ঈদের সেরা ১০ টি নাটক(পর্ব ১)-আয়োজনে ”তানিম”
#পর্ব_১
গতবারের মত এই ঈদ এ ও ভালো কাজের ধারাটা বজায় ছিল। তাই এই ঈদ এ ও পেয়েছি অনেক অনেক ভালো কিছু নাটক। গল্পের নাটক।
তাই ছোট্ট করে বলবো এই ঈদ এ আমার দেখা সেরা ৩০ টি নাটক নিয়ে।
পর্ব ১ (১-১০)
——————-
১) কথা হবে তো:
অস্থির সময়ে স্বস্তির গল্প সিরিজে এ কাজটির জন্য অনেক বেশি অপেক্ষিত ছিলাম।
খুবই সাধারণ একটি ভালোবাসার গল্প। চেনাজানা গল্প। আহামরি কিছু নেই। সরলতা, প্রাঞ্জলতা আছে উপস্থাপনে। এই সাধারনত্বের মাঝেও অসাধারণত্ব আছে। এখনকার আট দশটা প্রেমের গল্পের মত নেই কোন কৃত্রিমতা। যা আছে তা শুধুই মুগ্ধতা। নাবিলা, প্রামাণিক এর প্রাণবন্ত অভিনয়।
সৈয়দ আহমেদ শাওকি মুগ্ধ করবেন তা জানা ছিল, তবে এতটা পাবো ভাবি নি আসলেই।
লিংক- Bioscope Live
২) আমরা ফিরবো কবে:
যন্ত্রের সাথে তাল মেলাতে গিয়ে যান্ত্রিক হয়ে পড়া এই আমাদের গল্প। দূরকে নিকট করতে, আপনকে দূরে ঠেলে দিয়েছি। পারিবারিক মূল্যবোধ, দায়িত্ববোধ এর গল্প। শেষের সংলাপগুলো চোখে পানি এনে দিবে। বাস্তব গল্পের সাথে দুর্দান্ত অভিনয় সবার।
কাহিনী, চিত্রনাট্য ও দারুণ পরিচালনা- শাফায়েত মনসুর রানা’র।
৩) গোল্ডেন এ প্লাস:
সবাইকে দিয়ে সবকিছু হয় না, যেমন মানুষ উড়তে পারে না।
কিন্তু এ সত্য অনুধাবন কি আসলেই আমরা করতে পারি?  নিজে যা পারলাম না, তা চাপিয়ে দিলাম সন্তানের উপর। গোল্ডেন এ প্লাস পেতেই হবে। পেতে হবে মানে হবে।
এই ঈদ এর মোস্ট আন্ডাররেটেড একটি নাটক। দুর্দান্ত গল্প, সে গল্পের দারুণ বুনন। দীপক সুমন, দীপান্বিতা মার্টিন সহ সবার অভিনয় আর অসাধারণ সব সংলাপ। আবু শাহেদ ইমন এর দারুণ রিয়েলিস্টিক কাজ।
লিংক-
৪) বুকের ভেতর কিছু পাথর রাখা ভালো:
এক সংগ্রামী নারীর গল্প যেকিনা একজন সিঙ্গেল মাদার ও।
রিয়েলিস্টিক প্রেজেন্টেশান। গল্প, সংলাপ, তিশার দুর্দান্ত অভিনয় ছিল। নতুন পরিচালক তানভীর আহসান এর গল্প বলার ধরনটা বেশ ছিল।
লিংক- Bioscope Live
৫) ক্যাফে ৯৯৯:
ক্যাফেতে আসে প্রতিদিন নানান ধরনের মানুষ। অনেক রকম গল্প তাদের। কিন্তু এই ক্যাফে ৯৯৯ এ আসা গেস্টদের ব্যাক্তিগত সব কথা শুনছে একজন এবং একটা কাগজে অনেক কিছু টুকে রাখছে। কিন্তু কেন?
বেশ ভিন্নরকম একটি গল্প। পুরোটা সময় থ্রিলিং ভাবে এগিয়েছে এবং শেষে দুর্দান্ত একটি মেসেজ ও আছে। বিশাল স্টারকাস্ট এর প্রপার ব্যবহার।
একটি শর্টফিল্ম এর অনুপ্রেরণায় দারুণ গল্প দাঁড় করিয়েছেন এবং একইসাথে চিত্রনাট্য তৈরি, পরিচালনা করেছেন শাফায়েত মনসুর রানা।
৬) হোটেল আলবাট্রস:
হোটেলের কিচেনে বন্দি হয়ে পড়া চার শেফের বাকি উপাখ্যান।
দারুণ স্ক্রিপ্ট, একটু স্লো পেসড হলেও থ্রিল আর সাস্পেন্সে আগ্রহ ধরে রেখেছে পুরোটা সময়। অভিনয় আর অসাধারণ সংলাপ। হোটেলের ওই কিচেনেই পুরো নাটক, আলো আধারি লাইটিং, ব্যাকগ্রাউন্ড আর ক্যামেরার কাজে দারুণ একটা সিনেম্যাটিক আবহ ফুটে উঠেছে।
নুহাশ হুমায়নের কাজে নিজস্ব স্বকীয়তা আছে। সাহসী কাজ।
লিংক: বায়োস্কোপ লাইভ।
৭) স্বৈরাচার কিংবা প্রেমিকা:
স্বৈরাচার এর সেই পাগলাটে পরিচালক আবার এসেছে ফিরে। জীবন মানে খালি চরিত্র চরিত্র খেলা এবার এই খেলায় মেতে উঠেছে ক্ষেপা পরিচালক।
মাহমুদ দিদার গল্প বলার ধরণ বরাবরই ভিন্ন।
কিছু সাদা পালকের গল্প আর কিছু রহস্য, অন্ধকারের গল্প। ডার্ক-ইন্টেন্স থিম, দারুণ ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক, ফুটে উঠেছে কিছু প্রতিকি রূপ। নিশো লুক আর অভিনয়ে আবারো কাঁপিয়ে দিয়েছে। অর্ষা, শার্লিন দুজনেরই অন্যতম সেরা অভিনয় দেখলাম।
৮) মেঘের উপরে:
ছা-পোষা এক কেরানিকে ঘরে গল্পের আবর্তন। ছোট পরিবার চালাতে গিয়েও রীতিমত হিমশিম খায়। ধার করতে করতে বেতনের অর্ধেকটাও ঘরে তুলতে পারে না। কিন্তু অভাবের তাড়নায় গল্পের গতিপথ যে এভাবে বদলাবে কে জানত।
দারুণ বাস্তবিক এবং টাচি একটি গল্প। চঞ্চল আর শিমুর দারুণ অভিনয়।
পরিচালনায়- তাইফুর জাহান আশিক।
৯) মাহুত:
স্বস্তির গল্পের স্বস্তির একটি কাজ। গত ঈদ এর মি. জনির পর প্রানী নিয়ে আরো একটি দারুণ কাজ। অপরাধ, ইমোশান সবই আছে। গল্পের গভীরতা এবং আবেদন যথেষ্ট দারুণ।
রিয়েলিস্টিক প্রেজেন্টেশান নতুন পরিচালক- সূকর্ণ শাহেদ ধীমান এর। চিত্রনাট্য, ইন্টেন্স কালার গ্রেডিং, ক্যামেরার কাজ দারুণ। ঢাকার রাস্তায় এ হাতি নিয়ে শ্যূটিং করা….. কথার কথা না।
লিংক- Bioscope Live
১০) প্রীতিলতাদের দিন:
বিপ্লব তো শুধু মানচিত্র আর পতাকার জন্য নয়,
এ সমাজ, সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ৩ বেলা খাবারের স্বপ্ন সে তো বাস্তব নয় !
এক সাধারণ স্কুলমাস্টার এর মাঝে হঠাৎ জাগ্রত হয় বিপ্লবী স্বত্তা!
ভালো একটি গল্প। গল্পের ফ্লো, চিত্রনাট্য বেশ স্ট্রং ছিল। কয়েকটি সংলাপ বেশ ভালো।
পরিচালনা- গোলাম মুক্তাদির।
————
পর্ব ২ শীগ্রই আসছে।

(Visited 2,230 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন