The Handmaiden (2016) – একটি ভালোবাসার গল্প, প্রতিশোধের গল্প, নৃশংসতার গল্প

“The Handmaiden”- একটি ভালোবাসার গল্প, প্রতিশোধের গল্প, নৃশংসতার গল্প। গল্পের রূপকার হল ভিঞ্জেস ট্রিলজির পরিচালক Park Chan-Wook, যিনি পরিচালকের আগে মুভি ক্রিটিক্স হিসাবে সুনাম কুড়িয়েছিলেন। বিগত সব কাজগুলোর থেকে The Handmaiden একটু অন্য ধরনের কাজ, বলা যায় পার্কের সব কাজের থেকে এখন পর্যন্ত সেরা কাজ The Handmaiden.

কাহিনী প্রথমে মনে হবে শুধুমাত্র একটি ষড়যন্ত্র। ঠিক আছে একটু ভেঙ্গে বলি তাহলে, বিপুল সম্পদের অধিকারী এক মহিলাকে বিয়ে করে তার সম্পত্তি হাত করার জন্য এক জালিয়াত কৌশলে তার বাড়িতে চাকরানী পাঠায়। চাকরানীর কাজ হলো মহিলাটিকে ফুঁসলিয়ে জালিয়াতের সাথে বিয়ে দেয়া। শর্ত হলো চাকরানীটা জালিয়াতের টাকার ভাগ পাবে এবং জালিয়াত সম্পত্তি হাত করার পর মহিলাটাকে পাগল বলে পাগলা গারদে পাঠাবে।15799983_729967437156226_4254308261993775050_o

গল্পটি বেশ সহজ সরল তবে বেশ ঘটনা এগিয়েছে বেশ ধীর লয়ে। তিনটি পার্ট করে গল্পটি উপস্থাপন করেছে। সিনেমা শুরু হয় মাঝের পার্ট থেকে এরপর খুব সুন্দর করে বাকি দুইটি পার্টের সাথে মিল করে দেখিয়েছে। আর প্রতিটি জোড়া লাগা অংশে রয়েছে এক একটি টুইস্ট। যা সিনেমাতে ধরে রাখতে সাহায্য করেছে।

সিনেমার গল্প বিন্যাস, আলোকসজ্জা ও ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক এক কথায় অসাধারণ।

সিনেমাটি বেশ ইরোটিক, নগ্নতা পরতে পরতে, চটি সাহিত্য থেকে শুরু করে 2x এর মত কিছু দৃশ্য রয়েছে সিনেমাটিতে। মূলত এগুলো সিনেমার অন্তর্নিহিত কাহিনীকে সবার সামনে নিয়ে এসেছে। দেখিয়েছে ভালোবাসা ও বিকৃত রুচি বোধের মানুষের রূপ।

পার্কের সিনেমাতে থাকবে রিভেঞ্জ, কন্ট্রভার্সিয়াল রিলেশনশিপ ও ভায়লেন্স এর সমন্বয়ে শর্মার মত মোড়ানো প্যাকজ, সেখানে ধীরে ধীরে জমবে থ্রিলার। অপেক্ষা করতে হবে টুইস্টেড এক সমাপ্তির। ব্যাতিক্রম হয়নি, নিজ মহিমাকে আরো উজ্জ্বলই করেছেন বলা যায়।

Sarah Waters এর উপন্যাস ফিঙ্গারস্মিথের এমন বিচিত্র অ্যাডাপ্টেশন তা সফল নাকি বিফল, সেটি আলোচ্য বিষয় নয়। ভিক্টোরিয়ান যুগকে, জাপানিজ ঔপনিবেশের যুগে রূপান্তরের দুঃসাহস দেখানোটাও তো একটা ব্যাপার। ফিঙ্গারস্মিথ হিস্ট্রিকাল এবং একই সাথে পলিটিকাল থ্রিলার। সেখান থেকে বের হয়ে ফেমিনিজমকে তুলে ধরা, তাও ইরোটিক মধ্যমে, ব্যপারটি বেশ কঠিন তা বলা বাহুল্য। The Handmaiden এর সবচেয়ে বড় সফলতা হল, এটি অন্যতম সেরা ফেমিনিস্ট মুভি।

অভিনয়ের দিক থেকে Kim Min-hee এর কথা আলাদাভাবে না বললেই নয়। শান্ত অভিনয় দিয়ে পুরো সময় নিজের দিকে নজর রেখেছেন। তার চরিত্র দেখে মাঝে মাঝে দর্শক কনফিউজড হয়ে যাবে আসলেই কি তিনি শিশুসুলভ নাকি এর মাঝে লুকিয়ে আছে অন্য কেউ?

ডাউনলোড লিংক

click

 

(Visited 929 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন