”কিরিক পার্টি”(২০১৬)- ক্যাম্পাস জীবনের স্মৃতিচারণের অভূতপূর্ব সিনেমা
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

                                               ═════►মুভি রিভিউ: Kirik Party(2016)═════►

দোস্ত এই দোস্ত দেখছিস ম্যাডাম টা কত্ত জোস!!!! আরে বেডা বলিস না মনের হচ্ছে যেন স্বর্গের পরী। উফফ আমি তো পুরা নাই হয়ে গেলাম। আরে আমার টার দিকে তোরা কেন নজর দিচ্ছিস। ও শুধু আমার। ম্যাডাম আবার তোর কবে হল…!!!! ইসস, শখ কত; আমি আগে দেখছি তাই চেষ্টা ও আগে আমি করব। বললেই হল, তোর সাথে যায় উনার। উনি কোথায় আর তুই কোথায়?? আরে বাদ দেয় দোস্ত, দেখ না কি সুন্দর করে হাসে। এত জোস তো আমাদের ক্লাসমেট ও নাই। দোস্ত আমাদের সবগুলো ক্লাস কেন উনি নেয় না। আমার বয়স টা মনে হয় ম্যাডামের বয়সের কাছাকাছি ই হবে। আসছে আমার বয়স বিশারদ!!! হাসি থামা; দোস্ত তুই শুধু উনার হাসি দেখছোস!!!! উনার তো সবকিছুই জোস। ফালতু কথা বলবি না। ওকে সম্মানের নজরে দেখ; তোদের ভাবী হয়। আরে দোস্ত দেখ না, ঐ শাকিইল্লা ম্যাডামের পাশে হাঁটছে উনার বইগুলো হাতে নিয়ে। কি ভাগ্য শালার।

কথাগুলো বলতেই সেই কলেজ বা বিশ্ব-বিদ্যালয় জীবনের তরুণী ম্যাডামের প্রতি প্রবল আকর্ষণের কথা মনে পড়ছে সকলের। সেই জীবনে কোন তরুণী সুন্দরী ম্যাডাম ক্লাসে আসলেই যেন আমাদের ছাত্রদের মনে বষন্ত জেগে উঠত। ক্লাসের সবচেয়ে অমনোযোগী ছাত্রটা ও যেন ঐ তরুণী ম্যাডামের ক্লাসের হয়ে উঠত মেধাবী। তার মুখবুলি থেকে আগত শব্দ যেন ছাত্রদের মনে অমৃতের মত লাগত। কোন মেয়ের প্রতি ভালোলাগা অনেকের সেই প্রণয়ী তরুণী ম্যাডামের মাধ্যমেই শুরু হত।

15356736_339195246457787_2301888348977496527_n 15873102_1375418319156836_2407054133485649125_n

ক্যাম্পাস জীবনে তরুণী ম্যাডামের অধ্যায় ছাড়াও রয়েছে অনেক সূক্ষ সূক্ষ মজার প্রাণবন্ত স্মৃতি। আমরা অনেকেই ক্যাম্পাস জীবনে আমাদের শিক্ষক দের নানান নামে ডাকতাম। এগুলো তাদের কে ব্যঙ্গ করে নয়; বরং আমাদের মধ্যে লালিত বাঁধরামোরই ফল। ক্লাস ফাঁকি দিয়ে প্রাণের বন্ধুদের সাথে ঘুরে বেড়াতাম আশ-পাশের বর্ণিল শহর বা গ্রামের পথঘাট। কখনো বা মাঠে নেমে পড়তাম দল বেঁধে খেলার জন্য। ক্লাসের উপস্থিতি নিয়েও চিন্তা থাকত না; কেননা ক্লাসের অন্যান্য বন্ধুরা আছে না প্রক্সি দেওয়ার জন্য। প্রথম হাতে বিড়ি ধরানোর হাতেখড়ি এই ক্যাম্পাস জীবনেই হয়। আবার কখনো বন্ধুর বিপদে ঝাঁপিয়ে পড়ে অন্যায়কারী দের ইচ্ছামত মারধর করতেও বুক কাঁপত না। কলেজের নেতা হওয়ার প্রচেষ্টায় থাকত আমাদের কয়েকজনের। ক্যাম্পাসের প্রত্যেক কাজেই তাদের উপস্থিতি যেন প্রত্যেক জায়গা থাকা পিঁপড়ের মত ই থাকত। ক্যাম্পাসের বন্ধু-বান্ধবীদের নিয়ে দুষ্টুমি করে গান গাওয়া। বিশেষ করে দেশী গানে আসর টা বেশি জমে উঠত। কোন বন্ধুর কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন মেয়েকে পচ্ছন্দ হলে; তাকে সব ব্যাপারে সাহায্য করাই যেন থাকে আমাদের প্রত্যেক বন্ধুর গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। সু-সময়ে যেভাবে আমরা ক্যাম্পাসের বন্ধুরা মিলিত থাকি; অন্যদিকে আমাদের বিপদেও সবার আগে এগিয়ে আসে ক্যাম্পাস জীবনের বন্ধুরা। ক্যাম্পাস জীবনের এতসব স্মৃতি তাদের কাছে আরো বর্ণিল আভায় ভরে উঠে; যারা হোস্টেলে থেকে পড়ালিখা করেছে ক্যাম্পাসের বন্ধুদের সাথে। তাদের কাছে এইসব স্মৃতি হয়ে ভবিষ্যত জীবনের সবচেয়ে সুখকর স্মৃতি।

15337608_339195779791067_388164186707013614_n 15698332_1371266012905400_6644094874454487050_n 16299454_1237037236332012_6078733223517621154_n

ক্যাম্পাস জীবনের সেই সময়গুলোর বর্ণিল স্মৃতিগুলোতে আবারো হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করল কান্নাডা ইন্ড্রাস্টির Rishab Shetty এর পরিচালনায় Kirik Party সিনেমাটির মাধ্যমে।

মূলত ক্যাম্পাস ভিত্তিক সিনেমাগুলো আমাকে অসম্ভব আকৃষ্ট করে। তন্মধ্যে যখন নির্মাণ কাজ ও অসাধারণ হয়; তখন ঐ সিনেমার জীবন ও আমাদের প্রত্যেকের কাছে বাস্তব হয়ে উঠে।

কর্ণা গল্পের মূল অভিনেতা। যার ক্যাম্পাস জীবনের প্রতিকী আমার-আপনার জীবনের জয়গান গাইছিল সিনেমার প্রতি পরতে-পরতে। ক্যাম্পাস জীবন কে ঘিরে তার অতিবাহিত জীবন যেন বাস্তব জীবনের গল্প হয়ে দাঁড়ায়। গল্পের কোন মোড়ে আপনার মনে বিন্দুমাত্র সন্দেহের সৃষ্টি করবে এই ভেবে যে, আপনি আসলেই সিনেমা দেখছেন যেথায় রুপক হিসেবে কারো জীবনের প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করা হয়েছে। বরং আপনার মনে উজ্জ্বল এক হাসি ফুটে উঠবে; যাকিনা হয়ত আপনার বা আপনার আশ-পাশের কোন চরিত্রের বাস্তব প্রতিকীর বহিঃপ্রকাশ ছিল। তখন সিনেমার জীবন ও বাস্তব জীবন বলেই সম্বোধন করে উঠবেন। কেননা সিনেমায় মেকি কোন জিনিস লক্ষ্য পড়বে না আপনার দৃষ্টিতে।

কান্নাডা ইন্ড্রস্টির এই সিনেমাটি তাদের অনেক সমালোচক এবং বড় মাপের মুভি বোদ্ধাদের মতে সর্বকালের সেরা কিছু সিনেমার মধ্যে প্রথম সারির দিকে থাকবে। ব্যক্তিগত ভাবে আমার ও তাই মনে হল।

পরিচালকের কাজ একেবারে স্বচ্ছ। আমার পক্ষ থেকে বলতে পারি উনি উনার কাজে শতভাগ সফলতা দেখিয়েছেন।

13015102_1012713992097672_5682708533726218133_n 13510985_1188588841173119_8623671254610096741_n

সিনেমার গানগুলো অসম্ভব ভাল লাগত। সাধারণ আমার কান্নাডা সিনেমার গান ভাল লাগে না। তবে এই সিনেমাটির গানগুলো অসম্ভব পরিমাণে ভাল লাগল। ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের ব্যবহার চমকপ্রদ ছিল।

অভিনয়শিল্পী দের অভিনয় সম্পর্কে বলতে গেলে প্রধান চরিত্রে অভিনীত রাকশিত শেঠী ছাড়াও প্রায় প্রত্যেকে ভাল করেছে। তবে রাশমিকা মান্দানার প্রেমে পড়ে গেছি। অনেক বেশি কিউট মেয়েটা।

সিনেমায় নেগেটিভ দিক চোখের পড়েনি। মাস্টারপিস মানের সিনেমা বলে যদি কান্নাডা সিনেমায় কিছু সিনেমা কে আমি কখনো অভিহিত করে থাকে; তন্মধ্যে শীর্ষের দিকে থাকবে “কিরিক পার্টি” সিনেমাটি।

14591808_1146433992059004_3521277064443730121_n

ফ্রেশ মাইন্ডে ক্যাম্পাস জীবনের স্মৃতিগুলো আবারো তাজা করতে বসে পড়ুন মাস্টারপিস মানের সিনেমাটি দেখতে।

••••••••►পার্সোনাল রেটিং: ৮.৫/১০

14724561_1142699169099153_5944142604221745422_n

╚═════►টরেন্ট ডাউনলোড লিংক(ইংরেজি সাবটাইটেল সহ)═════╝

Link:- http://tamilrockersডটlv/index.php/topic/54195-kirik-party-2016-kannada-hdrip-480p-esubs-sri/

15965215_1223009634401439_6650395244378789485_n

<<<<<<প্লিজ হিন্দি ডাবিং এর কথা উল্লেখ করিয়েন না। কেননা বাস্তবধর্মী সাউথ মুভির হিন্দি ডাবিং হওয়ার সম্ভবনা নেই। যদি অদূর ভবিষ্যতে ভুলে কখনো হয়; তাহলে হতে পারে।>>>>>>>

17795960_1478499855515348_6042817378007486936_n

Kirik Party (2016)
Kirik Party poster Rating: 9.1/10 (1,873 votes)
Director: Rishab Shetty
Writer: Abhijit Mahesh (dialogue), Dhananjay Ranjan (dialogue), Rakshit Shetty (story)
Stars: Rakshit Shetty, Rashmika Mandanna, Samyuktha Hegde, Achyuth Kumar
Runtime: 159 min
Rated: NOT RATED
Genre: Comedy, Drama
Released: 01 Feb 2017
Plot: Kirik Party is the story of a gang of mischievous students, lead by the protagonist Karna (Rakshit Shetty), who has just joined an engineering college.

এই পোস্টটিতে ৩ টি মন্তব্য করা হয়েছে

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন