Kevin Feige—মার্ভেলের রিয়েল লাইফ সুপারহিরো ও গডফাদার
Share on Facebook226Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

বর্তমান সময়ে কাউকে যদি এখন প্রশ্ন করা হয় হলিউডে কি রকমের সিনেমা বানায়? সে উত্তরে বলবে সুপারহিরোদের সিনেমা। বর্তমানে হলিউডকে দেখার দৃষ্টিই বদলে দিয়েছে মার্ভেল। ১৯৯৬ সালে যে প্রতিষ্ঠানটি নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা করেছিল তারা আজ এমন এক উচ্চতায় পৌছে গিয়েছে যে অনেক প্রতিষ্ঠান এখনো সেখানে যেতে পারে নি। সিনেমাটিক ইউনিভার্স এর ট্রেন্ডটা এতটা সাকসেসফুলি আবার চালু করছে যে Sony, Universal, DC তাদের সিনেমাটিক ইউনিভার্স বানানোর দিকে মনোযোগ দিচ্ছে। মার্ভেল আজ এত উপরে উঠেছে তার ক্রেডিট শুধুমাত্র কেভিন ফাইগির। সে মার্ভেলের এক রিয়েললাইফ সুপারহিরো, মার্ভেলের গডফাদার।

কেভিন ফাইগি প্রথম কাজ শুরু করেন Donner’s Company তে। সেখানে লরেন্স ডোনারের (ফক্সের X-Men এর প্রডিউসার) সাথে মিলে মাত্র ২টি সিনেমা প্রডিউস করেন। লরেন্স যখন X-Men সিরিজ প্রডিউস করা শুরু করে তখন তিনি কেভিন কেও ডেকে নেন তার সাথে কাজ করার জন্য। এভাবে মার্ভেলের প্রতি কিছুটা আগ্রহ জন্মে ফাইগির এবং এক্সকিউটিভ প্রডিউসার হিসাবে যোগ দেয় মার্ভেলে। তখনকার চেয়ারম্যান ডেভিড মেসেন ইউনিভার্স বানাতে চাইলেও CEO আইজ্যাক রাজি ছিলেন না।পরে কেভিনের দেয়া আইডিয়া আইজ্যাক এর পছন্দ হয় এবং মার্ভেল লোন নিয়ে ২টা মুভি তৈরি করে। Incredible Hulk এবং Ironman যার মধ্যে Ironman শুভ সূচনা এনে দেয় মার্ভেলকে। এই ২টি সিনেমা বানানোর পূর্বেই আরও ৩ টা মুভির পরিকল্পনা এবং সেগুলোর কাজও শুরু করছিলেন ফাইগি। মুভিগুলা ছিল Thor, Captain America, The Avengers। এর মাঝেই ডিজনি মার্ভেলকে ৪ বিলিয়নে কিনে নেয়। আর প্রেসিডেন্ট অ্যাভিয়া রেড অবসরে চলে যান আর ফাইগি প্রেসিডেন্ট পদ অন্তভুক্ত হোন। কিন্তু ঝামেলা বাধে Avengers: Age of Ultron সেভাবে ব্যবসা না করায়। এর ফলে মার্ভেলের CEO আইজ্যাক Civil War এর মত বড় বাজেটের মুভি বানাতে নিষেধ করে দেয়।কিন্তু ফাইগি তারপরও বানাতে চাইলে অ্যাইজ্যাক সেখান থেকে Ironman কে বাদ দিতে বলে। অ্যাইজ্যাক এর এই কথায় কেভিন এতটাই রেগে যায় যে সে মার্ভেল ছেড়ে দেয়ার কথা বলে যা অনেক ওয়েবসাইট–এ প্রকাশিত হয়। মার্ভেলের এই সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসে ডিজনির CEO আইগার এবং চেয়ারম্যান এ্যালেন হর্ন। তারা আলোচনা করে মার্ভেলকে আলাদা করে দেয় সাথে আইন করে দেয় যে ফাইগির কাজে কেউ কোন ধরনের বাধার সৃষ্টি করতে পারবে না। যার ফলস্বরুপ আমরা Civil War এর মত সব মুভি পাচ্ছি।

 

বর্তমানে MCU এর সকল মুভি কেভিন নিজেই কন্ট্রোল করে। সে নিজেই ঠিক করে পরের সিনেমার জন্য কোন ডিরেক্টর লাগবে, কোন অভিনেতা লাগবে, কোন রাইটার লাগবে। যে তার কথা অনুযায়ী কাজ করতে চায় না সে আর MCU এর অংশ হিসেবে থাকে না। কেভিন বাদ দিয়ে দেয় তাকে। সে যত ভালো অভিনেতা, ডিরেক্টরই হোক না কেন, যত আয় করা সিনেমাই দিক না কেন। উদাহরণস্বরুপঃ এডগার নর্ড, প্যাটি জেনকিংক্স, এডগার রাইট। তাদের জায়গার সে নতুন নতুন ডিরেক্টর নিয়োগ দেয়। বুঝতেই পারছেন বর্তমানে কি পরিমান ক্ষমতা কেভিন ফাইগির। এর মাঝে সে আরেকটা সিদ্ধান্ত নেয় নতুন নতুন ডিরেক্টরদদের চান্স দেয়ার যাতে তারা তাদের ট্যালেন্ট দেখাতে পারে। আর এরা আমাদের Gurdian of the Galaxy, Thor Ragnarak, Black Panther এর মত মুভি উপহার দেয়।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন