৩টি প্রতিশোধের গল্প
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

“প্রতিশোধ” শব্দটির সংজ্ঞা কী? একটু ভেবে কমেন্ট বক্সে উত্তর দিয়েন। তার আগে চলুন ঘুরে আসা যাক, তিনটি সাউথ ইন্ডিয়ান মুভির রিভিউ থেকে, যেগুলোতে প্রতিশোধ নামক এই শব্দকে কেন্দ্র করেই দারুণ এক একটি গল্প গড়ে উঠেছে। আগেভাগেই বলে নিচ্ছি, রিভিউতে স্পয়লার থাকতে পারে, তাই নিজ দায়িত্বে পড়তে পারেন। পরে আমাকে গালমন্দ করেও কোন লাভ নেই।

1. Kumari 21F
ধরুন, আপনি কাউকে খুব ভালবাসেন। আর আপনার পরিচিত কেউ তার ক্ষতি করে বসলো।তখন আপনি কী করবেন? নিজের ভালবাসার মানুষের প্রতি অন্যায়ের বিচার চাইবেন? আপনার আপনজন বলে অপরাধীদদের ছেড়ে দিবেন? নাকি অপরাধীদের নিজের হাতে শাস্তি দিবেন?
মুভিটা সাউথ ইন্ডিয়ার তেলুগু ইন্ডাস্ট্রির। মুভিটা প্রথম যখন আপনি দেখতে শুরু করবেন, রোমান্টিক মুভি বলেই মনে হবে। আসলে, পুরো মুভি জুড়ে দুইজন তরুণ- তরুণীর রোমান্সই দেখানো হয়ে থাকে। প্রথম প্রথম মেয়েটির আচরণ আপনার বিরক্তির কারণ হতে পারে, আর ছেলেটিকে পরিস্থিতির শিকার বলে মনে হতে পারে। কিন্তু যত কাহিনী এগোবে, আপনার মুভিটা ভালো লাগবে। আর শেষের একটি টুইস্টটা মুভিতে এনে দিবে অন্য এক স্বাদ।

2. Ore Mukham
জানি না, বাকি সবার কাছে স্কুল- কলেজ- ভার্সিটি লাইফের মধ্যে কোনটি সবথেকে প্রিয়। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমার ভার্সিটি লাইফ সবথেকে প্রিয়। কারণ এই জীবনে স্বপ্নরা সব ডানা মেলে উড়ে যেতে চায়। শুধু বয়সটাই নয়, চারিদিকে পরিবেশ, বন্ধুবান্ধব, নতুন নতুন ক্রাশ,নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ সবকিছু মিলিয়ে কেমন এক ভালোলাগা কাজ করে মনের ভেতর। কিন্তু সেই ভার্সিটি জীবন, আপনার জীবনের প্রেমকাহিনী ও সবথেকে প্রিয় বন্ধুদল যদি আপনার জীবনের ইতি টানার কারণ হয়ে দাঁড়ায়? তখন কী হবে?
আর এমন এক কাহিনী নিয়ে এই মালায়ালাম মুভিটি। আপনার যা দেখি অথবা যা শুনি, তার পেছনেও যে একটা সত্য লুকায়িত থাকতে পারে।কিছু মানুষের মুখের মিথ্যা বয়ান অনেক সময়, একটি কাহিনীর ধারাকে পুরোপুরিভাবে বদলে দিতে পারে। এমনকি, একজন হারিয়ে যাওয়া মানুষের জীবনের গল্পকেও, তার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য, তার জীবনযাপনের ধারাকেও কেউ চাইলে নিজের ইচ্ছেমতন পাল্টে অন্য গল্পতে রূপান্তর করতে পারে।কিছু মানুষের মৃত্যুর মধ্যদিয়ে কিছু সত্য তাদের সাথে কবরের মাটিতে দাফন হয়ে যায়।কিন্তু কিছু মানুষ থেকেই যায়, যারা সর্বদা সত্যকে বুকে লালিত করে বেঁচে থাকে। আর এটাই মূলত, মুভির মূল প্রতিপাদ্য।

3. 22 Female Kottayam
লোকে বলে, ভালবাসার সম্পর্কে বিশ্বাসটা নাকি খুব জরুরী একটা উপাদান। কিন্তু এই বিশ্বাসই যদি কারো জীবনের কাল হয়ে দাঁড়ায়, তখন? একটা মেয়ে যখন কোন ছেলেকে সত্যিকারের ভালবাসে, তখন স্বভাববশত, তার জীবনে সেই ছেলেটির মতন বিশ্বত তার কেউ থাকে। সে শুধু ছেলেটি ভালবাসেই না, বরং তাকে নিয়ে একটি সুখের সংসার বাঁধতে চায়। তাই তার শতভাগ বিশ্বাস তখন সেই ছেলেটির প্রতি ধীরে ধীরে জন্মাতে থাকে। আর সেই ছেলে যদি হয় পাকা অভিনেতা, তাহলে তো কথাই নেই।
এমন এক গল্প নিয়েই, এই মুভিটি নির্মিত হয়েছে। মুভিটি একজন অত্যন্ত সহজ সরল মেয়ের গল্প। য্ব নাকি ভালবাসেছিলো একজন প্লেবয়কে। ছেলেটির তাকে শুধু ধোঁকাই দেয়নি। তার সাথে এমন কিছু খারাপ কাজ করে, যার মেয়েটির কল্পনাতীত থাকে। তারপর মেয়েটি ছেলেটিকে যে শিক্ষাটা দিয়েছিলো, সেটিও ছেলেটির চিন্তাশক্তির বাইরে ছিলো। তা সেটি কী ছিলো, জানতে হলে মুভিটা দেখতে হবে।

আরো অনেক মুভি এমন আছে।অন্য আরেকদিন সেগুলো নিয়ে আলোচনা হবে।

এই পোস্টটিতে ২ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. south indian movie gulo easily pawa jai na… kindly valo print er download link dea jabe??

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন