ছোটবেলায় বিটিভিতে দেখা প্রিয় সিরিয়ালগুলোঃ পর্ব ১

আমাদের মধ্যে কমবেশি সবাই-ই ছোটবেলায় বিটিভিতে প্রচারিত সিরিয়ালের ভক্ত ছিলাম। তখন বিটিভিই ছিল একমাত্র চ্যানেল আর দেখাতও সেরকম কিছু টিভি সিরিজ। অনেকদিন ধরেই ভাবছিলাম স্মৃতিচারণা করব কিছু সিরিয়াল নিয়ে। এই ফাঁকে সবাই মিলে আবার ঘুরে আসা যাবে ছোটবেলার সোনালি দিনগুলোতে!

alif laila

১) Alif Laila: ছোটবেলার সবচেয়ে প্রিয় সিরিয়াল। শুরু হত একটা গান দিয়ে- “আলিফ ল্যায়লা…ও ও ও… দেখ সব নতুন কাহিনী, গরিবের ঘরেও রানী…”। শুনলেই লোম খাড়া হয়ে যেত উত্তেজনায়! সারাটা সপ্তাহ বসে থাকতাম এটার জন্য। এখনও কি আপনাদের মনে পড়ে সিনবাদ আর আলিবাবার পাশাপাশি জিঙ্গালা আর মালেকা হামিরার কথা?  :mrgreen:

সবসময় শুধু সবুজ রঙের জ্বিন/দৈত্য আর সাদা ফ্রক পরা কোহকাফ নগরীর পরী দেখাত এখানে।

আমাদের প্রিয় সবুজ দত্যি!

আমাদের প্রিয় সবুজ দত্যি!

 

২) The adventures of Sinbad: চলে এল আরেকটি প্রিয় সিরিজের কথা।

মিভ, ডুবার, সিনবাদ, ফিরোজ

মিভ, ডুবার, সিনবাদ, ফিরোজ, রংগার

মনে হয় এটিই ছিল কিশোরবেলায় আমার সবচেয়ে প্রিয় টিভি সিরিয়াল। সিনবাদরুপী Zen Gesner কিংবা মিভরুপী Jacqueline Collen ছিল আমার স্বপ্নের নায়ক-নায়িকা! ডুবার, রংগার, ফিরোজের কথাও না বললেই নয়। বিশেষ করে ডুবারের রসিকতা, ফিরোজের অঘটন ঘটানো আবিস্কার আর রংগারের ছুরি চালনা।

আরেকজন কিন্তু ছিল এখানে। মিভের চেয়েও যার অ্যাপিয়ারেন্স আমার বেশি ভাল লাগত।

বলছি জাদুকরী রুমিনার কথা। বেচারা সিনবাদকে পাওয়ার জন্য কি না করত!

রুমিনা - সিনবাদের একনিষ্ঠ প্রেমিকা কাম শত্রু!

রুমিনা – সিনবাদের একনিষ্ঠ প্রেমিকা কাম শত্রু!

বলুন তো মিভের বাজপাখিটির নাম কি ছিল?  😆

ডারমট!

ডারমট!

আর ডিমডিম নামটা কি পরিচিত লাগছে? হু, উনি ছিলেন সিনবাদ আর মিভের জাদু শিক্ষক।

কানাডিয়ান এই সিরিয়ালটির IMDB Rating: 6.7। দেখাত প্রতি শুক্রবার। শুরু হত জাম্প কেডসের অ্যাড দিয়ে। অ্যাডের গান শুনলেই ধৈর্যের বাঁধ ভেঙ্গে যেত শো দেখার জন্য!

 

৩) The new adventures of Robin Hood (IMDB Rating: 5.6): আমাদের সবার প্রিয় রবিন হুড আর তার বাহিনীর কাহিনী।

ম্যারিয়েন, রবিন, লিটিল জন আর ফ্রায়ার টেক। সর্ববামের ব্যক্তিটিকে চিনতে পারছি না :(

ম্যারিয়েন (দুই নাম্বারটা), রবিন, লিটিল জন আর ফ্রায়ার টেক। সর্ববামের ব্যক্তিটিকে চিনতে পারছি না 🙁

শেরউড জঙ্গলের অধিপতি রবিন গরিবদের সাহায্য করার জন্য কিভাবে প্রিন্স জনের সাথে যুদ্ধ করত, মনে আছে? আমার তো এখনও ফ্রায়ার টেকের হাস্যকর কাজকর্মের কথা মনে পড়ে! কিংবা যোদ্ধা হিসেবে ম্যারিয়েন আর লিটিল জনকে। এখানে কিন্তু লর্ড অফ দ্য রিংস খ্যাত  Sir Christopher Lee ও অভিনয় করেছিলেন।

আমার প্রিয় ছিল প্রথম রবিনহুড ( Matthew Porretta)। মনে হয়, এই কথাটা সবার জন্যই সত্যি। দ্বিতীয় রবিনের রেসলারদের মত পেশি থাকলেও চেহারা মোটেও জাতের ছিল না। এই লোকটার অভিনয়ও আমার ভালো লাগত না। তবে দ্বিতীয় ম্যারিয়েনকে বেশি ভাল লেগেছিল।

প্রতি বুধবার এই সিরিজটি প্রচারিত হত। পুরো সিরিজটির শুটিং হয়েছিল লিথুয়ানিয়ায়।

 

৪) RoboCop (IMDB Rating: 5.3):  এলেক্স মারফির কথা মনে আছে? বাংলা সিনেমার নীতিবান পুলিশ নায়কের মত একজন পুলিশ অফিসার ছিল যে? কোন এক দুর্ঘটনাবশত (কারণটা মনে নেই) সে মানুষ হিসেবে বেঁচে থাকতে অপারগ হয়ে পড়ে। তখন তাকে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে cybernetic পুলিশ অফিসার বানানো হয়। আর ইনিই হলেন আমাদের ত্রাণকর্তা রোবোকপ!

robocop

রোবোকপ হয়ে সে জীবিতকালের মতই অপরাধের পেছনে ধাওয়া করে বেড়াত। অপরাধীরা এই অর্ধেক রোবট-অর্ধেক মানবের ভয়ে সবসময় তটস্থ থাকত।

রোবোকপের মাথায় হেলমেট পড়া অবস্থায় কত হ্যান্ডসাম লাগত অথচ হেলমেট খোলার পর ন্যাড়া মাথার রোবোকপকে কেমন বীভৎস লাগত, মনে আছে? এই দেখুন!

মানুষ অবস্থায় অ্যালেক্স আর অ-মানুষ অবস্থায় রোবোকপ!

মানুষ অবস্থায় অ্যালেক্স আর অ-মানুষ অবস্থায় রোবোকপ!

এটিও ছিল একটি কানাডিয়ান টিভি সিরিজ।

 

৫) Mysterious Island (IMDB Rating: 6.8 ):  যতদূর মনে পড়ে, কানাডিয়ান এই টিভি সিরিয়ালটির প্রথম পর্বে দেখিয়েছিল, একটা পরিবার বিরাট এক গ্যাস বেলুনে করে পালিয়ে যাচ্ছে। তারা গিয়ে পৌঁছায় এক রহস্যময় দ্বীপে যেখানে কোন মানুষের বসতি নেই।

রহস্যময় দ্বীপে অবতরণ করার পর...

রহস্যময় দ্বীপে আটকে পড়ার পর…

এই সিরিয়ালের নায়িকা হিসেবে শুধু জোয়ানার নামই মনে পড়ছে। বাকি চরিত্রদের মধ্যে মনে আছে জোয়ানার স্বামী এবং ছেলের কথা। দ্বীপটিতে বাস করত রহস্যময় বিজ্ঞানী ক্যাপ্টেন নেমো যে কিনা লুকিয়ে লুকিয়ে, বিশাল এক টেলেস্কোপ দিয়ে, দ্বীপে আটকে পড়া জোয়ানাদের জীবন যাপন লক্ষ্য করত আর মাঝে মধ্যে বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট চালাত তাদের উপর।

 

৬) Hercules – The Legendary Journeys (IMDB Rating: 6.3):  যারা হারকিউলিস দেখেছেন, তারা কখনো Kevin Sorbo কে ভুলতে পারবেন না। কি যে জনপ্রিয় ছিল এই লোক হারকিউলিস হিসেবে! ভাল লাগত তার বন্ধু লোলাউসকেও।

হারকিউলিস আর লোলাউস

হারকিউলিস আর লোলাউস

গ্রিক এই বীরের চির শত্রু, তার সৎ মা, হেরার চোখের দৃষ্টি মনে পড়লে এখনও গায়ে কাঁটা দেয়।

ময়ূরের পালকের চোখওয়ালা হেরা

ময়ূরের পালকের চোখওয়ালা হেরা

গ্রিক মিথলজির বিভিন্ন চরিত্র সম্পর্কে আগ্রহ ছিল বলে খুব মজা নিয়ে দেখতাম সিরিজটি 😀  ।

শুরুতেই একটা বিশাল সাপ টাইপের প্রাণী দেখাত, যাকে হারকিউলিস তলোয়ার দিয়ে কেটে ফেলার পর সেটার দুটো মাথা গজাত!

snake

স্মৃতি ঝালাই করে নিন!

 

৭) Young Hercules (IMDB Rating: 5.2):  এই সিরিজটিও ভাল লাগত তবে হারকিউলিসের মত নয়।  Ryan Gosling কে ভাল লাগত বলেই দেখা হত এটা। মূলত এটা ছিল বয়স্ক হারকিউলিসের কিশোরকালের ঘটনাবলি যখন সে প্রেম-পিরিতি, টাংকিবাজি আর মানুষকে বিরক্ত করা নিয়েই মেতে থাকত।

তরুণ হারকিউলিস ও তার কুকীর্তির সাঙ্গপাঙ্গরা

তরুণ হারকিউলিস ও তার কুকীর্তির সাঙ্গপাঙ্গরা

নায়িকা হিসেবে লিলিথের কাজকর্মেও মজা পেতাম। মজা লেগেছিল সেন্টর (ঘোড়ার শরীর কিন্তু মাথাটা মানুষের) চরিত্রটি দেখেও। তবে সত্যি বলতে কি, হারকিউলিস হিসেবে রায়ান গসলিংকে মানতে আমার কষ্ট হত। আমার কাছে হারকিউলিস মানেই কেভিন সরবো!

 

৮) The X- Files (IMDB Rating: 8.7):  আরেকটা চরম সিরিজ। ক্রিস কার্টারের অনবদ্য সৃষ্টি।

রাত দশটার ইংরেজি খবরের পর দেখাত। এমনিতেই ছোটবেলায় এটাকে ভূতের সিরিজ ভাবতাম। তার উপর অত রাতে দেখাত বলে কখনই ধারাবাহিকভাবে দেখা হয়ে উঠে নি। যেদিন এটা দেখার সাহস নিয়ে বসতাম, ওইদিন থেকে পর পর কয়েকদিন রাতে বাথরুমে যাওয়ার সাহস হারিয়ে ফেলতাম (যদিও বাথরুম ঘরের ভিতরেই :পি)।

অতি প্রিয় জুটিঃ মলডার-স্কালি

অতি প্রিয় জুটিঃ মলডার-স্কালি

এই সিরিজের দুইটা পোস্টার বা স্লোগান খুবই হিট হয়েছিল। বলতে পারেন কোনগুলো?

একটা হলঃ

প্রতি এপিসোডের শুরুই হত ঐতিহাসিক এই বাক্যটি দিয়ে

প্রতি এপিসোডের শুরুই হত ঐতিহাসিক এই বাক্যটি দিয়ে

আরেকটি পোস্টার লাগানো থাকত মলডারের অফিসরুমের দেওয়ালে।

the-x-files-i-want-to-believe-print

মনে পড়ে?

গত বছর এক্স ফাইলসের প্রথম দিককার কয়েকটি সিজন নামিয়ে দেখেছি। দেখে কাহিনির বিন্যাস বুঝতে পেরেছি। এতদিন পর আরো বুঝেছি, এটা ভূতের কিছু নয় বরং আধিভৌতিক আর সাই-ফাই সিরিয়াল 😎 ।

 

দ্বিতীয় পর্বের লিঙ্কঃ    http://www.movieloversblog.com/nirjhar-ruth/11374

 

(Visited 790 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন