‘পিকে’ র বাজিমাত !!

Capture

পিকে নিয়ে হাজারটা রিভিউ পাবেন অনলাইনে; হয়তো ইতোমধ্যে পেতেও শুরু করেছেন বলিউডের বক্স অফিসে আলোড়ন সৃষ্টিকারী এই অসামান্য ছবিটা নিয়ে। তাই কথা না বাড়িয়ে ছোট্ট করে ‘পিকে’ নিয়ে রিভিউটা লিখলামঃ

এক নজরে

ছবির নাম : পিকে

পরিচালক : রাজ কুমার হিরানী

অভিনয়ে :আমির খান, আনুষ্কা শর্মা, সঞ্জয় দত্ত, সুশান্ত সিং রাজপুত,বোমান ইরানি ও অন্যান্য

প্রযোজক : বিনোদ চোপড়া, রাজকুমার হিরানী

ছবিটা মুক্তির আগে হয়তো পিকে নিয়ে এই সাধারণ ভূমিকাটা সবার প্রায় মুখস্থ হয়ে গিয়েছিল- ‘শহরে আসা এক আগুন্তুক এর গল্প যে লোকজনকে অদ্ভুত সব প্রশ্ন করে বেড়ায়,যেগুলো এর আগে কেউ করে নি’। হ্যাঁ, অদ্ভুতই প্রশ্নগুলো কিন্তু শুনতে যতটা অদ্ভুত,ঠিক ততটাই যে যৌক্তিক – তা ছবিটা দেখলেই বুঝবেন।

নতুনদের ছবি দেখার মজাটা নষ্ট করব না; তাই গল্প এখনই পুরোটা বলে দেয়ার কোন মানে নেই। এক কথায় যদি বলি তাহলে পিকে হল ভীন গ্রহ হতে আসা এক এলিয়েন দুর্ভাগ্যক্রমে যার ‘রিমোট কন্ট্রোল’ টা চুরি হয় যেটি ছাড়া তার নিজের গ্রহে ফিরে যাওয়া সম্ভব নয়। অদ্ভুত সব প্রশ্ন করে বলে লোকে তাকে মাতাল ভেবে বসে( ‘পিকে হো কেয়া?’) তাই আসলে মাতাল না হলেও সারাক্ষণ পান চিবোতে থাকা এলিয়েনটির নাম হয়ে যায় ‘পিকে’। কি করে পিকে’র সাথে জাগগু’র (আনুষ্কা) দেখা হয় আর কি করেই তারা হারানো রিমোট কন্ট্রোলটা ফিরে পায় – তাই ছবিটা জুড়ে দেখানো হয়েছে।

রিমোট কন্ট্রোল ফিরে পাওয়ার সেই কাহিনীতে পিকে কখনও নিজের অজান্তে আবার কখনও কৌতুহলী প্রশ্নে ভন্ড  ধর্মব্যবসায়ীদের মুখোশ খুলে দেয়। সৃষ্টিকর্তাকে কাছে পাওয়ার সহজ পথটিকে যারা ব্যবসার স্বার্থ-সিদ্ধিতে ব্যবহার করছিল, রীতিমতো অস্তিত্বের সংকটে পরে তারা। এইখানে বলে রাখা ভাল ‘রিমোট কন্ট্রোল’, ‘রং নাম্বার’ ইত্যাদি অদ্ভুত সব শব্দের নতুন অর্থগুলো পিকে’রই দেয়া। পুরো ছবিটা জুড়ে সেই লম্বা কান আর হেড লাইটের মতো চোখওয়ালা পিকে’র অদ্ভুতুড়ে প্রশ্ন,কৌতুহলী চাহনি সঙ্গে ভোজপুরী আর হিন্দির মিশ্র উচ্চারণে আমিরের অসাধারণ পিকেরূপী অভিনয় সবাইকে হাসায়,আবার সেই হাসির সাথে শিশুসুলভ অথচ যৌক্তিক কিছু প্রশ্নের মুখোমুখি দাঁড় করায়, আমাদের চোখের সামনে প্রতিনিয়ত চলতে থাকা অযৌক্তিক নিয়মকানুন আর মানবসৃষ্ট ধর্মীয় কুসংস্কারগুলোকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়।

পিকে’ চরিত্রে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সেরা ছবিটা উপহার দিলেন আমির সঙ্গে হিরানীও। গল্প বলার সারল্য,অসাধারণ প্লট, ডায়লগ, অভিনয় যেদিক থেকেই বলি না কেন পিকে দশে দশ পাওয়ার যোগ্যতা রাখে। আর তাই তো মাত্র ১৩ দিনের মাথায় ৫০০ কোটি রুপি আয় করা ছবিটা ভারতের চলচ্চিত্র ইতিহাসের সবচেয়ে ব্যবসাসফল ছবি হতে যাচ্ছে।

বহু ধর্ম আর এত জাত-পাতের দেশ ভারতে ‘পিকে’ যে অনেক ধর্মীয় গোষ্ঠীর সমলোচনার মুখে পড়বে তা আগেই আন্দাজ করা গিয়েছিল। তবে আমি সেই তর্কে যেতে চাই না; কিন্তু যারা “পিকে’র পোস্টার নকল”, “এটি ‘ও মাই গড’ থেকে মেরে দেয়া” এসব নিয়ে চেঁচাচ্ছেন তাদের বলব ‘পিকে’ ছবিটা একবার অন্তত দেখুন,ভাই ; তারপর দেখিই না আপনার রেটিংটা কত?

(Visited 152 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ৫ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. হুমায়ন স্যারকে নিয়ে আমাদের পেজ ~ http://www.facebook.com/humayonahmed111

    সবাই একবার এই পেজটি থেকে ঘুরে আসেন ।
    আশা করি ভাল লাগলে #লাইক দিবেন ।

    ধন্যবাদ সবাইকে ।

  2. হুমায়ন স্যারকে নিয়ে আমাদের পেজ ~ http://www.facebook.com/humayonahmed111

    সবাই একবার এই পেজটি থেকে ঘুরে আসেন ।
    আশা করি ভাল লাগলে #লাইক দিবেন ।

    ধন্যবাদ সবাইকে ।

  3. Joy choudhury Joy choudhury says:

    এ প্রযন্ত তিন বার দেখা শেষ। আসাধারন মুভি।
    আর আমারা বাঙ্গালি জাতি হিসাবে মস্তিষ্ক এততাই উন্নত চাঞ্চ পাইলেই আন্ডারওয়ারের পাবলিসিটি করি।
    আশা করি যাকে বলছি সে বুজছেন।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন