। তাহলে কী আসলেই কালজাদুর প্রভাবে কিছু হচ্ছে?

স্নো হোয়াইট, র‍্যাপুনজেল, স্লিপিং বিউটির কার্টুনিশ ভার্সনকে সত্যিকার ইতিহাসের সাথে না মিলানোই তাই ভাল।ডাইনীদের শক্তির উৎসই বা কী? কোন ধরণের অপদেবতা, নাকি খোদ শয়তান নিজেই?
ভ্যাম্পায়ার, ওয়্যারউলফ, জম্বি আর প্রেতাত্মার ভীড়ে ডাকিনীবিদ্যা নিয়ে সিরিয়াস হরর মুভি আছে খুবই কম। বেশিরভাগই ব্ল্যাক কমেডি (Hocus Pocus, Practical magic, The craft, Witches of eastwick)। বিশেষ কিছু সময় ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের ব্যবহারও ছিল অসাধারণ।রোটেন টমাটোস এ ৯১% ফ্রেশ।

লিঙ্কঃ http://www.1337x.to/torrent/1567092/The-Witch-2016-720p-BluRay-x264-NeZu/

Hush

Oculus খ্যাত পরিচালকের এই মুভিতে বাক-শ্রবনশক্তিবিহীন এক লেখিকা তার কেবিনে একা একা থাকা অবস্থায় মুখোশধারী এক সাইকো কিলারের আক্রমণের শিকার হয়। সাধারণ স্ল্যাশার ফিল্মের ফর্মুলা নিয়েও যে ইনোভেটিভ মেকিং আর অভিনয় দিয়ে টানটান উত্তেজনা উপহার দেয়া সম্ভব, তা বোঝা যাবে Hush দেখলে। বিশেষ করে প্রধান চরিত্রে কেট সিগাল ছিলেন মোর দ্যান পারফেক্ট।

স্বয়ং স্টিফেন কিং পর্যন্ত টুইট করে Hush কে Halloween আর Wait until dark এর সাথে তুলনা করেছেন।

লিঙ্কঃhttps://thepiratebay.org/torrent/14423759/Hush_(2016)_720p_WEBRiP_-_700MB_-_ShAaNiG

10 Cloverfield Lane
২০০৮ সালে বের হওয়া ফাউন্ড ফুটেজ হরর এর সিক্যুয়েল হলেও দেখে তা বোঝার উপায় নেই।ম্যারি এলিজাবেথ উইন্সটিড আর জন গুডম্যানের এই মুভিতে হররের চাইতে থ্রিলার এলিমেন্ট বেশী।গাড়ি দুর্ঘটনা থেকে বাঁচিয়ে নিজের ঘরে আশ্রয় দেবার পর বাইরের পৃথিবী ধ্বংস হয়ে গেছে এই অজুহাতে বাইরে বের হতে না প্যারানয়েড লোকের কথা শোনা ঠিক হবে কি না সেই নিয়ে টানটান উত্তেজনা। এই বছর আরো এসেছে ফাউন্ড ফুটেজ জনরার পথিকৃত The blair witch project এর রিমেক।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/10-cloverfield-lane-2016

Southbound

পাঁচটা আপাতদৃষ্টিতে বিচ্ছিন্ন ঘটনা এক সুতায় মিলে যাবে। অতীত থেকে পালিয়ে বেড়ানো দুইজন, কনসার্টে অংশ নিতে যাওয়া এক গার্লব্যান্ড, হারিয়ে যাওয়া বোনকে খুঁজতে যাওয়া এক ভাই, ছুটি কাটাতে যাওয়া এক পরিবার আর বাড়ি ফিরতে চাওয়া এক লোক বিস্তীর্ণ এক মরূভূমিতে তাদের অতীতের কিছু অন্ধকার ঘটনা আর অপরাধবোধের মুখোমুখি হতে বাধ্য হয়।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/southbound-2015

Green room

অ্যান্টন ইয়েলচিনের শেষের দিকের মুভি বলেই দেখতে বসেছিলাম।এক পাংক রক ব্যান্ড তাদের আন্ডারগ্রাউন্ড কনসার্ট করতে গিয়ে নিও-নাজি সুপ্রিম্যাসিস্টদের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে। কোন জাম্প স্কেয়ার কিংবা রগরগে ভায়োলেন্স ছাড়াই রুদ্ধশ্বাস অভিজ্ঞতা উপহার দেবার জন্য পরিচালককে সাধুবাদ জানাতেই হয়।কুকুরের একটা দৃশ্য দেখে Don’t breath এর কথা মনে পড়ল।

লিঙ্কঃ https://thepiratebay.org/torrent/15224892/Green_Room_(2015)_720p_BrRip_x264_-_VPPV

The Invitation

নিজেদের সন্তান মারা যাবার পর বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়া উইল তার প্রাক্তন স্ত্রী ইডেন আর তার নতুন প্রেমিকের বাড়িতে সৌজন্যের খাতিরে ডিনার করতে যায়। তাদের সাথে যোগ দেয় পারিবারিক প্রায় ৮-১০ জন বন্ধ। সবাই সবার পরিচিত আর আপাতদৃষ্টিতে আন্তরিক থাকলেও তাদের ভেতরের শীতল সম্পর্ক ধরা পড়তে দেরি হয়না। শেষের ১৫ মিনিট ছাড়া পুরো মুভিই কেবল গুমোট অস্বস্তিকর পরিবেশ, ফ্যামিলি রিইউনিয়নের গতবাঁধা ডায়লগ আর কৃত্রিম হাসি। কিছু কিছু জায়গা খটকা লাগলেও পুরো মুভিতে উইলকে দর্শকের কাছে প্যারানয়েড বলেই মনে হবে। স্লো-বার্ন টাইপের থ্রিলার, কিছুটা The Witch, Green Room এর মত।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/the-invitation-2015

The boy

দেখতে বসে হরর মনে হলেও কাহিনী মূলত সাইকোলজিকাল থ্রিলার।দেখতে গিয়ে আমার প্রিয় মুভি The skeleton key এর কথা মনে পড়ে গেল।মাস্ট ওয়াচ না, তবে আমার কাছে বেশ ভালই লেগেছে।

লিঙ্কঃ https://thepiratebay.org/torrent/14449736/The_Boy_(2016)_720p_BluRay_-_x265_HEVC_-_600MB_-_ShAaNiG

The Autopsy of Jane Doe

করোনার বাবা আর ছেলে এক অজ্ঞাতনামা মহিলার লাশ শনাক্ত করতে গিয়ে বিভিন্ন রহস্যময় ঘটনার মুখোমুখি হয়। আপাতদৃষ্টিতে টিপিকাল হরর মনে হলেও কাহিনীর মোড় পরের দিকে এমনভাবে ঘুরে যাবে যে বোর হোয়ার কোন চান্স ই নাই। Lights out ছাড়া এইবছরের একমাত্র এই মুভি দেখেই কলিজার পানি শুকিয়ে গেছে। The girl next door আর Into the wild এর অনেকদিন পর এমিল হারশের মুভি দেখে বেশ ভাল লাগল।

লিঙ্কঃ https://thepiratebay.org/torrent/16551472/The_Autopsy_of_Jane_Doe_(2016)_720p_WEB-DL_-_800MB_-_ShAaNiG

Holidays

২০০৭ সালে বের হওয়া Trick ‘r treat এর মতই কাহিনী।বিভিন্ন বিশেষ দিনের (ক্রিস্টমাস, ভ্যালেন্টাইন্স ডে, হ্যালোউইন, মাদারস ডে, নিউ ইয়ারস ইভ) উপর ভিত্তি করে যেইসব উপকথা আছে, তার উপর ভিত্তি করে অ্যান্থলজিকাল ছোট ছোট পর্ব।

লিঙ্কঃ https://yts.ag/movie/holidays-2016

The Wailing
এক প্রত্যন্ত গ্রামে আসা রহস্যময় এক আগন্তুককে নিয়ে গ্রামবাসীরা সন্দিহান হয়ে পড়ে। কিছুদিন পরে তারা জম্বি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিজেরাই নিজেদেরকে খুন করতে থাকে। এই ঘটনা তদন্ত করতে আসা গোয়েন্দার মেয়েও সেই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে সে শরনাপন্ন হয় ভুডুবিদ্যায় পারদর্শী এক শামানের। কিছু টুইস্টের কারণে মুভির শেষ না দেখা পর্যন্ত বোঝাই যাবেনা কে মূল ভিলেন।

হলিঊডের বাইরের মুভির মাঝে The Wailing ছাড়াও সাউথ কোরিয়ান জম্বি অ্যাপোক্যালিপ্স মুভি Train to Busan আর ইরান-ইরাক যুদ্ধের অভিশপ্ত মিসাইল নিয়ে মা-মেয়ের কাহিনী Under The Shadow বেশ ভাল লেগেছে।

লিঙ্কঃ https://thepiratebay.org/torrent/15949335/The_Wailing_(2016)_720p_BRRip_1.35GB_-_MkvCage

 

এছাড়াও আছে গেম অফ থ্রোন্স খ্যাত নাতালি ডরমারের The jungle , কেট বেকিন্সেলের The dissapointments room,ব্লেক লাইভলির The shallows, টেক হরর Friend request (তবে unfriended বেশী ভাল ছিল),31 (রব জম্বির মুভি বলে আশা ছিল। রগরগে স্ল্যাশারেও প্রবলেম নাই, তবে মুভিটা একেবারেই ভাল না।ইয়াক!!), পিরিয়ড ড্রামা/হরর কমেডি Pride and prejudice with zombies, The Room খ্যাত জ্যাকব ট্রেম্বলের Before I wake, কাল্টভিত্তিক কাহিনী নিয়ে জেসিকা অ্যালবার The Veil, The other side of the door।

এই পোস্টটিতে ৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন