‘আমাদের গল্প’ ইফতিখার আহমেদ ফাহমির টেলিফিল্ম আর কিছু কথা

‘আমাদের গল্প’ ইফতিখার আহমেদ ফাহমির টেলিফিল্ম


ইফতিখার আহমেদ ফাহমি নিঃসন্দেহে আমদের দেশের একজন প্রতিভাবান প্রতিশ্রুতিশীল নির্মাতা । মূলত তার পরিচালিত ধারাবাহিক ‘হাউসফুল’ নাটকটির মাধ্যমেই তিনি লাইমলাইটে আসেন। অল্প সময়ের মধ্যে নাটকটির জনপ্রিয়তা, পরিচালক হিসেবে তার সার্থকতা প্রমান করে । আর পরই শুধুই সামনে এগিয়ে যাওয়া ।

আমাদের গল্প টেলিফিল্মটি দৃশ্যপট মূলত একটি গেট টুগেদার কে কেন্দ্র করে । কয়েকজন বন্ধুর সাত বছর পর পুনরায় মিলিত হওয়া । প্রত্যেকটি মানুষের কিছু অতীত থাকে , যা সে প্রকাশ করতে চায় না , যখন এগুলো হটাৎই সামনে চলে আসে, তখনই তৈরি হয় দূরত্ব, যা ক্রমশ একটি মানুষ কে গুটিয়ে ফেলে সময়ের আবর্তনে । তবুও জয় সব সময় বন্ধুত্তেরই হয় এবং শুধুই বন্ধুত্তের টানে সবাই ফিরে আসে একই ঘরে ।

টেলিফিল্মটিতে ‘আসিফ’ চরিত্রটি প্লে করেছেন সঙ্গীতশিল্পী ‘তাহসান’। তাহসানের অভিনয় সম্পর্কে বলতে হলে অনেক কিছুই সামনে আসে তবে আমি এতটুকুই বলি যে তার অভিনয় আরেকটু সাবলীল হতে পারত। কিছু কিছু যায়গায় তার ফেস এক্সপ্রেশন মেকি মনে হয়েছে, কেন যেন ডায়ালগ গুলো জোর করে বলছে মনে হয়েছে । তবে নতুন অভিনেতা হিসেবে তার অভিনয় অতোটা খারাপ হয় নি । ‘ফারিয়া’ চরিত্রে জয়া আহসান যথারীতি অসাধারন অভিনয় করেছেন । ছবিটি শেষ করার পর মনে হয়েছে এই চরিত্রটি তাকে ছাড়া অন্য কাউকে মানাত না। অনেকদিন পর ঈশিতা কে দেখলাম অভিনয়ে। অনেকদিন অভিনয়ের বাহিরে থাকার পরও তার অভিনয়ে কোন প্রকার ছাপ পরেনি, জাত অভিনেত্রী বুঝি এদেরকেই বলে । তাছাড়া অন্যদের অভিনয়ও ছিল ভাল ।

পরিচালক হিসেবে ফাহমি মুন্সিয়ানা দেখালেও কিছু জায়গায়টার শর্টগুলোটে তার আরেকটু সচেতন হওয়া উচিত ছিল । অধিকাংশে ক্লোজশর্টের ব্যবহার করার চেষ্টা স্পষ্ট লক্ষ্য করা যায় । দূর থেকে ক্লোজ শর্ট নিতে গিয়ে ক্যামেরা ভাইব্রেশনের জন্য ছবিটির মেকি ভাব স্পষ্ট ফুটে উঠেছে । এদিক থেকে তার যত্নবান হওয়া উচিত ছিল । আর শুরুতে একটি অহেতুক ‘আইটেম সং’ দেয়ার কোন প্রয়োজন ছিল বলে আমার মনে হয়নি। যাই হোক ছবিটির আবহসঙ্গীত অসাধারন হয়েছে । সঠিক সময়ে সঠিক ছন্দই মিলেছে ।

সর্বোপরি ভিন্নপটের গল্প ও পরিচালনা ছবিটিকে একটি অন্য রুপ দিয়েছে । আমার মনে হয় এটি সবারই ভাল লাগবে ।

মাঝে মাঝে মনে হয় ভাল মুভি বলতে আমরা কেন শুধু হলিউড কিনবা ভারতীয় বাংলা মুভির নাম মুখে আনি আমাদের নিজেদের দেশের কি কোন ভাল মুভি থাকতে পারে না। ফারুকি, ফাহমিদের মত আমাদেরও কিছু তরুন প্রতিশ্রুতিশীল নির্মাতা আছেন যারা হয়ত একটু প্রেরনা পেলে , সেই দিন হয়তো বেশি দূরে নয় যে দিন আমাদের চলচিত্রও ‘অস্কার’ এর জন্য মনোনীত হবে । আসুন আমরা একটু সপ্ন দেখি, এতে দোষ কোথায় ? আসুন একটু প্রেরনা দেই এগিয়ে যাবার …
স্বপ্নের শুরু হোক এখানেই …

(Visited 75 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন