The Painted Veil
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

awp_2_800

পরিচালনা: John Curran

উপন্যাস: W. Somerset Maugham

স্ক্রিনপ্লে: Ron Nyswaner

অভিনয়: Edward Norton, Naomi Watt, Lieve Schreiber and Toby Jones

মুক্তিকাল: ২০শে ডিসেম্ব্র, ২০০৬

pv1

Walter Fane (Edward Norton) আর Kitty (Naomi Watt) সাংহাইয়ের এক দুর্গম এলাকায় নতুন এসেছেন। কিটিকে দেখে মনে হচ্ছে বেচারি মোটেও জায়গাটা পছন্দ করছেনা। চারিদিকে পাহাড়-পর্বত আর অনেক জোড়া চোখ কৌতুহল নিয়ে তাকিয়ে আছে তাদের দিকেই। ফেইনকে কিন্তু বেশ বিচলিত মনে হচ্ছে। তার মধ্যে জায়গাটি নিয়ে কোন মাথাব্যথা নেই। আপন মনে বই পড়া শুরু করলেন। এক সময় আকাশ ভেঙে বৃষ্টি শুরু হলো। ঝুম বৃষ্টিতেই দুজন ছাতা মেলে ধরে কাদা-পানিতে একাকার হয়ে সেখানেই বসে রইলেন। একসময় কৌতুহলী চোখগুলোও তাদের কাজ শেষ করে বাড়ির দিকে রওয়ানা হলো। নিরবতা নেমে এলো। শুধু ঝুমঝুম বৃষ্টির শব্দ। এক সময় নিরবতা ভেঙে কিছু লোক আসতে লাগলো। ফেইনকে দেখে মনে হলো তিনি আশ্বস্ত হলেন কারণ লোকগুলো তাদেরকে নিয়ে যেতে এসেছে।

painted-veil-stills-11

Walter Fane পেশায় একজন ব্রিটিশ রোগজীবাণুবিদ। পেশার কাজেই তাকে আসতে হয়েছে সাংহাইয়ে। আর সাথে করে নিয়ে এসেছেন নববিবাহিত স্ত্রী Kitty কে। Kitty এর সাথে Dr. Fane এর পরিচয় লন্ডনে Kittyর বাড়িতেই এক পার্টিতে। প্রথম দেখাতেই মুগ্ধ হয়ে Fane বিয়ের প্রস্তাব করেন Kitty কে। Kitty মানা করেননি। সাথে সাথে রাজি হয়ে গেলেন আর তাদের বিয়েটাও হয়ে গেল চটজলদি। Kitty আসলে তাড়াহুড়ো করেই বিয়েতে মত দিয়েছেন শুধুমাত্র তার মায়ের থেকে দূরে সরে যাবার জন্য।

painted-veil-stills-08

সাংহাইয়ে এই দম্পতির জীবন চলতে থাকে যার যার মত। Dr. Fane ব্যস্ত থাকেন তার গবেষণা নিয়ে আর বেশিরভাগ সময় একাকী কাটাতে হয় Kitty কে। সেখানে Kittyর সাথে পরিচয় হয় ব্রিটিশ ভাইস কনস্যুল Charles Townsend. Townsend বিবাহিত হলেও Kittyর সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। এর মধ্যে Fane এর ডাক পড়ে চিনের আক অতি দুর্গম এলাকা থেকে যেখানে কলেরা তার কালো থাবা মেলে ধরেছে আর কেড়ে নিচ্ছে সেখানকার মানুষের জীবন। Kitty রাজি না থাকলেও তাকে বাধ্য হতে হয় স্বামীর সাথে সেই ভয়াবহ দুর্গম অঞ্চলে যেতে। কী আছে এই দম্পতির জীবনে? ভালবাসাহীন এই জীবন মেনে নিতে কি পারবেন Kitty?

2006_the_painted_veil_015

এরকম এক দম্পতির জীবন নিয়েই গড়ে উঠেছে W. Somerset Maugham এর উপন্যাস The Painted Veil অবল্মনে নির্মিত চলচ্চিত্র The Painted Veil। ২০০৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিটির প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন Edward Norton আর Naomi Watt। অত্যন্ত সুন্দরভাবে দুজন তাদের চরিত্রগুলো ফুটিয়ে তুলেছেন। একজন বৈজ্ঞানিক গবেষক যেমন শান্ত-শিষ্ঠ আর ধীর-স্থির হোন Edward ঠিক তেমন করেই নিজেকে উপস্থাপন করেছেন। নিজের কাজের প্রতি দায়িত্ববোধ তাকে তাড়া করে ফেরে আবার বিবাহিত জীবনকে খুব সিরিয়াসভাবে দেখেন। যদিও সেটা স্ত্রীকে তেমন করে দেখান না। অপরদিকে Naomi তার চরিত্রকে ফুটিয়েছেন সুন্দরভাবে। সব সময় লোকবল আর পার্টি নিয়ে থাকা একটি মেয়ে একাকী জীবনে কেমন করে নিজেকে নিয়ে থাকে তা দেখাতে সফল হয়েছেন তিনি তার অভিনয়ের মাধ্যমে। অপরদিকে Townsend এর চরিত্রে Lieve যিনি ব্যক্তিগত জীবনে Naomi Watts এর স্বামী তিনিও তার চরিত্রকে সুন্দর করে ফুটিয়েছেন। আর দুর্গম অঞ্চলে Edward আর Naomi এর একমাত্র কাছের বন্ধু হিসেবে Toby তাকে উপস্থাপন করেছেন দারুনভাবে।

pdvd1127yf5

মুভির একেকটি দৃশ্য ছিল দেখার মত। সিনেমাটোগ্রাফিও ভালো লেগেছে। লোকেশন ছিল নজরকাড়া। সব মিলিয়ে ছবিটিকে দিয়েছে ভিন্ন এক রুপ। অসাধারণ কাহিনী, অসাধারণ অভিনয় আর অসাধারণ এই মুভিটি দেখে না থাকলে আর দেরি কেন? দেখে ফেলুন আজই।

এই পোস্টটিতে ৫ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. ফরেস্ট গাম্প says:

    অনেক আগে দেখেছি, ঠাণ্ডা মেজাজি দারুণ মুভি, দুইজনের স্নায়ু যুদ্ধটা বেশ লাগে।
    রিভিউ দিয়েছেন সেরকম, পড়ে ভালো লাগলো খুব। আমারও একটা ছোট রিভিউ ছিল-
    http://bioscopeblog.net/zubayer/16111

  2. অসাধারণ এক ছবি। আমার জীবনের অন্যতম সেরা রোমান্টিক ফিল্ম।

  3. শাতিল আফিন্দি says:

    নাইস রাইটিং, এই মুভিটা দেখতে হবে।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন