24 – তামিল সাই ফাই মুভি

প্রচন্ড হাইপ সৃষ্টিকারী মুভি 24 – The Movie​। বলা যায় সাউথের তামিল ইন্ডাস্ট্রির বেশ বড়সড় সাইন্স ফিকশন মুভি। ট্রেলার দেখেই আশা করা হয়েছিল দারুণ কিছু দেখার। কিন্তু আসলে মাঝে মাঝে ট্রেলার আপনার আশা যতটা বাড়িয়ে দেয় ঠিক ততটাই কমিয়ে দেয় মুভি দেখার পর। আর আমার মত সাউথ লাভার হলে যদি মুভি ঠিকঠাক না হয় তাহলে তো বেশি খারাপ লাগবে।

আসলে সাই ফাই + টাইম ট্রাভেল নিয়ে মুভি বানাতে গেলে সাইন্স এবং এর প্রতিটি ধাপের সাথে পরিপূর্ণভাবে পরিচিত থাকতে হবে। তা না হলে ভুল হবেই এবং সেই ভুল যদি আপনি খুব ভালোভাবে দেখেন তাহলে আপনার চোখে পড়বেই।

▬▬▬▬▬★মুভির কাহিনী নিয়ে একটু বলে নেয়া যাক★▬▬▬▬▬

একটি ঘড়ি বানাতে হবে যা একদিন পিছনে নিয়ে যাবে। সেই প্রচেস্টায় সফল হয়ে যান সেথুরামান। বানিয়ে ফেলেন সেই কাঙ্ক্ষিত টাইম ট্রাভেল ক্লক। কিন্তু তার জন্য পাগল হয়ে যায় তাই ভাই আথ্রেয়া। ঘড়ি পাবার জন্য মেরে ফেলে সেথুরামান ও তার স্ত্রীকে। কিন্তু ঘড়ি চলে যায় সেথুরামানের ছেলে সাথে আর চাবি থেকে যায় আথ্রেয়র কাছে। এরপর কাহিনী শুরু হয় ২৬ বছর পর থেকে। বাকিটা মুভিতে দেখবেন।

suriya-759

মুভির ভালোদিক হল মুভিটি ইঞ্জয় করার মত, কমেডি ধাঁচের আর ঘড়ির কারসাজি সাথে আথ্রেয়া চরিত্রে সুরিয়ার অসাধারণ অভিনয়। আর এ আর রহমানের মিউজিক।

============ ►ডাউনলোড লিংক◄ ============

★ডিরেক্ট- ক্লিক করুণ
★টরেন্ট- ক্লিক করুণ
★ইংরেজী সাবটাইটেল- ক্লিক করুণ

▬▬▬▬▬▬▬▬▬★স্পয়লার এলার্ট ★▬▬▬▬▬▬▬▬▬

আসলে মুভিটি যেহেতু টাইম ট্রাভেল নিয়ে, তাই সবাই ভেবে থাকবে হয়তো খুব মারাত্নক প্যাঁচ থাকবে। ট্রায়াঙ্গেল, ডনি ডার্কোর মত সবাই এক্সপ্ল্যানেশন খুজবে। সেদিক থেকে মুভিটি আর ১০/১২ টা লিনিয়ার মুভির মত সরল। কোন গরল প্যাঁচ নেই মুভিটিতে। এই ধরনের টাইম ট্রাভেল মুভি চাইলেই আমাদের এখানেও বানানো সম্ভব। সো মুভির স্ক্রিপ্ট যিনি লিখেছেন তিনি যে কতটা সাইন্স জানেন তাতে সন্দেহ আছে। কারণ মুভির প্লট হোল অনেক। আসেন দেখি কি কি ভুল আছে মুভিটিতে-

►আপনি সব কাজ বর্তমানে করেন। ভালো কথা টাইম ট্রাভেলের মেইন কথা হল আপনি চাইলে পিছনে গিয়ে সেই কাজগুলো দেখতে পারেন বা চাইলে সেই কাজগুলো সঠিক ভাবে করতে পারেন। এখন মুভির ১ম প্লট হোল হল সেথুরামানের ছেলে মানী (আমি না ভাই, মুভিতে এই নাম দিছে 😛 ) টাইম ফ্রিজ করে দেয় কিন্তু সে টাইম ফ্রিজ দুইবার করে। কথা হল তাহলে তারা বেশ কিছু সময় পিছন থেকে শুরু করে, তাহলে একটা দিনে তারা কতটা সময় থাকে?

► ৩০ সেকেন্ড সময় সুরিয়া পুরো ম্যাচ ঘুরিয়ে দিলো আসলেই বে মানান। স্টেডিয়ামে এতিমখানা থেকে যেতে এতো কম সময় লাগলো? প্রথমে দেখায় মানি আর সত্য (সামান্থা) এতিমখাানায় এসে দেখে লাস্ট বল হবে, ধোনি ৬ মারতে গিয়ে আউট হবে। সুরিয়া টাইম ব্যাক করলো বল করার আগমূহুর্তে, আর কয়েক সেকেন্ডে পৌঁছে গেলো স্টেডিয়ামে? আর টাইম ফ্রিজের লিমিট ছিল ৩০ সেকেন্ড।

► টাইম ট্রাভেল করা মানে সেই সময়ে ফিরে যাওয়া, যখন সব যেমন ছিলো তেমন হয়ে যাবার কথা কিন্তু ঘড়িটা ২৬ বছর পিছনে যাবার পরও একই রকম থাকে আসলেই কেমন না? সবাই যার যার মত হয়ে যায় শুধু ঘড়ি নতুন থেকে যায়।

► টাইম ট্রাভেলের মেইন কথা হল পুর্বে সেই ঘটনা ঘটতে হবে। এরপর সেটা পরিবর্তন করতে হবে। কিন্তু সুরিয়ার হাঁত কেটে ঘড়ি নেওয়ার পর সুরিয়া মারা যায়। তার মানে ঐদিনে ফিরে এসে সুরিয়া আবার মারা যাবে এবং এর আগে তার হাতে ঘড়ি থাকবে। টাইম ট্রাভেলের পর কিন্তু ঘড়ি চলে যায় আথ্রেয়ার কাছে, সুরিয়ার কাছে ঘড়ি থাকে না। কিন্তু হিসাবে পিছনের ঐ টাইমে ঘড়ি সুরিয়ার কাছে থাকার কথা কারণ আথ্রেয়া তখন হাসপাতালে। লজিকে মিল হয়নি এইখানে। টাইম ট্রাভেলে যে জিনিসপত্র এক থাকে সেটা এখানে ভালোয়েট করা হয়েছে। কারন মুভির প্রথমে দেখানো হয়েছে এক লোক বারবার কলার খোসায় পা পিছলে ফেলে, তার মানে কলার খোস জায়গা মত থাকবে, দূর্ঘটনা যেন না ঘটে সেটা রোধ করতে হবে। কারেন্টের তার ও কিন্তু সেম স্থানে ছিলো, মনে রাখবেন।।

আমার কাছে বেশ গোলমেলে লেগেছে মুভিটি। পরিপূর্ণ সাই ফাই করতে পারে নি। টিপিক্যাল সাউথের রিভেঞ্জ মুভি হয়েছে। অতীত থেকে শুরু আবার অতীতেই থেকে গেছে। হয়তো ইঞ্জয় করবেন কিন্তু ভুলে ভরা একটি মুভি। এর থেকে আমাদের দেশের আয়না রহস্য অনেক ভালো মানের টাইম ট্রাভেল + সাই ফাই নাটক।

রেটিংঃ ৬.৫/১০

(Visited 262 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ৫ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Movie ke enjoy krleo to hoy eto kahini ber krar ki drkr… Eta thik na oita!! Ajairaaa

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন