Ezra: সাউথ ইন্ডিয়ান মুভিপ্রেমীদের জন্য পৃথ্বীরাজ সুকারামানের এক নতুন্ধারার রোমহ্ররষক মুভি
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

“ইজরা” নামক এই বছরের প্রায় শুরুর দিকে মুক্তিপ্রাপ্ত মুভিটি দেখার জন্য আমার অস্থির মনের অপেক্ষার পালা যখন দিন দিন বেড়েই যাচ্ছিলো ঠিক তখনই মুভির ই-সাব সহ ডাউনলোড লিংক হাতে পেয়ে আমার মন অবশেষে পেলো।ইংলিশ মুভি হলে এতদিনে সাব ছাড়াই দেখে ফেলা যেতো, কিন্তু মালায়ালাম ভাষা যে এখনো অজ্ঞাত আমার কাছে। যাইহোক, প্রিয় নায়ক পৃথ্বীরাজের নতুন মুভি দেখবো আর রিভিউ লিখবো না তা কি হয়? তাই কাল রাতে দেখার পরেই আজ রিভিউ লিখে ফেললাম চটজলদি।
মুভি মুক্তির আগ থেকেই এটি পৃথ্বীরাজের অভিনীত কিছুটা ভিন্নধর্মী মুভি বলে জানতাম। কারণ মুভিটি হররধর্মী মুভি। তবে এটাও সত্যি কথা, শুধু ভূত- প্রেত- আত্মা নয়, এই মুভিতে রয়েছে চরম থ্রিলারের উত্তেজনা ও রহস্যের আনাগোনা। মুভির ২ ঘন্টা ১৬ মিনিটের প্রতিটি মিনিট আমার কাছে চমকপ্রদ লেগেছে।তবে হ্যাঁ, মুভির দুই- একটা ব্যাপার কিছুটা খটকাও লেগেছে আমার। সেইগুলা পরে বলছি। আগে মুভি নিয়ে অল্প কথা বলে নিই।

মুভির কাহিনী গড়ে উঠেছে একটি প্রাচীন বাক্স ও একটি দম্পতি জুটিকে ঘিরে। মুভির প্রথমদিকে দেখানো হয়, একজন ইহুদি ব্যক্তির মৃত্যু যিনি কোচির একমাত্র ও সর্বশেষ হুইদি ধর্মাবলম্বী বাসিন্দা ছিলেন। তার কাছে অনেক পুরাতন দুর্লভ ও দামি জিনিসপত্র ছিলো যার মাঝে সবথেকে মূল্যবান ছিলো একটি বাক্স। কি ছিলো সেই বাক্সে? এই বাক্স লুকিয়ে বেচে দিতে গিয়ে প্রথমদিকেই কাকতালীয় ভাবে মারা যায় একজন ব্যক্তি। তখন শুরু হয় মুভির আসল মোড়। অন্যদিকে সেই দম্পতি তাদের চিরচেনা শহর মুম্বাই ছেড়ে চাকরিসূত্রে কোচিতে এসে বসবাস করতে শুরু করে। যেহেতু নতুন বাড়ি, তাই স্ত্রী প্রিয়া স্বামী রঞ্জনের কাছে আবদার করে যে সে পুরো বাড়িকে প্রাচীন দুর্লভ জিনিসপত্র দিয়ে নতুন রূপে সাজাবে। স্বামী রঞ্জনেরও এই ব্যাপারে কোন আপত্তি থাকে না। এমনিতেই প্রিয়া মুম্বাইতে নিজের পরিবার,বন্ধুবান্ধব, আপন ভুবন ছেড়ে শুধু রঞ্জনের চাকরির জন্য তার হাত ধরে এমন এক নতুন জায়গায় চলে এসেছে যেখানে তারা কাউকেই চিনে না। আর রঞ্জনও অফিসের কাজে দিনের বেশিরভাগ সময়ও বাড়ির বাইরেই থাকে, তাই প্রিয়ার এই শখকে তার দিনের অধিকাংশ সময় কাটানোর এক ভালোদিক বিবেচনা করে দুজনেই বাড়িকে নতুন ঢং এ সাজানোর সিদ্ধান্ত নিলো।কিন্তু কে জানতো এই শখ ওদের জীবনে কি জটিলতা নিয়ে আগমন ঘটাবে? পুরাতন জিনিস সংগ্রহ করতে করতে একসময় প্রিয়ার একটি কাঠের বাক্স পছন্দ হয়ে যায় এবং সে তা তৎক্ষণাৎ কিনে বাড়ি নিয়ে আসে।আর প্রিয়ার কেনা এই বাক্সটি কোন বাক্স ধরতে পেরেছেন তো? জ্বী হ্যাঁ, এই বাক্সটি সেটাই যাতে একজন ইহুদি ব্যক্তির আত্মা বাক্সবন্দী ছিলো। আর এভাবেই প্রিয়া ও রঞ্জনের জীবনে একজন বহু প্রাচীন আত্মার আগমন ঘটে।

মুভির গল্প নিয়ে আর কিছু বলতে চাই না। কারণ এখনো অনেকে হয়তো দেখেননি।তবে কিছু কথা বলতে চাই। মুভির অনেককিছুই আমার বেশ ভালো লেগেছে। যেমন একজন ইহুদি আত্মার আত্মকাহিনী, আত্মাটির সবকিছু ধ্বংস করার অনন্য পরিকল্পনা কিংবা মুভির শেষ বিশ মিনিটে উদ্ভাবিত হওয়া নতুন চমক।তবে ওইযে আগেও বলেছি দুইটা ব্যাপারে আমি কিছুটা কনফিউজড। ১. ইজরা যদি পুরুষের আত্মা হয়, তাহলে প্রিয়া মেয়ে ভূত দেখতো কেন?
২. রঞ্জনের যেই রহস্য শেষের দিকে দেখানো হলো তা যদি হয়েই থাকে তাহলে সে কেন মারকাসকে সাহায্য করে যাচ্ছিলো। অনেক সুযোগ ছিলো মারকাসের ক্ষতি করার, তবুও কেন সবকিছুতে সহযোগিতা করলো?

আচ্ছা যাইহোক, পৃথ্বীরাজ বরাবরের মতনই সেরা ছিলো। আরো একবার ওঁর জাদুতে বশ হলাম। যারা পৃথ্বীরাজের ভক্ত তারা তো এমনিতেই দেখবেন জানি, এমনি সাউথ মুভি প্রেমীরাও দেখবেন আশা করি।ভালো লাগবে কথা দিতে পারি।আমি প্রায় হলিউডের সকল নামকরা হরর জনরার মুভি দেখেছি আর বলিউডেরও বেশ কয়েকটি এই রকমের মুভি দেখেছি। আমার কাছে এই সাউথ ইন্ডিয়ান মুভিকে কোনক্ষেত্রেই কম মনে হয়নি। আর হ্যাঁ, অবশ্যই গভীররাতে মুভিটি দেখবেন, তাহলে এই ধরণের মুভির উত্তেজনা কয়েকগুণ এমনিতেই বেড়ে যায়। ধন্যবাদ 😊।
ডাউনলোড লিংক:
https://www.tamilmv.mx/index.php… ( ই- সাব সহ)

Movie: Ezra
Release Date: 10 February, 2017
Director & Writer: Jay K.
Starring:Prithviraj Sukamaran, Priya Anand, Tovino Thomas
Genre: Horror, Mystery, Thriller
Running Time:146 minutes
Imdb Rating:7.7/10


এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Ahmed Maahin says:

    malayalam Guppy movie ta dekhte paren Or charlie

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন