শুভ জন্মদিন অক্ষয় কুমার
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

অক্ষয় কুমার,বলিউডে জ্বলতে থাকা এক উজ্জল নক্ষত্র।নব্বই দশক থেকে শুরু তার পথচলা। তার মূল নাম রাজিব হরি ওম ভাটিয়া।প্রথম দিকে মূলত একশন হিরো হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তারপর কমেডি চরিত্রে অভিনয় করা শুরু করে মুলত বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করেন । ২০০২ সালে তিনি শ্রেষ্ঠ খল-নায়ক পুরস্কার পান।

অক্ষয় কুমারের জন্ম পাঞ্জাবের অমৃতশরে৷ বাবা সামরিক বাহিনীতে ছিলেন। তার মায়ের নাম আরুনা ভাটিয়া। কুমার নাচিয়ে হিসেবে বেশি পরিচিত ছিলেন। মুম্বাইয়ে স্থানান্তর হওয়ার পূর্বে তিনি দিল্লির চাঁদনি চকে থাকতেন। মুম্বাইয়ে তিনি কলিওারাতে থাকতেন, সেখানকার অধিকাংশ মানুষ ছিলো পাঞ্জাবী। তিনি মুম্বাইয়ের ডন বসকো স্কুল এ পড়েন এবং পরে তিনি মুম্বাইয়ের গুরু নানক খালসা কলেজএ পড়াশোনা করেন। কুমারের বোনের নাম আল্কা ভাটিইয়া।

২০০০ সালের জানুয়ারির ১৭ তারিখ তিনি টুইংকেল খান্নার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।তাদের দুই সন্তান

তায়কোয়ান্দোতে ব্লাক বেল্ট পাওয়ার পর তিনি মার্শাল আর্ট শিখার জন্য ব্যাংকক এ যান। পরে থাইল্যান্ড এ তিনি মুই থাই শিখার পর প্রধান ওয়েটার এর কাজ করেন, তিনি কিছুদিন বাংলাদেশেও কাজ করেছিলেন । যখন তিনি মুম্বাই এ ফিরে আসেন, তখন তিনি মার্শাল আর্ট শেখানো শুরু করেন। তার এক ছাত্র, ফটোগ্রাফার, কুমারকে মডেলিং করার জন্য পরামর্শ দেয়, যা তার চলচ্চিত্রে অভিষেকের প্রথম সোপানটি তৈরি করে দেয়।

তবে ২০১৩ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করলেও ,নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যান স্পেশাল ২৬ মুভিটি দিয়ে,তারপর যেন এক অন্য অক্ষয় কে দেখতে শুরু করলো সবাই,একে একে হলিডে ,বেবি,এয়ার লিফট ,গাব্বার,রুস্তম,জলি এল এল বির মত হিট মুভি উপহার দিয়েছেন।এর মধ্যে রুস্তম মুভিটির রুস্তম পাভরি চরিত্রের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এর মধ্য দিয়ে নিজের চুড়ান্ত সফলতায় পৌঁছেছেন

ক্যারিয়ার এর অনেক উত্থা্ন পতনের মাঝে পথ অতিক্রম করে আজ হয়ে উঠেছেন সবার প্রিয় একজন অভিনেতা।আজ মানুষ টার জন্ম দিন।
অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালবাসা রইল প্রিয় অভিনেতার জন্য ।আশা করি সামনে আরো ভাল ভাল মুভি উপহার দিবেন আমাদের ।

এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন