House of the Disappeared: একটি মানুষখেকো বাড়ির গল্প
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

★ মুভি রিভিউ ★

আজ আমি আপনাদের সামনে আমার দেখা এই বছরের অন্যতম একটি কোরিয়ান মুভির রিভিউ নিয়ে এসেছি। কোরিয়ান মুভি হয়তো হলিউডের মুভির মতন খুব বেশি দেখা হয়না, তবে কোন মুভির প্রশংসা শুনলে সেটি দেখে নেবার চেষ্টা করি।
তাহলে, শুরু করা যাক।

—>>> House of the Disappeared <<<—

প্রথমে মুভির প্লট নিয়ে আলোচনা করা যাক। মুভির প্রথম দৃশ্য দেখানো হয়, একজন বেহুঁশ অবস্থা থেকে জেগে উঠা মা তার ছেলের নাম ধরে অবিরামভাবে ডেকে যাচ্ছেন। তারপর ছেলেকে খুঁজতে খুঁজতে সে যখন তাদের বাড়ির চিলেকোঠায় এসে পৌঁছায়, সেখানে নিজের স্বামীকে রক্তাক্ত অবস্থায় আবিষ্কার করেন। আর এরপর প্রায় সাথে সাথেই খুব আশ্চর্যজনক ভাবে তার ছেলে তার নিজের চোখের সামনে একটি দরজার ভিতর দিয়ে হারিয়ে যেতে দেখেন অতল গহবরে। অভাগিনী সদ্য বিধবা স্ত্রী ও ছেলেহারা পাগলপ্রায় মায়ের ভূমিকা পালনের আগেই তাকে স্বামী হত্যার দায়ে পুলিশ এসে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। মহিলা সেদিন কোনকিছুতেই কোন প্রতিক্রিয়া দেখাননি, মুখ ফুটে কোন প্রতিবাদ করেননি। কারণ ছেলের রহস্যজনক ভাবে উধাও হয়ে যাওয়া তার অন্তরকে প্রায় পাথরে পরিণত করে। তারপর শুরু তার অপেক্ষার প্রহর গোনা।জেল থেকে বেরিয়ে এসে নিজের সন্তানকে ফিরে পাবার আশায় দিন গুণতে শুরু করেন তিনি। আর এভাবেই মুভির গল্প আগাতে থাকে দারুণ রহস্যাবৃত ভৌতিক গল্পের আবরণে।

এবার মুভি নিয়ে আমার নিজের মতামত বলি। মুভি যখন প্রথম দেখতে বসি, আমার শতভাগ ধারণা ছিলো, মুভিটি পুরোপুরি নিটোল ভৌতিক গল্প। কিন্তু যতো সময় পার হচ্ছিলো, শুধু ভূত-প্রেতই নয়, মুভির কিছু চরিত্রের, কিছু জলজ্যান্ত মানুষের আচরণের প্রতিও সন্দেহ জাগা শুরু হওয়াতে মুভিতে ভিন্ন মাত্রার রোমাঞ্চের আনাগোনা অনুভব করতে থাকি। তারপর একদম শেষের দিকে মুভির কাহিনী যা দেখানো হলো, তাতে মুভির শুরুর দিকে গল্পের সাথে অনেক পার্থক্য খুঁজে পেলাম। মানে, আপনি প্রথমে যা ভেবে অথবা মুভির গল্প নিয়ে যা ধারণা করে মুভি দেখতে বসবেন মুভির সমাপ্তি ঠিক তেমনটি হবেনা। তাই বলে কথা দিতে পারছি, এতে আপনি নিরাশ হবেন না। বরং এমন করে মুভির গল্পের ঘুরে অন্যদিকে মোড় নেওয়াতে বেশ ভালোই লাগবে। মুভি দেখে আর একটা জিনিস আমি নিজে উপলব্ধি করলাম, "মা" মানে মা। সেটি দুনিয়ার যে দেশেরই মা ই হোক না কেন। হয়তো, অন্য কোন গ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব থাকলে সেখানের মায়েরাও এমনই হয়ে থাকে।
মুভির অভিনয়শিল্পী দের কথা যদি বলি, তাহলে মা চরিত্রে যিনি অভিনয় করেছেন, তিনি তো পুরা অস্থির ছিলেন। এছাড়া শিশু শিল্পী দু'জনকে আমার বেশ ভালো লেগেছে। পুরোহিত চরিত্রে যিনি অভিনয় করেছেন, তার সাবলীল অভিনয়ও মুভিতে অত্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা রেখেছে। দুঃখিত, আমি কোরিয়ান অভিনয়শিল্পীদের তেমন চিনি না।

কোরিয়ান মুভিগুলোতে আলাদা এক ধরণের মাদকতা থাকে, এই মুভিও এর ব্যতিক্রম ছিলো না। দর্শকদের টানার জন্য যা যা দরকার, সব উপাদানই ছিলো মুভিতে। আমি মুভিটা আমাদের এই সময়ের বিশিষ্ট বাংলা সাবমেকার Fuad Anas Ahmed এর বাংলা সাব দিয়ে দেখেছি। উনার সুগঠিত ও সাবলীলভাবে তৈরি বিসাব মুভিকে আরো উপভাগ্য করে তুলেছিলো।আপনারাও সাবসিনে এই বিসাব পাবেন।

তাহলে আর দেরী না করে, আজ রাতেই দেখে ফেলুন। আর মুভির দেখার পর গুগলে গিয়ে মুভির প্লটের ও সমাপ্তি নিয়ে বিস্তারিত রিভিউ পড়ে নিতে পারেন। ধন্যবাদ 😊।

Original Name: Hangul
Release Date: April 5, 2017
Genre: Horror, Thriller,Mystery
Running Time:100 minutes
Imdb Rating: 6.2/10

এই পোস্টটিতে ৭ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Hridi Kabir Nahrin Binte Faruque this friday night maybe?

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন