Mr.Nobody [2009] – সম্ভাবনার বিস্ময়কর জগৎ

ধরুন আজকে আপনার একই সময়ে দুটি প্রোগ্রাম আছে । একটি ফ্যামিলির সাথে, আরেকটি বন্ধুদের সাথে । আপনাকে যেকোনো একটিতে যেতে হবে। অর্থাৎ আপনি যেকোনো একটিতে যেতে পারবেন । ফ্যামিলির সাথে থাকলে বন্ধুদের সাথে থাকতে পারবেন না । আবার, বন্ধুদের সাথে থাকলে ফ্যামিলির প্রোগ্রাম বাতিল । কি মিস হবে যদি আপনি ফ্যামইলির প্রোগ্রামে যান ? বা কি মিস হবে, যদি আপনি বন্ধুদের সাথে যান ? অথবা, কি মিস হবে যদি আপনি দুটো অনুষ্ঠানই স্কিপ করেন ? আসলে, সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগ পর্যন্ত সবকিছুই চিন্তা করা সম্ভব । সব অপশনই তো দেখা হয়ে গেল । তবে আরেকটি অপশন আছে। যদি আপনি দুটো অভিজ্ঞতাই একসাথে অনুভব করতে পারতেন ! কোনোকিছুই মিস হতো না । কিন্তু তা তো অসম্ভব । এমনি অসম্ভব চিন্তাভাবনাকে সম্ভব করা হয়েছে ২০০৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সাইন্স-ফিকশন মুভি Mr.Nobody তে ।

২০৯২ সালের কথা । বিজ্ঞানের আকাশচুম্বী অগ্রগতির ফলে এখন মানুষ লাভ করেছে অমরত্ব । সকলেই অমর । তবে একজন ব্যাতিত । সেই মরণশীল মানুষটির নাম Nemo Nobody । Mr.Nobody । বয়স ১১৭। পুরাতন স্মৃতি কিছুই মনে করতে পারেন না তিনি । তিনি মনে করেন তার বয়স এখনও ৩৪ । পৃথিবীর শেষ মরণশীল মানুষ বলে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু তিনিই । চিকিৎসকরা অনেক চেষ্টা করেছেন তার জীবনবৃত্তান্ত জানার । কিন্তু কোন লাভ হয় নি । একদিন গোপনে এক সাংবাদিক ঢুকে পড়ে তার কক্ষে । মৃত্যুর আগে Mr.Nobody এর কিছু অভিজ্ঞতা জানার জন্য । স্মৃতিহীন Nemo আস্তে আস্তে বলা শুরু করে তার জীবনী । যা মনে পড়ে তাই । তার একের পর এক জোড়াতালি মারা ঘটনার সমন্বয় বানানো আজীব কাহিনী শুনে অবাক হতে থাকে সাংবাদিকটি । কেননা তার ঐ কাহিনী রূপকথাকেও হার মানায় ।

১৯৭৫ সালে নিমোর জন্ম । ৯ বছর বয়সে তার বাবা মা এর বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে । জীবনযাপনের জন্য নিমোকে বেঁছে নিতে হবে একটি পথ । হয় বাবা, না হয় মা । যেকোনো একজনের সাথে থাকতে পারবে সে । কি হবে, যদি সে বাবার সাথে থাকে । অথবা, কি হবে যদি সে মার সাথে যায় । দুটো তো আর একসাথে করা যায় না । যদি করা যেত !

এই আজব মুভিটির পরিচালক ও লেখক Jaco Van Dormael । এবং প্রযোজক Philippe Godeau । নামগুলো ততটা পরিচিত নয় । তবে মুভি নির্মাণে মুন্সিয়ানা দেখিছেন তারা । নিখুঁতভাবে উপস্থাপন করেছেন Mr.Nobody । এমন একটি চলচিত্র দেখে কেউই বিস্মিত না হয়ে থাকতে পারবে না । একেতো সাইন্স-ফিকশন সিনেমা, তার উপর নন-লাইনার স্টোরি । প্রধান চরিত্রে আছেন সদ্য অস্কার প্রাপ্ত Jared Leto । আরও আছেন Sarah Polley, Diane Kruger, Lin-Dhan Pham, Ryhs Ifans, দারুন পরিচালনা, অসাধারণ অভিনয়, চোখধাঁধানো স্পেশাল এফেক্টস, সাউন্ড- ট্রাক সবমিলিয়ে Mr.Nobody একটি অসাধারণ সিনেমা ।

Mr.Nobody এর প্রথম প্রিমিয়ার হয় ৬৬তম Venice International Film Festival এ । মুভি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এটি লাভ করে উপস্থিত দর্শকদের কাছ থেকে ১০ মিনিটের স্ট্যান্ডিং অভেশন । সেদিনই এটি আরও লাভ করে Golden Osella Award এবং Biografilm Lanica Award । এভাবেই শুরু মুভিটির পথচলা । একে একে মুভিটি জোগাড় করতে থাকে বিশ্বব্যাপী ভূয়সী প্রশংসা । অনেকে এটিকে Requiem For Dream এর চেয়েও বড় করে মাপছেন । তার কারণ হল জীবনকে দেখার দার্শনিক দৃষ্টিভঙ্গি । মুভিটির দার্শনিক ব্যাপারটি ইতোমধ্যেই মুভিটিকে পরিণত করেছে Cult Hit এ ।

ডাউনলোড লিঙ্ক – https://yts.re/movie/Mr_Nobody_2009
মুভি ইনফো – http://www.imdb.com/title/tt0485947/

(Visited 225 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন