Dunkirk: নোলান, তোমাকে স্যালুট
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

মুভি রিভিউ
————★ Dunkirk ★————-
Release Date:
Genre: Drama, Action, History
Language: English
Running Time: 1 hr 47 minutes
Imdb Rating:8.3/10
Rotten Tomatoes: 92%
২০১৭ সালের অন্যতম সেরা মুভিগুলোর নাম যদি আপনাকে জিজ্ঞাসা করা হয়, তাহলে যেই মুভিটার নাম বেশিরভাগ লোকের মুখেই ঘুরেফিরে আসবে, সেই মুভিটি হচ্ছে, “ডানকার্ক”। কিন্তু কেন? ক্রিস্টোফার নোলানের মতন এই শতাব্দীর সেরাদদের ভীড়েও সেরা পরিচালক মুভিটি রচনা ও পরিচালনার পেছনে ছিলেন বলে? নাকি আসলেই মুভিটার মধ্যে এমন কিছু অনন্য বৈশিষ্ট্য আছে, যা আপনাকে মুভিটিকে পছন্দ করতে বাধ্য করবে? যদিওবা সবার দৃষ্টিভঙ্গি এক নয়, তবুও আমি আমার আঙ্গিক থেকে মুভিটিকে বিশ্লেষণ করার অল্প একটু প্রচেষ্টা চালাতে যাচ্ছি।
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ নিয়ে আজ পর্যন্ত আমরা অনেক মুভিই দেখেছি। সাধারণত যুদ্ধ চলাকালীন কোন একটা নির্দিষ্ট স্থান, নির্দিষ্ট সৈন্যদল, তাদের যুদ্ধের ময়দানের অবস্থা ও পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি নিয়েই ওয়ার জনরার মুভিগুলো নির্মিত হয়ে থাকে। অনেক সময় কয়েকটি নির্দিষ্ট চরিত্রের ব্যক্তিগত আবেগ, মানসিক অবস্থা, শারীরিক দুর্ভোগ ও তাদের টিকে থাকা আপ্রাণ চেষ্টাকে মুভির কেন্দ্রবিন্দুতে রেখে পুরো সৈন্যদলের প্রতীকী হিসেবে তাদের ব্যবহার করা হয়। “ডানকার্ক” মুভিটিও এর ব্যতিক্রম নয়। এই মুভির প্লট গড়ে উঠেছে ১৯৪০ সালের ফ্রান্সে সংঘটিত “ব্যাটেল অব ফ্রান্স” এর বিশেষ মৌলিক ঐতিহাসিক ঘটনাকে ঘিরে। ফ্রান্স ও জার্মানির মধ্যেকার হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে ফ্রান্সের পাশে এসে যুদ্ধ ময়দানে যোগদান করেছিল মিত্রবাহিনী। মিত্রবাহিনী বলতে ইউরোপের ব্রিটেন, পোল্যান্ড, স্কটল্যান্ড এমন কয়েকটি দেশের সৈনিকেরা। কিন্তু পরিস্থিতি জার্মানির পক্ষে চলে গেলে ও জার্মান সেনাবাহিনী পুরো দেশকে জিম্মি করে ফেললে প্রায় ৪০০০০০ ফ্রান্স ও মিত্রবাহিনীর সেনারা ফ্রান্সের পশ্চিমাংশে অবস্থিত সমুদ্র তীরবর্তী অঞ্চল ডানকার্কে জিম্মি হয়ে পড়ে। তাদের বাড়ি যাবার শুধু একটি পথই খোলা, পানিপথ। একদিকে এতোগুলো সৈন্য, তারপর জার্মান বিমানবাহীর আকাশ থেকে গোলাগুলি ও বোমা ছোড়াছুঁড়ি তো রয়েছেই। সামনে বিশাল সমুদ্রের ঢেউ, উপরের সীমাহীন খোলা আকাশকে ছাপিয়ে মাটিতে কয়েক লাখ সেনার বাড়ি ফেরার তীব্র আকুতি। নিজের চোখের সামনে একজন আহত লোক মাটিতে শুয়ে কাতরাচ্ছে। কিন্তু আপনাকে আগে নিজে টিকে থাকতে হবে। এছাড়া জাতী বৈষম্য তো আছেই। যদিওবা ফ্রান্সের সাথে ব্রিটেন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে যুদ্ধ করতে নেমেছিল, তবুও আত্মরক্ষার পালা এলে, অবশ্যই আগে স্বজাতির প্রাধান্যই বেশি। তবে হ্যাঁ, মুভির শেষটা দারুণভাবেই করা হয়েছে। শেষের আধ ঘন্টা মুভিকে যে অন্যরকম এক উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে নিয়ে গিয়েছিল, তা আসলেই ভালোলাগার মতন। মুভিতে যেই চরিত্রগুলোকেই ফোকাস করা হয়েছে, তাদের প্রত্যেকের অংশগুলো নিজ নিজ জায়গাতে মুভির গল্পকে বিকশিত করতে দারুণ কার্যকরী ছিল। বিশেষ করে, ফ্যারিয়ার চরিত্রটা মুভিতে এনে দিয়েছে অন্য রকম এক দেশাত্মবোধক টান। এছাড়া মি. ডোসন, পিটার ও জর্জের দুঃসাহসিক চরিত্রগুলোও মনে দাগ কাটার মতন। আর অ্যালেক্স চরিত্রের মধ্যে একজন সেনা হিসেবে মানবতাবোধের যথেষ্ট বহিঃপ্রকাশ ঘটার পাশাপাশি নিজ মাতৃভূমিতে ফিরে যাবার জন্য কতটা আকুল ও তার জন্য সে কতটা মরিয়া হয়ে উঠতে তা খুব স্পষ্টভাবে প্রতিফলিত হয়েছে। আসলে, নির্মাতা তাকে বাকি সেনাদের মানসিক অবস্থার আর্দশ প্রতীকী হিসেবে ব্যবহার করেছেন।

ডানকার্ক নিয়ে আমার মতামত শুনতে চাইলে, আমি শুধু বলবো অসাধারণ। ডানকার্কে নেই সংলাপের বাহুল্য, ডানকার্কে নেই কথোপকথনের জমজমাট খেলা, ডানকার্কে নেই বাকি সব যুদ্ধের মতন দুই পক্ষের বীভৎস সব রক্তারক্তি কান্ড। কিন্তু ডানকার্কে আছে বন্দিদশা থেকে মুক্ত পাবার একবুক আশার গল্প। এমন একটা প্লটের উপর এতো সুন্দর মুভি শুধু নোলানের মতন পরিচালকই পারেন এতোটা সুনিপুণভাবে তৈরি করতে। তার জাদুকরী স্পর্শে মুভির মধ্যে আলাদা এক ধরণের প্রাণের সঞ্চার জেগে উঠেছিল। মুভিটিতে আছে সংগ্রামশীলতা, জাতীয়তাবোধ, সাহসিকতা, কর্তব্যপরায়ণতা, নিষ্ঠুরতা ও মানবতাবোধের মতন উপকরণগুলোর পূর্ণ উপস্থিতি। আর মুভির অন্যতম অতুলনীয় দিক, মুভির সাউন্ড ইফেক্ট। আমার কাছে, ডানকার্ক অনেক দিন পর দেখা অন্যতম একটি ওয়ার জনরার মুভি। আশা করি, আপনাদেরও ভালো লাগবে। এছাড়া মুভিটির অত্যন্ত সাবলীল ও মানসম্মত বাংলা সাবটাইটেলও আছে। যারা মাতৃভাষাতে মুভিটি উপভোগ করতে চান তারা চাইলে বাংলা সাবইটাইটেল জগতের উজ্জ্বল নক্ষত্র ফুয়াদ আনাস আহমেদের করা বাংলা সাব দিয়ে মুভিটির স্বাদ আস্বাদন করতে পারবেন। মুভির ও বাংলা সাবের ডাউনলোড নিচে দেওয়া হলো।

Movie Download Link: http://bit.ly/2BKAPcG

Bangla Subtitle Link: http://bit.ly/2jVkCcy

এই পোস্টটিতে ৩ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Zia Uddin says:

    Best movie in 2017 till…
    But american sniper/IT o ballagce

  2. dυnĸrιĸ na “dυnĸιrĸ” нoвe correcтιon ĸore nele vlo нoy

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন