অবিশ্বাস্য হলেও সত্য – The Impossible

ভেবে দেখুন, আপনি কোন এক ছুটি কাটাতে পরিবার নিয়ে পাড়ি জমালেন সুন্দর একটি দ্বীপে। সাগরের পাড় ঘেষে বালুকনায় ঘেরা দ্বীপটি। চারিদিকে উঁচু উঁচু গাছপালা আর তীরে এসে আছড়ে পড়ছে নীল সাগরের সাদা সাদা ঢেউ। পাখির কিচির মিচির আর সুন্দর বয়ে চলা বাতাস। সাগরের তীরেই সুন্দর একটি হোটেল ও পেলেন থাকার জন্য। সেই হোটেলের লনে বসে আছেন আর যখন ইচ্ছে সুইমিং পুলে নেমে গা ভিজিয়ে দাপাদাপি করছেন। তারপর আবারো লনের চেয়ারে গা এলিয়ে দিয়ে চোখ বুজে যখন জীবনের সব সুখ উপভোগ করছেন ঠিক তখনি এমন এক ঘটনার স্বচক্ষে অবলোকন করলেন যা মনে হলো অবিশ্বাস্য। মূহুর্তেই পাল্টে গেল দৃশ্যপট। ভয়ংকর এক সত্যের মুখোমুখি দাড়িয়ে তখন। কেমন লাগবে?theimpossiblenaomiboy

 

এমনি এক ঘটনা ঘটেছিল স্প্যানিশ এক পরিবারের জীবনে। সময়টি ছিল ২০০৪ সালের ডিসেম্বর মাস। পরিবারটি তাদের ক্রিসমাসের সময়ের ছুটি কাটাতে পাড়ি জমিয়েছিলেন থাইল্যান্ডের মনোমুগ্ধকর এক দ্বীপে। স্বামী-স্ত্রী আর তাদের ৩ পুত্র। ছুটিতে মজা করতে করতে পরিবারটি মুখোমুখি হয়েছিল সুনামি নামক ভয়ংকর সেই প্রাকৃতিক দুর্যোগের। আর তাদের জীবনে সেই সময়টি হয়ে রইল ভয়াবহ এক অভিজ্ঞতা হিসেবে। পেয়েছে তারা নতুন এক জীবনের স্বাদ।

ভয়ঙ্কর সুনামির কালো থাবা থেকে উদ্ভুদভাবে বেঁচে যাওয়া এই পরিবারটির কাহিনী ই উৎসাহ যুগিয়েছে ছবি দ্যা ইম্পোসিবল তৈরীতে। মারিয়া, পেশায় একজন ডাক্তার সেই পরিবারের একজন। বর্ণনা করলেন তার অভিজ্ঞতা, ‘ছবিতে সিনেমা হলের স্ক্রীনে ঢেউগুলো যেমনটি বড় দেখায় বাস্তবে তা আরো অসংখ্যগুন বিশাল আর ভয়ঙ্কর। ঢেউগুলো একের পর এক তাকে আঘাত করেছিল। চারপাশে হোটেলের দেয়াল ছিল যার সবগুলো ভেংে পড়েনি আর তাই মানুষ আটকা পড়ে বাঁচতে পারেনি।’

দীর্ঘ সময় মারিয়াকে পানির নিচে থাকতে হয়েছে। মারিয়ার মত তার স্বামী কিক ও দীর্ঘসময় পানির নিচে ছিলেন। পরিবার থেকে সবাই ছিলেন বিচ্ছিন্ন হয়ে। কিক অবশ্য ধরেই নিয়েছিলেন তার পরিবারের কেউ ই বেঁচে নেই বিশেষ করে তার ছেলেরা। কিন্তু তবু তিনি আশা ছাড়েননি তাদের খুঁজে বের করতে। তিনি তখন এক পর্যায়ে চিৎকার করে কাঁদতে লাগলেন। কিন্তু এক সময় বুঝলেন তিনি কেন কাঁদছেন? কী হবে কেঁদে যখন আশেপাশে কেউ নেই তার ক্রন্দন শুনে তাকে স্বান্তনা দেবার মত।

তারপর তারা একে একে খুঁজে পেলেন একে অপরকে। তা ছিল অনেক কষ্টের।

ছবিটিতে মারিয়া চরিত্রে নাওমি ওয়াটসের অভিনয় ছিল অসাধারণ। এত সুন্দর করে তিনি নিজেকে উপস্থাপন করেছেন প্রতিটি দৃশ্যে যা সত্যি প্রশংসার দাবিদার। এছাড়াও কিক এর চরিত্রে (যদিও ছবিতে তার ভিন্ন নাম ব্যবহার করা হয়েছে) ইওয়ান ও প্রশংসিত অভিনয় করেছেন। আমার কাছে বেশি যা ভালো লেগেছে তা হলো, ছবির সিনেমাটোগ্রাফি, সাউন্ড এফেক্ট আর সকল অভিনেতা-অভিনেত্রী বিশেষ করে শিশু অভিনেতাদের অসাধারন অভিনয় দক্ষতা।

সত্য ঘটনা নিয়ে নির্মিত ছবিটি সকলের ভালো লাগবে বলেই আশা করি। দেখে ফেলুন পরিবারটির ভয়াবহ সেই অভিজ্ঞতা।

The Impossible (2012)
The Impossible poster Rating: 7.6/10 (129635 votes)
Director: J.A. Bayona
Writer: Sergio G. Sánchez, María Belón (story)
Stars: Naomi Watts, Ewan McGregor, Tom Holland, Samuel Joslin
Runtime: 114 min
Rated: PG-13
Genre: Drama, Thriller
Released: 4 Jan 2013
Plot: The story of a tourist family in Thailand caught in the destruction and chaotic aftermath of the 2004 Indian Ocean tsunami.

(Visited 55 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন