New World — ভয়ংকর এক অপরাধ সাম্রাজ্য ও নিঃসঙ্গ এক পুলিশ অফিসারের উপাখ্যান….
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

607f89a9b553700262c43c84091d24d4-400x238গোল্ডমুন, কোরিয়ার আন্ডারওয়ার্ল্ডের সবচেয়ে বড় ক্রাইম সিন্ডিকেট। পুরো দেশকে বিভিন্ন অংশে ভাগ করে প্রতিটা অংশে আলাদা আলাদা বস নিযুক্ত করে দেয়া এই সংগঠনটি নিয়ন্ত্রন করে পুরো কোরিয়ার অপরাধ সাম্রাজ্য। আইন প্রয়োগকারী সংস্থার জন্য বিষফোড়ার মত যন্ত্রণা সৃষ্টিকারী অপরাধজগতের ঈশ্বরখ্যাত এই মাফিয়া সংগঠনটি হঠাৎ মুখোমুখি হয় এক অনভিপ্রেত ঘটনার। খুবই রহস্যজনকভাবে নির্জন মধ্যরাতে সিন্ডিকেটের চেয়ারম্যান মিঃ সিওকের মার্সিডিজ বেঞ্চ চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যায় এক দ্রুতগতির কাভারড ভ্যানের ধাক্কায়। লিডারের আকস্মিক মৃত্যুতে সংগঠনের নেতৃত্ব শূন্যতা এর ঐক্যকে ঠেলে দেয় শঙ্কার মুখে…
29110e766617c782c2955166792314e0-400x453

ও আচ্ছা, আপনাদের সাথে তো এই রঙ্গমঞ্চের শিল্পীদের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়নি। চেয়ারম্যানের মৃত্যুর পরে তিনজনকে ঘিরে ঘুরতে থাকে সিন্ডিকেটপ্রধানের রিভলবিং চেয়ারটি। প্রথম জন আঞ্চলিক বসদের মধ্যে সবচেয়ে দুর্ধর্ষ হিসেবে কুখ্যাত সংগঠনের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড Jung Chung , দ্বিতীয়জন পার্টির প্রভাবশালী নেতা ও সাপের চেয়েও ঠাণ্ডা দৃষ্টির অধিকারী Lee Joong-gu এবং তৃতীয়জন সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান Jang Su-ki। এদিকে বহু চেষ্টায়ও সংগঠনটি ধ্বংস করতে বিফল হওয়া পুলিশ শেষতক আশ্রয় নেয় এক অদ্ভুত কৌশলের। পুলিশের সেকশন চিফ Kang Hyung-chul আট বছর আগে গোল্ডমুনের ভেতর রোপণ করেছিলেন Lee Ja-sung নামক এক পুলিশ অফিসারকে। এই আশায় যে, একদিন এই বিষবৃক্ষ উপড়াতে লী হবে প্রধান হাতিয়ার। দীর্ঘ আট বছরে লী প্রমান দিয়েছে নিজের যোগ্যতার, হয়েছে সিংহাসনের অন্যতম দাবীদার দুর্ধর্ষ Jung Chung ডানহাত ও আত্মার আত্মীয়। কিন্তু লী আজ বড়ই ক্লান্ত। একজন দুর্ধর্ষ মাফিয়া গ্যাংস্টারের অভিনয় করতে করতে সে ভুলতে বসেছে তার সৎ পুলিশ অফিসারের পরিচয়টা। বিয়ের পরে নিজের স্ত্রীর কাছে পর্যন্ত সে নিজের পরিচয় দিতে পারেনি। তাই আজ যখন স্ত্রীর গর্ভে নিজের অনাগত ভবিষ্যৎ, তখন সে ছুটি চায় এই মিশন থেকে। চায় না তার স্ত্রীর গর্ভে থাকা সন্তান যেন তার মিথ্যা পরিচয়ে বড় হয়। কিন্তু মানুষের ভাগ্য কেন যেন সবসময় তার আশাকে নিয়ে নির্মম পরিহাস করতে ভালবাসে। গোল্ডমুনের সিংহাসন এখন খালি। এইটাই সুযোগ গোল্ডমুনকে চিরতরে নির্বিষ করে দেয়ার। আর এই মুহূর্তে কিনা লী পালাতে চাচ্ছে নিজের দায়িত্ব ছেড়ে? কর্তব্য লী কে মুক্তি দেয় না। এমনকি হাসাপাতালে তার স্ত্রী যখন সংকটাপন্ন অবস্থায়, সেই মুহূর্তেও না। ফলাফলটা দাঁড়ায় খুব ভয়াবহ। যে কর্তব্যের টান একদিন লী কে একদিন আইনের সেবক বানিয়েছিল, সেই কর্তব্যই লীকে দাড় করিয়ে দেয় সততা ও বিশ্বাসঘাতকতার মাঝে ঝুলে থাকা এক সূক্ষ্ম সেতুর উপর। কোনটা বেছে নেবে লী ?
images (3)

Park Hoon-jung এর রচনায় ও পরিচালনায় ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এ সাউথ কোরিয়ান ক্রাইম ও ড্রামা থ্রিলার মুভিটায় অভিনয় করেছেন Lee Jung-jae, Choi Min-sik and Hwang Jung-min,Park Sung-woong, Song Ji-hyo , Kim Yoon-seong । কাহিনীর ডেপথ ও অভিনয়শৈলী ছিল এই মুভিটার সবচেয়ে শক্তিশালী দিক। বিশেষকরে প্রতিটা চরিত্রের অভিনয় এতটাই জীবন্ত ছিল যে এটাকে অভিনয় বলে মনেই হয়নি। আর গ্যাংস্টারদের চালচলন এবং বেশভুষার ব্যাপারে এই মুভি ছিল পুরাই লাজওয়াব। এইরাম কমপ্লিট স্যুট পড়া একটা আর্মি যদি সর্বক্ষণ আপনার চারপাশে থাকে, ট্রাষ্ট মি, YOU GOTTA HAVE TO BE FEEL LIKE THE KING OF THE WORLD । আইএমডিবিতে ৭.৫ এবং রটেন টম্যাটোতে ৭১% ভোট পাওয়া এই মুভিটা নিয়ে Salon পত্রিকা লিখেছে ”

the rewards come from a satisfying plot, distinctive characters and a series of memorable showpieces, and Park handles all three demands well,” and “no one in American movies has made a crime opera this good in years.

5897aaecd358c1725eaddb4b988facc6-400x224

download (1)

সবশেষে এতদুর বলা যেতে পারে, গ্যাংস্টার মুভিগুলোর মাঝে নিউ ওয়ার্ল্ড এক ভিন্ন কিছু। আন্ডারওয়ার্ল্ডের অপরাধ জগতের রোমহর্ষক ব্যাপার-সাপারকে পাশ কাটিয়ে যেখানে মুখ্য হয়ে উঠেছে বন্ধুত্ব ও কর্তব্যের এক অভাবিত সংঘাতের অপূর্ব চিত্রায়ন। যা আমাদের চোখ আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় আমাদের ভেতরে থাকা এক অকল্পনীয় নিষ্ঠুর সুপ্ত দানবকে, যে হয়তোবা ভালবাসার প্ররোচনায় আমাদের অজান্তেই ধ্বংস করে ফেলতে পারে সবকিছু..

images (1)

http://www.imdb.com/title/tt2625030/

http://thepiratebay.sx/torrent/8639970/New_World_[2013]-720p-BRrip-x264-StyLishSaLH_(StyLish_Release)

http://uptobox.com/pqvuo19kzeu2

এই পোস্টটিতে ৩৩ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. প্রফেসর মরিয়ার্টি প্রফেসর মরিয়ার্টি says:

    পড়লাম, ভাল লাগলো। 🙂
    এত এত ভাল লাগা রেখে গেলাম। ♥
    ডাউনলোডিং।

  2. তানিয়া says:

    মুভিটা দেখছি, থ্রিলার মুভি হিসেবে খুব খুব ভালো লেগেছে আমার কাছে 🙂

    • মাইকেল ফ্রান্সিস করলিয়নে says:

      গোলাপ নেও তানিয়া… 😛 😛 তোমার সাথে বহুদিন দেখা হয় না… 🙁 দেখতে মুন চায় তুমারে… 🙁

  3. সামিয়া রুপন্তি says:

    দেখি নাই…কোরিয়ান মুভিতে আমি কাউকে আলাদা করতে পারি না, হিরো রে ভিলেন আর vice versa ভাবি, তারপর মুভি শেষে তব্দা খাইয়া যাই!! :/ এই সমস্যা থেকে বাঁচার কোন উপায় পাই নাই!! :'(

  4. Sev Darcy says:

    আপনার লেখা পড়ে তো এখনই ছবিটি দেখতে ইচ্ছে করছে। ভরসার কথা, প্রফেসর ছবিটি ডাউনলোড দিয়েছেন।

  5. ধ্রুব নীল says:

    অসাধারন একটা মুভি । এরকম এন্ডিং একসেপ্ট করি নাই । এরকম এন্ডিংওয়ালা মুভি সাধারণত দেখা যায় না ।
    বরাবরের মতোই চমৎকার মুভির মচতকার রিভিউ……চালিয়ে যান গুরু । 😀 😀

    • মাইকেল ফ্রান্সিস করলিয়নে says:

      আপনাদের অনুপ্রেরনা আর ভালবাসাতেই কিছু লিখতে সাহস পাই… অশেষ ধন্যবাদ আর গোলাপ রইল নীল ভাই… 😛 🙂

  6. আমাকে চরম লেগেছে ছবিটা।

  7. Rouf says:

    আহারে দুনিয়াতে এখনও কত মুভি দেখা বাকী আছে….. চিন্তা নাই, দেইখা ফালামুনে।
    ডন, আপনার মত গোলাপ রাখতে পারলাম না, তবে একটা মেশিনগান, ২টা টমি গান, ১টা টেঙ্ক আর হাজারখানিক গুলি রেখে গেলাম। এগুলো আমার তরফ থেকে ডনের জন্য শুভেচ্ছা মাত্র…… 🙂

    • মাইকেল ফ্রান্সিস করলিয়নে says:

      মারছেরে… এসবের আবার কি দরকার ছিল… 😛 😛 তরতাজা সাদা গোলাপের বিনিময়ে উপহার বুঝিয়া পাইলাম… 😛 😛

    • Rouf says:

      ওও তরতাজা সাদা গোলাপ আমার খুব প্রিয়, গোলাপী গোলাপ আর লাল গোলাপ একদমই ভালো লাগে না।

    • সামিয়া রুপন্তি says:

      এইখানে এসব অবৈধ অস্ত্রের বিনিময় চলছে!!! আমি গেলাম পুলিশে খবর দিতে!!!

    • মাইকেল ফ্রান্সিস করলিয়নে says:

      লাভ নাই সামিয়া, পুলিশ নিয়মিত আমার কাছ থেকে হলুদ গোলাপের শুভেচ্ছা পেয়ে আসছে। 😀 :rose: :afro: তারপরও যদি যাইতে চাউ, যাও… :cool

  8. James Bond says:

    পড়লাম, আর সাথে লাল গোলাপ রেখে গেলাম 🙂

  9. পথের পাঁচালি পথের পাঁচালি says:

    ডন দেখি শুধু এই ধাঁচের মুভি দেখে। লেখা তো ভালোই।

  10. যথেষ্ট ভালো মুভি … যথেষ্ট ভালো লেখা

  11. অনিক চৌধুরী says:

    দুর্দান্ত মুভি। অনবদ্য লিখনি।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন