IT-You’ll float too


You’ll float too. You’ll float too. You’ll float too. You’ll float too!

We all float down here.

ডেরি একটি শহরের নাম।এক বৃস্টির দিনে কাগজের নৌকা নিয়ে খেলছিল ছোট ছেলে জরজি।পানির তোড়ে হাত ফস্কে নৌকা টি পড়ে যায় স্টর্মড্রেনে।সেটা খুঁজতে গিয়ে সে উকি দেয় সুয়্যারে উকি দেয় সে,আর তখনি দেখা মেলে অদ্ভুত এক ক্লাউন এর সাথে, পেনিওয়াইস দ্যা ড্যান্সিং ক্লাউন যার নাম।কি হয় জরজির??

জরজি ছিল বিল এর ছোট ভাই।

বিল,বেন, মারশ সবাই মিলে খুজতে থাকে জরজি মিসিং হবার রহস্য।ডেরি শহরের পূর্ব ইতিহাস অনুযায়ী ২৭ বছর পর পর বাচ্চারা উধাও হতে থাকে। সেই রহস্য আর কিছু স্কুল পড়ুয়া ছেলেমেয়েদের কাহীনি নিয়েই এই মুভি।

এটা মুলত ১৯৮৮ সালে প্রকাশিত স্টিফেন কিং এর IT উপন্যাস অবলম্বন এই তৈরি।

অনেকসময় ই অধিক আগ্রহ নিয়ে বসে থাকা মুভি গুলো হতাশ করে।আবার মিক্স রিভিউ আতংক তো আছেই।গতকাল দেখলাম, মনের মধ্যে একটা ভাললাগা কাজ করলো।শেষ করে নিজে নিজেই বললাম ইট ইজ কোয়াইট এক্সট্রাঅর্ডিনারি।

কাহীনি টা এত দারুন ভাবে উপস্থাপন করছে।এর নিজস্বতা অনুভব করা যাচ্ছিল।একজন মানুষ এর নিজের ভয় এর মুখোমুখি হওয়াই সবচাইতে সঠিক সিদ্ধান্ত।

তবে আপনি যদি পুরা হরর ফিল নিয়ে দেখেন তাহলে ভাল লাগবে না।

পেনিওয়াইস এর আচমকা আগমন এর সিন গুলা চোখে ভাসতেছে এখনো।

অভিনয় সবার ভাল ছিল তবে জেডেন লিব্রেহের অভিনয় মন ছুয়ে গেছে।এছাড়া বাকিরাও ভাল ছিল।

সিনেমাটোগ্রাফি আর ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক কাস্ট পারফরমেন্স অনবদ্য ডিরেকশন মিলিয়ে দুর্দান্ত একটা মুভি 🙂

স্ট্রেঞ্জার থিংস টিভি সিরিজ টাঅ ইট থেকে অনুপ্রানিত

(Visited 569 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Sumon Hossen says:

    আশফিকা নওশিন কেমন লাগছিলো?

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন