রনবিরের তামাশা এ বছরেই, পেছালো জজ্ঞা জাসুস

অদল বদল হলো রনবির কাপুরের দুটো ছবির মুক্তির সময়

— রমিজ (০৬-০৫-১৫)

এ প্রজন্মের সবচেয়ে জনপ্রিয় বলিউড অভিনেতাদের একজন রনবির কাপুরের ক্যারিয়ার যেন ঠিক আগের মত উর্ধমুখি নেই। এইতো মাত্র বছর দুয়েক আগে তার অভিনীত ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি যখন বক্স অফিসে অভাবনীয় সাফল্য পেলো সবাই তখন ধরেই নিলো যে খানদেরকে টেক্কা দিতে বলিউডে নতুন এক সুপারস্টার এসে গেছে। এর আগেও তার একের পর এক ছবি হীট, সুপারহীট ব্যাবসা করেছে, নিয়ে এসেছে একের পর এক পুরুস্কার, জয় করেছে দর্শক, সমালোচকদের হৃদয়। কিন্তু ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানির পর একই বছরে মুক্তিপ্রাপ্ত বেশরমের ভয়াবহ ভরাডুবি রনবিরের বিদ্যুৎ গতিতে ছুটে চলা ক্যারিয়ারে বড় রকম ধাক্কা দিয়ে গেছে। এরপর একের পর এক বড় ছবি হাতে নিলেও কোন ছবিই এখন পর্যন্ত মুক্তি পায়নি। এ বছরের শুরুতে বন্ধুর ছবি রয়-এ অতিথি চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে ভক্তদের একরাশ হতাশায় ডুবিয়ে গেছে। অনুরাগ কাশ্যপের বড় বাজেটের ছবি বম্বে ভেলভেট নিয়ে ভক্তরা যতটা উচ্ছ্বসিত ছিলো, ছবির ট্রেলার দেখে সেই উচ্ছাসাও ঝিমিয়ে গেছে। বম্বে ভেলভেট আগামী সপ্তাহে (১৫ মে) মুক্তি পেতে যাচ্ছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত ছবিটি দর্শকদের মধ্যে ততোটা আগ্রহ তৈরী করতে পারেনি।

ranbir kapoor in tamasha

রনবির কাপুর

 

এমনহাল যদি হয় রনবিরের মত জনপ্রিয় এবং প্রতিভাবান অভিনেতার তখনতো তাকে একটু নড়ে চড়ে বসতে হয় বৈকি। রনবির তাই এবার ক্যারিয়ারের ব্যাপারে হঠাৎই সিরিয়াস হয়ে উঠেছে। বম্বে ভেলভেটের পর তার পরের ছবি যেন খুব বড় রকম বক্স অফিস সাফল্য পায় তাই রনবির তার ছবির নির্মাতাদের সাথে আলাপ আলোচনা করেই ছবির মুক্তির তারিখে নিয়ে এসেছে পরিবর্তন। বরফীর পর অনুরাগ বসুর পরের ছবি জজ্ঞা জাসুসই হতে যাচ্ছিলো বম্বে ভেলভেটের পর রনবিরের পরের ছবি। অন্যদিকে ভালো মুক্তির তারিখের অভাবে রনবির-দিপিকা অভিনীত ইমতিয়াজ আলীর তামাশার এ বছরে মুক্তি প্রায় অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিলো। এমতাবস্থায় বুদ্ধিমান রনবির তামাশাকে প্রাধান্য দিলো এবং এ বছরই তামাশার মুক্তি নিশ্চিত করলো। এমনিতেই যাব উই মেট, রকস্টার এবং হাইওয়ের পর ইমতিয়াজ আলী  দর্শকদের অন্যতম পছন্দের নির্মাতা, তারউপর আবার ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানির পর দিপিকার সাথে রনবিরের আরেকটি বানিজ্যিক রোমান্টিক ছবি। স্বভাবতই জজ্ঞা জাসুসের চেয়ে তামাশা কম ঝুঁকিপুর্ন।

যাইহোক, তো শেষ পর্যন্ত তামাশার নির্মাতা তাদের ছবি এ বছরের ২৭ নভেম্বর মুক্তি দিতে যাচ্ছে। অন্যদিকে রনবির ও তার বর্তমান গার্লফ্রেন্ড ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত জজ্ঞা জাসুস আসবে আগামী বছর জুনের প্রথম সপ্তাহে। রিয়েল লাইফ কাপলদের ছবি দর্শক দেখে না বলে বলিউডে যে ধারনা প্রচলিত আছে রনবিরের এহেন সিদ্ধান্তের পিছনে এটিও একটি বড় কারন হতে পারে। অন্যদিকে এক্স কাপলদের ছবির প্রতি দর্শক আগ্রহ সব সময়ই যে একটু বেশী থাকে, ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি তো তার বড় প্রমান। তাই নয় কি; মিস্টার কাপুর 😛

 

যাইহোক, চালাক রনবির যে খুব বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্তটিই নিয়েছে তাতে কোন সন্দেহ নেই। রনবির ভক্তরাও নিশ্চয়ই তামাশা দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলো। মজার ব্যাপার হলো রনবিরের আরো একটি ছবি, করন জোহরের ইয়ে দিল হ্যায় মুস্কিল ও মুক্তির কথা আছে আগামী বছর জুনে। জজ্ঞা জাসুসের মুক্তির তারিখ একই সময় নিশ্চিত হওয়ায় রনবির, ঐষ্বরিয়া, আনুশকা অভিনীত  ইয়ে দিল হ্যায় মুস্কিলের জন্য দর্শকদের অপেক্ষা করতে হবে আরো কয়েক মাস।

 

ভালো ফলাফলের জন্য একটু না হয়  অপেক্ষা করলো রনবির এবং তার ভক্তরা। সবুরকা ফল হামেশা হি মিঠা হোতা হ্যায় 😀

(Visited 78 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন