গল্পটা অসাধারণ না হলেও এর অসাধারণ উপস্থাপন আপনাকে মুগ্ধ করবেই!
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

“ক্ষত” নামক বাংলা মুভিটি নিয়ে তেমন কেন আলোচনা হল না ব্যাপারটা মাথায় ঢুকল না,গ্রুপেও তেমন কোন আলোচনা নাই,প্রাক্তনের আড়ালে ঢাকা পড়ে গেছিল মনে হয় 😖😖
যাই হোক আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে তাই মুভিটা নিয়ে কিছু লেখার ইচ্ছা হল 😊
মুভিটির কাহিনী আবর্তিত হয়েছে একজন জনপ্রিয় ঔপন্যাসিকের জীবন কে কেন্দ্র করে।এই চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিত।তার স্ত্রী রাইমা সেন এবং এক কন্যা সন্তান কে নিয়ে তার সুখের সংসার।তার প্রকাশিত মোটামুটি সব উপন্যাসই হিট।এই নিয়ে তার স্ত্রীর বন্ধু মহলেও সে সমানভাবে প্রশংসিত।এর মধ্যে এক বন্ধুর স্ত্রী তো কোন বইই মিস করে না,মোটামুটি সব বইই মুখস্ত ডায়লগ সহ।বুঝাই যাচ্ছে লেখককে নিয়ে তার একটা ফ্যান্টাসি আছে,যা সকল ভক্তরেই থাকে।ইনি একজন সাধারণ বাংগালি স্ত্রী হিসেবেই জীবন যাপন করেন।আর এই সাধারণ জীবনটাই কখন যেন হয়ে উঠে অসাধারণ!! এইটাকি আসলেই অসাধারণ ছিল, নাকি যন্ত্রনার নাকি অন্যরকম এক রোমান্সের??জানতে হলে দেখতে হবে মুভিটি।15940747_10210984982001279_3252126231275681952_n

মুভিটির মেকিং দেখে আমি পুরাপুরি মুগ্ধ!!এই রকম মেকিং এর ভারতীয় বাংলা মুভির সংখ্যা খুবই কম।পুরা মুভিটার মধ্যে একটা শৈল্পিক ছাপ সুস্পষ্ট। এই রকম সুনির্মিত মুভি চোখের জন্য খুবই আরামদায়ক।কয়েকটি জায়গায় এক সিন থেকে আরেক সিনে যাওয়ার মাধ্যম দেখে আমি রীতিমতো ধাক্কা খাইছি!!স্টোরি টেলিং যথেষ্ট আকর্ষণীয়।আপনি এক মুহুর্তের জন্য বোরিং হবে না।যেহেতু এইটি প্রচলিত ফর্মুলার মুভি না,অফট্র‍্যাকের মুভি তাই আপনাকে সেই প্রস্তুতি নিয়েই দেখতে হবে।আপনাকে বোরিং হতে দিবে না মুভিটির অসাধারণ কিছু ডায়লগ,কিছু কনভারসেশন তো ছিল চরম উত্তেজনাপূর্ণ!গল্পের মধ্যে তেমন কোন চমক না থাকলেও স্টোরি টেলিং,ডিরেকশন,ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর সবশেষে অভিনয়।এই অভিনয়ই ছিল মুভির প্রাণ।সবাই যেন পাল্লা দিয়ে অভিনয় করছে।
স্পেশালি পাওলি দাম,তাকে আমি নতুন করে আবিস্কার করলাম এই মুভিতে।বেশির ভাগ মুভিতেই আবেদনময়ী হিসেবে হাজির হওয়া ইনি এই মুভিতে নিপাট অভিনেত্রী, এখানেও তার আবেদনময়ী বিচরণ ছিল,কিন্তু অভিনয়টা ছিল সেই সাথে সমান তালে।পাওলি দাম যে একজন গুণী অভিনেত্রি তার প্রমাণ তিনি রেখেছেন এই মুভিতে।
ঔপান্যাসিকের চরিত্রে প্রসেনজিত তো একশো তে একশো,কি তার অভিনয় বাপ রে বাপ।পুরাই ফাটায় দিছে।আর গেট আপের কথা কি বলবরে ভাই,এই রকম স্টাইলিশ গেট আপ আমি তার আর কোন মুভিতে দেখছি কিনা মনে পড়ছে না!!ডায়লগ থ্রো গুলা তো এখনো মনে হচ্ছে চোখে লেগে আছে😍😍
16114225_10210984983001304_8888668785474618920_n

এই লোকটাকে আমি আগে সহ্যই করতে পারতাম না,আর এখন আমি তার রীতিমত ভক্ত হয়ে গেছি!!এই বয়সে এসেও তিনি যে প্রধাণ চরিত্রে অভিনয় করে যাচ্ছেন তা কিন্তু তার অভিনয় প্রতিভার জোরেই।এখনও তার দেহের গড়ন ছিমছাম,যুগের সাথে পালটে ফেলেছেন তার স্টাইল।আর তার মুভি বাছাই এইক্ষেত্রে গুরুত্তপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে অটোগ্রাফ থেকে যার শুরু,যেখানে তিনি তার অভিনয় প্রতিভার ঝলক দেখাতে পারছেন পরিপূর্ণ ভাবে।আর এইসবই তাকে নিয়ে গেছে এক অন্য উচ্চতায়।
বাকি সবার অভিনয় ভালো হইছে,রাইমা সেন তো বরাবরের মতই ভালো।
সবশেষে একটাই কথা গল্পটা অসাধারণ না হলেও এর অসাধারণ উপস্থাপন আপনাকে মুগ্ধ করবেই,মনোযোগী দর্শক হলে মুভির শেষে কি ঘটতে যাচ্ছে তাও ধরে ফেলতে পারেন,কিন্তু তাতেও আপনি হতাশ হবেন না,কারণ ততক্ষণে মুভিটি আপনার হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে।

এই পোস্টটিতে ২৩ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Abdul Mamun says:

    Yes… its amazing movie. Lighting,golpo 2ta valo lagse

  2. একা দেখলে আর পুরোটা গল্প বুঝতে পারলে তবেই অসাধারণ, আর যদি বাপ ভাই নিয়া একসাথে দেখতে বসেন তাহলে কি হবে তা আর না বলি। (মন্তব্যের দ্বিতীয়াংশ বর্তমানে কলকাতার অনেক আর্ট মুভির ক্ষেত্রেই বলা চলে)।

  3. Atif Aslam says:

    This movie is Far better than #Prakton
    Prakton its like serial…

  4. ভোম্বা দা কে এরকম একটা চরিত্রে পাবো আশা করিনি।
    তবে সিনেমার কাহিনী টা চরম।

  5. as Kolkatan art filmz r too gud so khwato isn’t different.itz also gud specially #paoli_dam 👌👌

    • Sahibul Alam says:

      এইটা আবার বেশি বেশি বলে ফেললেন!!তাইলে আপনি রীডার,মেলেনা,উল্ফ অফ ওয়াল স্ট্রিট,হ্যান্ডমেইডেন রে কি বলবেন??এক্সপোজার ছিল বাট নট লাইক পর্ন!!

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন