2015 – চীনা বক্স অফিস , দুনিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

chinese box office

২০১৫ সালে চীনের এন্টারটেইনমেন্ট ইন্ডাস্ট্রি ৬২ বিলিয়ন ডলারের জায়ান্টে পরিণত হয়েছে, চীনা বক্স অফিসে প্রথম ৯ মাসে ৫ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা হয়েছে। এখন হলিউডের মুভিগুলোও চীনের দর্শকদের কথা মাথায় রেখে বানানো হয় , এসময় চীনের স্টুডিও ও ডিস্ট্রিবিউটররাও হলিউডের সাথে জড়িয়ে পড়ে। এভাবে দুনিয়ার অন্যতম বিশাল একটি ইন্ডাস্ট্রিতে পরিণত হয়েছে চীন। এই বছরই চীন তাদের নিজস্ব বক্স অফিস রিপোর্টিং সাইট চালু করেছে যেখানে টিকেটের বিক্রয় ফিগারসহ সব ধরণের তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। অচিরেই এর কলেবর হলিউডকে ছাড়িয়ে যেতে পারে। এজন্য এই বছর চীনের বক্স অফিসের একটি বাৎসরিক রিপোর্ট করছি। only china

প্রথমেই শুধু চীনা প্রোডাকশনের। এই বছরে রেকর্ড গড়েছে স্থানীয় মুভি Monster Hunt $381.86 মিলিয়ন ডলারের ব্যবসা করে।  থ্রিডি ফরম্যাটে বানানো দৈত্য-দানোদের নিয়ে কাহিনী স্থানীয় দর্শকদের ভালোই আকৃষ্ট করেছে। কয়েকমাসের ভিতরেই মুভিটি আমেরিকায় মুক্তি পাবে এমনকি সিনেপ্লেক্সেও এর ব্যানার আমি দেখে এসেছি।

আমি এখন যখন এই রিপোর্ট লিখছি তখন Mojin: The Lost Legend মুভিটি পর পর দুই সপ্তাহে ৯৩ ও ৯৫ মিলিয়ন ডলার আয় করে টপে অবস্থান করছে। মুভিটি চীনা পটভূমিকায় ইন্ডিয়ানা জোন্স ঘরানার। অচিরেই মুভিটি ২০০ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে, কিন্তু জানুয়ারিতে স্টার ওয়ার্সের ইফেক্ট পড়বে কিনা বলা যাচ্ছে না।

Lost in Hong Kong হল চীনা ফ্রাঞ্চাইজ Lost In Journeyর সর্বশেষ সংযোজন, যার দ্বিতীয় মুভিটি ছিল Lost in Thailand; এর আয় $253.6 M । এর পরেই আসে Goodbye Mr. Loser কমেডি, যা থেমেছে $226 M এ । Monkey King: Hero Is Back মুভিটি $153 মিলিয়ন ডলার আয় করে চীনে যে কোন এনিমেশন ফিল্মের সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে যা আগে ছিল কুংফু পান্ডা ২ এর।
china joint

চীন ও অন্য দেশের যৌথ প্রযোজনার মুভির ভেতরে Dragon Blade মুভিটি জ্যাকি চ্যানের ঐতিহাসিক ড্রামা মুভি যা থেকে ৫০ মিলিয়ন ডলার আয় করে এই বছর দুনিয়ার অন্যতম সেরা পারিশ্রমিক প্রাপ্ত অভিনেতাদের তালিকায় ২য় স্থানে আছেন।

এবার আসি হলিউডের মুভি নিয়ে।

china joint

ফিউরিয়াস ৭ এই বছর 390 মিলিয়ন ডলারের রেকর্ড ব্যবসা করেছে চীনে, গত বছরের ট্রান্সফর্মার্স ৪ এর রেকর্ড সহজেই ভেঙে ফেলে ও পর পর ২ সপ্তাহে ১ নম্বরে ছিল। এছাড়া এভেঞ্জার্স ২ ($240M) , জুরাসিক ওয়ার্ল্ড ($228M) , মিশন ইম্পসিবলের ($136M) পাশাপাশি টার্মিনেটর জেনিসিস এর মত ফ্লপ মুভিকে হিট ($112.8M)  বানিয়েছে চীনের দর্শকরা ও এন্টম্যানের মত ঝুঁকিপূর্ণ মুভিকে সুপারহিট ($105M )  করেছে যার প্রেক্ষিতে মার্ভেল এর সিকুয়েলের ঘোষণা দেয়।

[[আর্টিকেলটির তথ্য boxofficemojo.com, variety.com ও উইকিপিডিয়া থেকে সংগৃহীত। দুইটি সূত্রে কিছু তথ্যবিভ্রাট দেখতে পাচ্ছি। ]]


মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন