After Earth, মুভি নামের ট্র্যাজেডি…

After Earth124684

Genre: Action, Sci-Fi, Adventure.

Imdb rating: 4.8/ 10

My Rating: 2.0/ 10 (দয়াবশত)

Release Date: 31st May 2013

 

পটভুমি সুদুর ভবিষ্যৎ। মানব সমাজের বর্তমান ঠিকানা “নোভা প্রাইম”। এক হাজার বছর আগে পৃথিবী ত্যাগ করে মানবজাতি। কারন, সেখানকার রিসোর্সের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার মানুষদের ধ্বংসের মুখে ফেলে দিয়েছিলো। নোভা প্রাইমে এসে জানা গেলো মানুষেরাই একমাত্র জীব(!) নহে। নোভা প্রাইমের এলিয়েনেরা তাদের এ কম্পিটিশন এলিমিনেট করার জন্য প্রায়েই “উরসলা” নামের এক জীবকে মানব কলোনিতে ছেড়ে দিতো। এই “উরসলা” থেকে নিজেকে রক্ষা করার একটি ট্রেনিং সেশন করার জন্যই একটি জ্যান্ত “উরসলা” সমেত জেনারেল সাইফার রেই আর তার পুত্র ক্যাডেট কিতাই রেই একটি স্পেসশাটলে করে যাচ্ছিলো অন্য একটি প্ল্যানেটরি সেক্টরে। কিন্তু মাঝপথে একটি উল্কাবৃষ্টির মধ্যে পরে গিয়ে ঘটনার কালক্রমে একটি “ক্লাস ওয়ান কোয়ারেন্টিন” গ্রহে দুই টুকরো হয়ে ক্রাশ করে স্পেসশাটল। জ্ঞান ফিরলে দেখা গেলো এই “ক্লাস ওয়ান কোয়ারেন্টিন” গ্রহ আর কোনো গ্রহ না, স্বয়ং পৃথিবী। এখন বের হতে হবে এখান থেকে, কিন্তু ডিস্ট্রেস বিকন স্পেসশাটলের বাকি অর্ধেকে আছে। সেটা আবার ক্রাশ করেছে প্রটাগনিস্টদের অবস্থান থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে।

 

মুভিটা নিয়ে কথা বলতে গেলে অনেক কিছু নিয়েই কথা বলা যায়। প্রথমত, গল্পটা নিয়ে আরেকটু ভাবা যেতো বলে মনে করি। পৃথিবীর রিসোর্স ধ্বংস, আরেক গ্রহে ভ্রমন, সে গ্রহে লোকাল এলিয়েনেদের সাথে সংঘর্ষ, এগুলো নিয়ে ঘাটলেও মনে হয় বর্তমান প্লট থেকেও আরেকটা সুন্দর প্লট বের করা যেতো। কিন্তু না, মহামান্য স্ক্রিপ্টরাইটার মনে করলেন যে এগুলো দেড় মিনিটের মধ্যে দেখিয়ে ফেলে গল্পের প্রটাগনিস্টকে মুভির বাকি এক ঘন্টা চল্লিশ মিনিট পয়েন্ট A থেকে পয়েন্ট B তে নিয়ে নিতে পারলেই মনে হয় হয়ে গেলো। আমি ইহকালে এতো বোরিং আর প্রেডিক্টিবল সায়েন্স ফিকশন দেখিনি। যদিও গ্রাফিক্সের কাজ বেশ মান সম্মত হয়েছে, এক হাজার বছর পরের পৃথিবীর এভুলুশন থিওরি চমৎকার হয়েছে। প্রাণীজগতের বিবর্তনের পরের রুপগুলো দেখে আসলেও অসাধারন রকমের ভালো লেগেছে। মুভিতে এ একটা জিনিষই বিশ্বাসযোগ্য এবং আপ টু দ্যা মার্ক লেগেছে আমার কাছে।

 

কাস্টিং এর কথা বলি… মুভিটার ট্রেইলার দেখে যা মনে হয়েছিলো বাস্তবে তার ধারে কাছ দিয়েও যায়নি। “দ্যা ম্যান উইথ দ্যা আইরন ফিস্ট” মুভির ডিরেক্টর যেমন তারান্টিনোর নাম মার্কেটিং করে মুভি চালিয়েছিলো, ঠিক তেমনি জেনারেল সাইফারের রোলে উইল স্মিথের নাম ভাঙ্গিয়ে এ মুভি মার্কেটিং করা হয়েছে। আপনি যদি উইল স্মিথের জন্য মুভিটার অপেক্ষায় থাকেন তাহলে আপনার আশার ভেলা ওখানেই ব্রেক মারেন। পুরো মুভিতে কাক্কু পনেরো মিনিটও ঠিকমতন ছিলো না, আর যতক্ষন ছিলো মুভির কোনো মুখ্য ভুমিকায় ছিলো না (আমার মনে হয়নি আর কি)। পুরো মুভি জুড়েই তাহার বাস্তব জীবনের ও এই মুভির সন্তান ক্যাডেট কিতাই এর রোলে জ্যাডেন স্মিথ। পুরো মুভিতেই জ্যাডেন স্মিথের জয় জয়কার। ব্যাপারটা হজম করে নিতাম যদি ছেলেটা পার্ফরমেন্সটা সে মাপের দিতো। হজম করতে কষ্ট হচ্ছে যে এই ছেলেই জ্যাকি চ্যানের সাথে “দ্যা কারাতে কিড” করেছিলো। বয়স বাড়ার সাথে সাথে অভিনয় ট্যালেন্ট মনে হয় পরে গেছে। আর এ ছেলের ফেশিয়াল এক্সপ্রেশন? টোয়াইলাইটের ক্রিশ্চেন স্টূয়ার্ট এর চেয়ে ভালো অভিনয় ও ফেশিয়াল এক্সপ্রেশন দিতে পারে। জ্যাডেনকে দেখে মনে হয়েছে যে ছেলেটা এক্ষুনি কেঁদে ফেলবে, মুভিতে যে সিনই চলুক না কেনো, ক্লাইমেক্স যে আকারেরই থাকুক না কেনো। ছেলের এক্সপ্রেশন সদা একই। আই এম নট শিটিং ইউ, জাস্ট লুক এট দিস…

 

article-2324343-19C60A5B000005DC-790_634x358 Will_Jaden_Smith-After-Earth Screen-Shot-2012-12-13-at-10.57.29-AM-2Jaden-Smith-in-After-Earth-2013-Movie-Image4

দেখছেন নি কারবার?

মিডিয়া লাইনে বাপের পাওয়ারে ঢুকছে। এখন শিটি এক্টর হইলেও কিছু করার নাই। দিস ইজ শো-বিজ। মুভিটা মোট $130,000,000 বাজেট নিয়ে প্রোডাকশনে গিয়ে আয় করে $60,522,097. স্ক্রিপ্টরাইটারের ঘাড়ত্যাড়ামি আর জ্যাডেনের ভ্রু কুচকানি এ সুত্রের থেকে বাদ দিলে আয়ের কোটাটা মনে হয় আরেকটু বাড়তো। মুভিটার সবচেয়ে বড় কাল হয়ে দাড়িয়েছে গল্পটা আর জ্যাডেন, একথা স্বীকার না করলেই নয়। আর মুভিটার ডিরেক্টরটাও একজন রিস্কি মানুষ। Manoj Nelliyattu Shyamalan, একই মানুষ যে কিনা সিক্সথ সেন্স এর মতন হাই কোয়ালিটি মুভি নির্মান করেছে, আবার একই মানুষ অ্যাভাটারঃ দ্যা লাস্ট এয়ারবেন্ডার এর মতন একটা সুন্দর অ্যানিমেশন সিরিজকে মুভিতে রুপান্তর করতে গিয়ে সিরিজটার রেপ করে দিয়েছে। এনার কাজে কোয়ালিটিটা বড়ই আন্সটেবল বলে মনে হয় আমার কাছে। এ মুভিতেও তার কাজের স্টেবেলিটিটা ছিলো না বলে মনে হয়েছে।

এই হলো মুভিটার উপর আমার ফাইন্যাল অ্যাসেসমেন্ট, মুভিটা আপনার জন্য ওয়েস্ট অফ টাইম, ব্যান্ডুইথ আর ধৈর্য। এরপরেও যদি অনেকে মনে করেন, “রিভিয়ারের আন্টিরে আংকেল, মুভিটা আমি দেখবই” তাদের জন্য মুভিটার লিঙ্ক নিচে দেয়া হলো। আর যারা মুভিটা অলরেডি দেখে ফেলেছেন আপনারা আপনাদের অনুভূতি জানাতে ভুলবেন না কিন্তু…

ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://www.movieloversblog.com/i_MAN/15043

হ্যাপি শেয়ারিং।

(Visited 60 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ২৮ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. রেটিং দেইখা আর পোস্ট পড়তে মন চাইলো না। -_-

  2. আইম্যান আইম্যান says:

    আশায় হতাশায় আশাহত হইয়া মুভি দেখনের ইচ্ছা চান্দে গেছে 🙁 সময় পাইলে ট্রাই দিমু -_-

  3. নোবিতা রিফু says:

    উইল স্মিথের পুলার ট্যালেন্টের এখন এতই আজাইরা অবস্থা, যে হ্যার মুভি দেখার থেইকা বেলিসিমো আইসক্রিম ওভেনে দিয়া গরম কৈরা খাওয়াও ভালো… -_-

  4. আইম্যান আইম্যান says:

    নোবিতা রিফু বলেছেন, “উইল স্মিথের পুলার ট্যালেন্টের এখন এতই আজাইরা অবস্থা, যে হ্যার মুভি দেখার থেইকা বেলিসিমো আইসক্রিম ওভেনে দিয়া গরম কৈরা খাওয়াও ভালো… -_- ” 😀

  5. Simile says:

    রিভিয়ারের আন্টিরে আংকেল, মুভিটা আমি দেখবই!! আর আমার কেন জানি মনে হচ্ছে মুভি টা তাও আমার ভালো লাগবে!!! 😛 😀

    • ডন মাইকেল কর্লিওনি says:

      “”রিভিয়ারের আন্টিরে আংকেল, মুভিটা আমি দেখবই!!”” হাই পাইপ লন আফা… 😛 😛 🙂

  6. হাইজেনবার্গ® says:

    জ্যাডেন পোলাডার লাইগা দুঃক্ষু লাগের , ছুটো বেলায় কি জবর এক্টিং ই না দেখাইছে ।। এখন বাপের নামডা ডুবাইবার লাগছে :/

  7. gr8masum says:

    One sentence – Shyamalan is the director – is enough not to watch this movie

  8. শাতিল আফিন্দি says:

    হাহা, মুভিটা মনে হচ্ছে ডুবেছে! 😛

  9. ট্রিপল এস ট্রিপল এস says:

    মুভিটা দেখার ইচ্ছা পুরাই মাটি কইরা দিলা! অনেক দিন আগে এই মুভিটার মেকিং নিয়া ছবি সহ একটা বিশাল পোস্ট তুমি করসিলা নাকি কালো হিমু? সেইটা ছিল আশা জাগানিয়া আর আজকেরটা পুরা ডুবাইন্না…
    পিচ্চিটারে ভাল্লাগতো কিন্তু একি শুনাইলা!! লেখা পড়ে তো একটা গান মনে পড়তেছে “আমার ভাসাইলি রে, আমায় ডুবাইলি রে”। গ্যাদাকালে বাপের লগে The Pursuit of Happyness কইরা হাওয়ায় ভাসছিল, এইবার এইটা কইরা পুরা ডুবছে মনে হচ্ছে…

  10. নির্ঝর রুথ says:

    প্রথম প্যারাটা এতো পেঁচগিওয়ালা! কিন্তু কাহিনী তো সেই “নতুন বোতলে পুরান মদ”। এমনিতেই সাই-ফাইয়ের ভক্ত না। তার উপর এই জ্বালাময়ী রিভিউ পড়ে রুচি ইহজনমের জন্য নষ্ট হয়ে গেলো :/

  11. সোলিটারিও says:

    লিমু, কি কইবা জানিনা… কিন্তু আমার কাছে খারাপ লাগে নাই… :p

  12. অ্যান্থনি এডওয়ার্ড স্টার্ক says:

    রিভিয়ারের আন্টিরে আংকেল, মুভিটা আমি দেখবই। :p বেশি খারাপ লাগলে টাইন্যা টাইন্যা দেহুম। * :p

    * শর্ত প্রযোজ্য। 😉

  13. elomanush says:

    মুভিটা আমার ভাল লেগেছে। কে জানে হয়তো উইল স্মিথ বলেই।তবে আপনার তথ্যে ভুল আছে। আপনি যে আয়ের তথ্য দিয়েছেন তা কেবল domestic আয় । Domestic + foreign মিলে আয় হয়েছে প্রায় $243,611,982 ।
    এখানে পাবেন।
    http://www.boxofficemojo.com/movies/?id=1000ae.htm

  14. আশাহত সকলের মত, তবুও একটা কথাআ বলব, “রিভিয়ারের আন্টিরে আংকেল, মুভিটা আমি দেখবই” 😛

  15. রীতিমত লিয়া says:

    রেটিং দেইখ্যা পুরাই ‘অ’। তবে ছেলেটাকে ‘কারাটে কিড’ এর পিচ্চিটার মত লাগতেছে। সে নাকি?

    • ডন মাইকেল কর্লিওনি says:

      হ্যাঁ, আপু… এইটা ওই কারাতে কিডের পিচ্চিটাই… কারাতে কিড আর তার বাপ– দুইজনেরেই ধুইয়া দিছে এই মুভিতে… 😛

  16. ডন মাইকেল কর্লিওনি says:

    পুরা মুভিতে যেই জিনিসটা বুঝার লাইগা মাথা ঠুইকা মরলাম সেইটা হইল কুন দুঃখে এইরাম কান্দন কান্দন ভাব নিয়া সে পুরা মুভি পার কইরা দিল… ক্রিস্তেন ইস্তুআট পর্যন্ত লজ্জা পায়া যাইব এই পিচ্চির এইরাম পারফরমেন্সে… 😛 😛

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন