মাসুদ রানা ও জাজ মাল্টিমিডিয়া
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0
ভুমিকাঃ কৈশোরে তিন গোয়েন্দার সাথে পাল্লা দিয়ে মাসুদ রানা পড়তাম । তবে যেদিন থেকে রকিব হাসান কাজি আনোয়ার হোসেনের সাথে ঝগড়া করে যখন বিদায় নিলেন তখন আমিও তিন গোয়েন্দাকে বিদায় দিলাম । পুরোদমে ঝুঁকে পড়লাম মাসুদ রানার দিকে । পরে রকিব হাসান ফিরে এসেছেন শুনলেও ততদিনে আমি পছন্দের গন্ডি টপকে পাগারপার ।
.
বিস্তারিতঃ সম্প্রতি জানতে পারলাম জাজ মাল্টিমিডিয়া মাসুদ রানাকে নিয়ে মুভি করবে । সত্য কথা বলতে কি – রীতিমত ‘আঁতকে’ উঠলাম । যতদ্দুর জানি কাজী আনোয়ার হোসেন স্যার ‘মাসুদ রানা’র রাইট কাউকে দেন না । কারণ বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে কেউ মাসুদ রানাকে উপস্থাপনা করা রীতিমত দুঃসাধ্য । তবে কাজী আনোয়ার হোসেন স্যার ইতিহাসে কেবল একবারই মাসুদ রানা করার অনুমতি দিয়েছেন । সেটা ১৯৭৪ সালে ।
আরো বিস্তারিতঃ ১৯৭৪ সালে মাসুদ রানার ‘বিস্মরণ’ বইয়ের অবলম্বনে ‘মাসুদ রানা’ নামীয় একটি মুভি মুক্তি পায় । যাতে মাসুদ রানা চরিত্রে অভিনয় করেন মাসুদ পারভেজ ওরফে সোহেল রানা ও তাঁর বিপরীতে ছিলেন অলিভিয়া এবং কবরী । কাজী আনোয়ার হোসেন এই চলচ্চিত্রের জন্য ১৯৭৪ সালে শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার ও সংলাপ রচয়িতা হিসেবে বাচসাস পুরস্কার লাভ করেন । পরবর্তীতে ‘মাসুদ রানা ঢাকায়’ নামে একটি অশ্লীল চলচ্চিত্রও হয়েছে বলে শুনছি । তবে মনে হয় না এর সাথে কাজী আনোয়ার হোসেনের কোন সংযোগ আছে। যাইহোক জাজ মাল্টিমিডিয়াকে কাজী আনোয়ার হোসেন স্যার রাইট দিয়েছেন তাই বড় কথা । জাজ মাল্টিমিডিয়ার তথ্যমতে -‘কাজীদা (!) জাজের উপর আস্থা রেখেছেন । উনার বিশ্বাস জাজ ঠিক মত মাসুদ রানা বানাতে পারবে ।’ তিনি ৩টি বইয়ের রাইট দিয়েছেন । ধ্বংস পাহাড় , ভারতনাট্যম ও স্বর্ণমৃগ । জাজ এই ৩টি সিনেমা বানাবে ৫ বছরের মধ্যেই । প্রথম সিনেমার নাম – মাসুদ রানা – ধ্বংস পাহাড় ।
প্লটঃ কাজী আনোয়ার হোসেন স্যার ধ্বংস পাহাড় রচনা করেছিলেন ১৯৬৫ সালের প্রেক্ষাপটে । যখন আন্তর্জাতিক রাজনীতির কারণে ভারত তখন আমাদের শত্রু । আমাদের প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান আসছেন কাপ্তাই বাঁধ উদ্ভোধন করতে । যা উড়িয়ে দেওয়া প্ল্যানিং করছে পাগল বৈজ্ঞানিক কবির চৌধুরী।’ দিন যখন পাল্টেছে স্বাভাবিকভাবে কাহিনীর প্লটও পরিবর্তিত হচ্ছে ও হবে ।
উপসংহারঃ সমস্যা হচ্ছে কে হচ্ছে মাসুদ রানা । সোহেল রানাকে রিপ্লেস করে মত কাউকে আমার চোখে পড়ছে না । তবে মুভি যদি শেষমেষ তৈরি হয় তাহলে আমি ঢাকা এ্যাটাকের অভিনেতা তাসকিন রহমানকে রেফার করি । মনে করি মুভিটা যদি ঢাকা এটাকের মত হয় তাহলে মাসুদ রানার ইজ্জত কিছুটা হলে রক্ষা পাবে । আফটার অল মাসুদ রানা ইজ্জত এখন জাজের জাজমেন্টের হাতে ।

এই পোস্টটিতে ৫ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Tony Leo says:

    জাজের হাতে রানা! হিরো কে হবে? আরেফিন শুভ! এক বোতল বিষ দেন কেউ।

  2. আবদুল আজিজকে মাসুদ রানা হিসাবে দেখতে চাই।

  3. RS Faisal says:

    Vai, Saimum pore dakhen. Tarpor r, onno kisu Porte mon chaibe na.
    Of course, Jodi apni Muslim hon… Tahole.

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন