Charlie :- এক অনিন্দ্যসুন্দর উপখ্যান
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

Screenshot_2016-11-27-09-12-09

কিছু মুভি আছে যেগুলো আপনাকে প্রশান্তির পরশ বুলিয়ে দিবে…
যখন আপনার মন অস্থির লেভেলের ভালো তখন তো বটেই যখন মন-মেজাজ, শরীর সব কিছুতেই হতাশা ভর করে তখনও এই ধরনের মুভিগূলোর আবেদন এতটুকু ফিকে হয়ে যায় না।

মালায়ালাম ভাষায় নির্মিত একটি মুভি,
Charlie (😱😱)
…………. এরপর আর বলা চলে না।
গত এক বছর যাবত এই মুভি নিয়ে আলোচনা চলছে যে আলোচনার কোন সমাপ্তি নেই। কত মুভিখোর বিজ্ঞ লোকের রিভিউ পড়লাম, কারো কাছে এতটুকু নেতিবাচক মন্তব্য পেলাম না!
কি আছে এই মুভিতে?
একটি সমান্তরাল গল্প যেখানে কোন মাথা নষ্ট টাইপ টুয়িস্ট নেই অথচ মুভিখোরদের মাঝে একটি ক্রেজ।
শেষ পর্যন্ত,
এত সবের ভীড়ে আমিও দেখতে বসেছিলাম! আর কোন রকম বিরক্তি ছাড়াই টানা তিনবার দেখলাম….

একবার কাহিনী ধরার জন্য সাবটাইটেল দিয়ে, দ্বিতীয়বার এর চিত্রনাট্য, ডিরেক্টর ক্রিয়েটিভিটি ওভারওল ট্যাকনিকাল দিক পর্যবেক্ষণ করার জন্য আর শেষবার মনের তাগিদে।

বাণি স্তাফ বাণী

বাণি স্তাফ বাণী

কাহিনীঃ-
গল্পের নায়িকা ত্রেশা বাড়ি থেকে পালিয়ে আসে নিজের মায়ের ঠিক করা বিয়ে থেকে বাচতে। এসে উঠে এমন এক বাড়িতে যেখানে আগে একজন ভবঘুরে টাইপের লোক থাকত যে এখন নেই অথচ তার জিনিসপত্র অগোছালো অবস্থায় সেই বাড়িতেই রয়ে গেছে। সেইগুলো পরিষ্কার করতে গিয়ে ত্রেশা খুজে পায় এক কমিকস এর। কিন্তু কমিকস এর গল্পের পুরোটা নেই। কিন্তু গল্পের পরের অংশটা জানতে কৌতুহলী হয়ে উঠে ত্রেশা। এবং খুঁজে বেরায় সেই কমিকস এর লেখককে…
ত্রেশা কি খুঁজে পাবে সেই ভবঘুরে লোকটিকে?
জানতে হলে দেখতে হবে! আরে দেখে ফেলুন ত্রেশার জার্নি টু খেয়ালী ভবঘুরে চার্লি…..

ছবির নায়িকা Pravathy 💜

ছবির নায়িকা Pravathy 💜

এত অসাধারন এবং পরিশ্রমী নির্মাণ শেষ কবে দেখেছিলাম তা মনে করতে পারছি না। দক্ষিণ ভারতীয়রা যেখানে মাসালা লার্জার দ্যান লাইফ, ওয়ান ম্যান শো ঘরানার মুভি বানাতে সিদ্ধহস্ত তখন মালায়ালাম পরিচালক Martin Prakkat নিজের ক্রিয়েটিভিটির সবটুকু দিয়ে বানালেন Charlie. আর তার সাথে যোগ্য সংগ দিলেন তার সহযোগীরা স্পেশালি চিত্রনাট্যকার Jommon T. John. প্রত্যেকটা দৃশ্যে নতুনত্ব এবং নিজের মেধার পরিচয় তিনি দর্শক দের মিটিয়েছেন ভালো লাগার খোরাক । অতি সাধারণ দৃশ্যগুলোও হয়ে দাঁড়িয়েছে অসাধারন। ছবির প্রত্যেকটা ডায়ালগ এই ছবির মূল শক্তি। পুরনো কথাগুলোকে নতুন আংগিকে , নতুন রুপে সাজিয়ে চির যৌবনা বানিয়ে পরিবেশন করেছেন পরিচালক।

নায়ক দালকুর সালমান 👌

নায়ক দালকুর সালমান 👌

এবার আসি পারফরমেন্সে,
নামভূমিকায় এক খেয়ালী হেয়ালী, ভবঘুরে, উড়নচণ্ডী , হাসিখুশি যুবক Charlie চরিত্র মেগাস্টার মামোত্তির যোগ্য সন্তান দালকুর সালমান ছিলেন প্রশংসার উর্ধে। তার বাচনভঙ্গি আর অদ্ভুত সুন্দর হাসি Charlie চরিত্রটিকে আরও দুর্দান্ত করে তুলেছে। ছবিটি দেখার সময় মনে হয়েছে তার জন্মই হয়েছে এই চরিত্রটিকে স্বার্থক রূপায়ন করার জন্য। কেন্দ্রিয় নারী চরিত্র ত্রেশা এর অসম্ভব সুন্দর পরিস্ফুটন পর্দায় রুপদান করেছেন Pravathy. নিজের চরিত্রে তিনি এবং তার অভিনয় ছিল পারফেক্ট। চুন থেকে পানটিও খসে নি বলা যায়। এছাড়া Kani চরিত্রে Aparna Gopinath অভিনয়ও ছিল চোখে পড়ার মত। এছাড়া পার্শ্ব চরিত্রে কুঞ্জাপ্পান, পারথোজ, কুইন মেরি, ডিসুজা চরিত্রগুলো আমাদের চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা লোক গুলোর নিপুণ উপস্থিতি।।
এই মুভিতে নায়িকাদের মাঝে মেকাপের বাহার কিংবা গ্ল্যামার এর ঝলকানি নেই অথচ কত অপরূপ তাদের (২ নায়িকা) রুপ। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য় কাছে মাথা নয়েছে প্রসাধনী কৃত্তিম সুন্দর। তাদের হাসিগুলো এতটাই বাস্তবসম্মত যা অন্য যেকোন কিছু থেকেই মূল্যবান।। আসলে পরিচালক এর এই মুভিতে কোন গ্ল্যামারাস কিংবা আবেদনময়ী নায়িকার দরকার নেই কারন তার নির্মিত মুভিটি এতটাই গ্ল্যামারাস আর কালারফুল যেখানো অন্য সবকিছু কিছুটা ম্লানই লাগে। তারপরও এই মুভির নায়িকা Prabaty কে স্ক্রিনে দেখে বারবারউ শ্বাসপ্রশ্বাস ঘন হয়ে যাচ্ছিল। এই প্রথম কোন নায়িকাকে এতটা ভাল লাগল।

Aparna Gopinath 💜

Aparna Gopinath 💜

(এই মুভি নিয়ে রিভিউ করার মত কিছু নেই)
শুধু এতটুকু বলি, আপনি যদি মুভি লাভার হন তাহলে এইটা মাস্ট ওয়াচ টাইপ মুভি

 

 

Screenshot_2016-11-27-16-16-56

 

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন