Rio

Director: Carlos Saldanha

Actor/Actress: Jesse Eisenberg, Anna Heathaway

Genre: Animation/Adventure/Comedy

Released: 8 April 2011 (UK)

 

ছোট্ট নীল কাকাতুয়া পাখি ব্লু(Jesse Eisenberg)। নিবাস ব্রাজিলের ছোট শহর রিও ডি জেনিরোর মনোরম এক অরণ্যে। সকালে ঘুম ভাঙে অরণ্যে সকল পাখিদের সাম্বা গান আর নৃত্যের ছন্দে। সুন্দর একটি জীবন যাচ্ছিল ব্লুর যতক্ষণ পর্যন্ত না কালো একটি থাবা তার জীবন বদলে দেয়। স্মাগলারদের কবলে পড়ে দুর্লভ প্রজাতির কাকাতুয়াটি। বিক্রির জন্য বাক্সবন্দী করে নিয়ে যাওয়া হয় আমেরিকার উদ্দেশ্যে। কিন্তু দুর্ঘটনাবশত একটি বাক্স পড়ে যায় ট্রাক থেকে মিনেসোটা শহরে। আর সেই বাক্সেই ছিল ভীত ছোট্ট ব্লু। কিন্তু ভয়ের কোন কারণ নেই। অচেনা অজানা কোথাও কখনও কখনও খুঁজে পাওয়া যায় সবচেয়ে ভালো বন্ধু। আর তেমনটি ঘটলো ব্লুর জীবনেও। তাকে খুঁজে পেল ছোট্ট মেয়ে লিন্ডা। বাড়িতে নিয়ে এসে ভালবাসায় নিজের সাথেই বড় করে তুললো ব্লুকে।

মানুষের ভালবাসা আর যঅত্ন তো ব্লু পেল কিন্তু শিখতে পারলোনা অরণ্যের সেই উড়ে চলা চাঞ্চল্যতা। অভ্যস্ত হলো শুধু লিন্ডার সাথে জীবন যাপনে আর অর্জন করলো প্রচন্ড বুদ্ধিমত্তার। সব্কিছু স্বাভাবিকভাবেই চলছিল যতক্ষণ পর্যন্ত না লিন্ডার সাক্ষাত হলো এক পাখি বিশেষজ্ঞের সাথে। ব্রাজিলের লিওতে বসবাসরত পাখি বিশেষজ্ঞ টুলিও। সে লিন্ডাকে জানালো দুর্লভ প্রজাতির নীল রঙের এই কাকাতুয়া তার প্রজাতির সর্বশেষ জীবিত। টুলিওর কাছে রয়েছে এই প্রজাতির নারী আরেক কাকাতুয়া। যাদের মিলনে  সম্ভব এই দুর্লভ প্রজাতিকে পৃথিবীতে বাঁচিয়ে রাখা। আর সে কারণে লিন্ডাকে ব্লুকে নিয়ে যেতে হবে রিওতে। লিন্ডা টুলিওর কথামত ব্লুকে নিয়ে পাড়ি জমালো ব্রাজিলের রিওতে। টুলিওর কথামত ব্লুকে সাক্ষাত করিয়ে দেয়া হলো নারী কাকাতুয়া জুয়েলের (Anna Heathaway) সাথে। তাদেরকে একত্রে রাখা হলো কৃত্রিম উপায়ে তৈরী একটি বনে। ব্লু আর জুয়েলকে রেখে যখন লিন্ডা আর টুলিও তাদের ডিনারে গেল ঠিক তখনি ঘটল সেই অঘটনটি।

ব্লুকে চির তরে হারালো ছোট্ট থেকে বড় করে তোলা লিন্ডা। আর সাথে করে জুয়েলও হারিয়ে গেল। শুরু হলো লিন্ডার ব্লুকে খুঁজে ফেরা। লিন্ডাকে সাহায্য করতে তার সাথেই রইলো টুলিও।

লিন্ডা কী খুঁজে পাবে ব্লুকে? ব্লুর মত দুর্লভ প্রজাতির কাকাতুয়া কী রক্ষা পাবে পৃথিবী থেকে বিলুপ্তির হাত থেকে? জানতে হলে দেখতে হবে মজার এই এ্যানিমেশন মুভি ‘রিও’।

 

এ্যানিমেশনটিতে মনোরম শহর রিও ডি জেনিরোকে সুন্দরভাবে দেখানো হয়েছে। পশু-পাখিদের এক্সপ্রেশনগুলো সুন্দর করে ফুটানো হয়েছে। আর ডায়ালগগুলোও মজার। রয়েছে ব্রাজিলিয়ান ট্র‍্যাডিশনাল সাম্বা নৃত্য আর গান। পশু-পাখিদের মজার সব দারুণ নাচ আর গান আমার যেমন ভালো লেগেছে আশা করি সবার তেমন ভালো লাগবে বিশেষ করে যারা এ্যানিমেশন মুভিপ্রেমী। এচাড়াও রয়েছে কাকাতুয়া দুটির প্রেমে পড়ার রোমান্টিক দৃশ্য আর ডায়ালগ। যা ছবিটিতে এনে দিয়েছে ভিন্নমাত্রা।

তবে আর দেরি কেন? দেখে ফেলুন মুভি ‘রিও’। নিচের লিংকটি মুভির টাইটেল সঙীত। দেখে নিতে পারেন।

watch?v=LSoXrR2Xec4

(Visited 72 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. মেগামাইন্ড says:

    ভালই লিখেছেন । খুব তারাতারি দেখব

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন