When enemies rise, when immortality ends, the ultimate battle starts with the hero, the fugitive, the warrior, the survivor, the legend.. The Wolverine
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

Death is not everything. It is more cruel not to be able to die.
মূল গল্পের শুরু জাপানের নাগাসাকিতে,

১৯৪৫ সাল।

আকাশে উড়ছে একটি বি-২৯ বম্বার!
অনবরত বেজে চলেছে এয়ার রেইড সাইরেন।
ভীত-সন্ত্রস্ত জাপানী সৈনিকরা একে একে করছে আপন প্রাণনাশ।
ওইদিকে সব কয়েদিকে ছেড়ে দেয়ার পর,
প্রাণ দিতে অনিচ্ছুক Yashida নামক আতঙ্কগ্রস্ত তরুণ সৈনিক স্থান নিয়েছে কয়েদকৃত অমর মিউট্যান্ট Wolverine (Logan) এর জন্য তৈরি সুরক্ষিত এক ভূমি-অভ্যন্তরীস্থ কারাগারে,
কি আছে তাঁর কপালে?

2

এর পর ঘটে গেছে অনেক কিছু।

একবিংশ শতাব্দী।

X-Men: The Last Stand এরও পরের ঘটনা, Jean Grey এর মৃত্যুর পর Logan চলে এসেছে কানাডার এক বিজনপ্রদেশে,
নিরুপায় হয়ে প্রিয়জনকে (Jean Grey) হত্যার সেই হৃদয়বিদারক স্মৃতি আর ১৯৪৫ সালে তারই উপস্থিতিতে ঘটে যাওয়া সেই নাগাসাকি বিস্ফোরণ আজও তাকে তাড়া করে বেড়ায়। Yukio নামক এক জাপানি তরুণী তাকে নিয়ে যায় মৃত্যুশয্যায় শায়িত সেই Yashida‘র কাছে, তাঁর শেষ ইচ্ছা পূরণ করতে ।

3

বর্তমান জাপানের সবচেয়ে শক্তিশালী টেক-জায়ান্ট কোম্পানির মালিক মুমূর্ষু Yashida কি চায় তাঁর কাছে এত বছর পর?

4

সেটা নাহয় আমিই বলে দিচ্ছি,
Jean-কে হত্যার পর, সহিংসতা-মারামারি থেকে বিরত থাকবে! এই শপথ করা করা Logan-কে মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্তে Yashida অনুরোধ করে তাঁর নাতনি Mariko-র দেখাশোনার করতে,

5

যাকে সে ব্যক্তিগতভাবে তাঁর অবর্তমানে পারিবারিক সকল ব্যবসা দেখাশোনার জন্য নির্বাচিত করে রেখেছে।

আকস্মিকভাবে Yashida‘র পারিবারিক সহিংসতায় জড়িয়ে পড়ায় ঘটতে শুরু করলো নানা ঘটনা।

Yashida‘র অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে রুফ-টপ থেকে উঁকিঝুঁকি মারছে কে?

6

সোনালি চুলের রহস্যময় ওই রূপসীই বা কে?

7

অজ্ঞাত কোন কারনে Logan হারিয়ে ফেলছে তাঁর হিলিং পাওয়ার।
এর পিছনে রহস্য কি?

10

সত্যিই কি শুধু নাতনির দেখাশোনার জন্যেই এত বছর পর Logan-কেই প্রয়োজন পড়ল Yashida’র ?

প্রশ্নগুলোর উত্তর মেলাতে দেখতে বসে যান…

The Wolverine

1

20th Century Fox এর প্রোডাকশনে, মার্ভেল কমিকস চরিত্র ‘Wolverine’ কে নিয়ে তৈরি এই আমেরিকান-অস্ট্রেলিয়ান সুপারহিরো চলচ্চিত্রটির পরিচালনায় ছিলেন James Mangold
স্ক্রিপ্ট লিখেছেন Mark Bomback এবং Scott Frank

অভিনয়ে ছিলেন Hugh Jackman, Tao Okamoto, Hiroyuki Sanada, Rila Fukushima, Famke Janssen,
Will Yun Lee, Svetlana Khodchenkova, Haruhiko Yamanouchi এবংBrian Tee।
পরিচালককে নিয়ে তেমন কিছু বলার নেই আসলে,
সত্যি কথা বলতে 3:10 to Yuma দেখার আগ পর্যন্ত তাঁর অস্তিত্য সম্পর্কে আমি অবগত ছিলাম না
James Mangold, একজন আমেরিকান চলচ্চিত্র পরিচালক এবং চিত্রনাট্যকার।
তাঁর জন্ম ১৯৬৩ সালের ১৬ ই ডিসেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটিতে।
আমেরিকায় জন্মগ্রহণকারী স্কটিশ পরিচালক Alexander Mackendrick ছিলেন তাঁর মেন্টর।
Hudson River Valley-তে বেড়ে ওঠা ৪৯ বছর বয়সী এই পরিচালকের চলচ্চিত্র জগতে পদার্পণ Heavy-নামক এক রোম্যান্টিক-ড্রামা দিয়ে,
যার পরিচালনা ছাড়াও চিত্রনাট্যে ছিলেন তিনি নিজেই।
তাঁর পরিচালিত উল্লেখযোগ্য চলচিচত্রগুলো হচ্ছে, Walk the Line, Girl, Interrupted, to Yuma এবং এতক্ষণ যা নিয়ে বলছিলাম সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত The Wolverine।

এবারে আসা যাক হিউ জ্যাকম্যনের কাছে,
Hugh Michael Jackman
১২ই অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে জন্ম নেয়া একজন চলচ্চিত্র অভিনেতা এবং প্রযোজক, যিনি চলচ্চিত্র ছারাও জড়িত আছেন মিউজিকাল থিয়েটার, এবং টেলিভিশনে।
আমাকে যদি জিজ্ঞেস করা হয় আপনার চোখে শ্রেষ্ঠ কয়েকজনের অভিনেতার নাম বলুন প্রথম ১০ জনের ভেতরে আমি অবশ্যই হিউ কে রাখবো, (আমার ফ্যাবারিট লিস্ট একটু বড় কিনা।)
স্বয়ং অস্কার আজও যার খুঁজ পায়নি আর আদৌ হিউ’র হাঁতে শোভা পাবার সৌভাগ্য তাঁর হবে কিনা! তাকে নিয়ে আমি আর কি বলব। (তবে বলা শুরু করলে তা শেষ করতে পারবনা)

নবেম্বর ২০০৮, Open Salon তাকে উপাধি দেয় ‘One of the sexiest men alive’ পরবর্তীতে একইমাসে People magazine তাকে একই স্বীকৃতি দেয়।
গতবছর ডিসেম্বরে তাকে ‘A star on Hollywood’s Walk of Fame’ এর সাথে সম্মানিত করা হয়।
আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র জগতে তিনি পরিচিতি পান সুপারহিরো এবং রোম্যান্টিক চরিত্র দিয়ে।
কিংবদন্তী এই প্রতিভাবান অভিনেকে পর্দায় Law of the Land এর টেলিভিশন শো’তে Charles ‘Chicka’ McCray নামকে ছোটখাটো চরিত্রে প্রথম দেখা গেলেও,
মুলত অভিনয় জীবন শুরু টেলিভিশন শো Correlli দিয়ে।
X-Men ফিল্ম সিরিজের Wolverine পরিচিতি ছাড়া তাঁর উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র- Kate & Leopold, Van Helsing, The Prestige, Australia, Real Steel, Les Misérables এবং Prisoners।
Les Misérables এর চমকপ্রদ অভিনয় তাঁর জন্য নিয়ে এসেছে তাঁর প্রথম শ্রেষ্ঠ অভিনেতার একাডেমি পুরস্কার মনোনয়ন এবং শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে তাঁর প্রথম গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার (মিউজিকাল বা কমেডি চরিত্রের জন্য) ।

চলচ্চিত্র, সঙ্গীত, টেলিভিশন- এত কিছুর সাথে জড়িত এই ব্যক্তিকে নিয়ে বলতে গেলে আসলে অনেক কিছুই বলা লাগবে।

আমি আর কিছু বলবনা। (আপানদের মধ্যে প্রায় সবাই এর থেকে ঢের জানেন):/

The Wolverine (2013)

The_Wolverine_posterUS

IMDB: www.imdb.com/title/tt1430132/‎
Rating: 6.9/10 – ‎110,848 votes

Rottentomato: www.rottentomatoes.com/m/the_wolverine_2012
Tomatometer: 69%
Average Rating: 6.3/10
Audience: 72%
Average Rating: 3.7/5

My Ratings: 6/10

সত্যি কথা বলতে চলচ্চিত্রটি আমাকে কিছটা হতাশ করেছে।
যে আকাঙ্খা নিয়ে দেখতে বসেছিলাম তাঁর আংশিক খালি রয়ে গেছে।
তবে আপনাদেরকে অনুৎসাহিত করছিনা।
আমার আকাঙ্খা পুরপুরি পূরণ হয়নি বলে যে আপনারটা হবেনা এই গ্যরান্টি কেমনে দিব?

আর হ্যাঁ, মুভি শেষ হওয়ার পর টেনে নিয়ে যান ০২:০৯:১৬-তে। অপেক্ষা করছে অন্যরকম একটি চমক!

 

Whatever Happens, The Hero will Rise again and again.

Download Link:

Encoder: ShAaNiG (EXTENDED 720p & 1080p BluRay-SPARKS Source)

.::720p::.
Torrent: http://www.shaanig.com/attachments/944d1383910561-.wolverine.2013.extended.720p.bluray.999mb.shaanig.com.mkv.torrent
Direct: http://www.putlocker.com/file/2C372C0F3C371FE9

.::1080p::
Torrent: http://www.shaanig.com/attachments/947d1383912899-.wolverine.2013.extended.1080p.bluray.x264.shaanig.com.mkv.torrent
Direct:
Part 1- http://www.putlocker.com/file/CBC4162CEE5DC741
Part 2- http://www.putlocker.com/file/5A5452831565CC4A

এই পোস্টটিতে ৫৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. James Bond says:

    ভালো হয়েছে। চালিয়ে যান 🙂

  2. রীতিমত লিয়া says:

    খুব ভাল।

  3. প্রফেসর মরিয়ার্টি says:

    খুব করে থাঙ্কস।

  4. অ্যান্থনি এডওয়ার্ড স্টার্ক says:

    পোস্ট ভালই হয়েছে। কিন্তু কমেন্টে এসব কী হচ্ছে? মডু কই? এইসব দ্যাখেনা কেন? -_-

  5. টাইলার ডারডেন says:

    ব্রু , মুভি দেখিনাই । তোমার লেখা ডে বাই ডে নাইট বাই নাইট উপরের লেভেলে জাইতছে । ক্যারি অন

  6. প্রফেসর মরিয়ার্টি says:

    অসংখ্য ধন্যবাদ ব্রু 🙂

  7. পথের পাঁচালি পথের পাঁচালি says:

    আপনার লেখা ভালো তবে টাইটেলে ইংলিশের ব্যবহার একটু চোখে লাগছে। বুঝতে পারছি মুভির লাইন তুলে ধরেছেন তবু। আর লেখার ভিতরেও অনেক ইংলিশের ছড়াছড়ি। বাংলা ব্লগে বাংলার ব্যবহার বেশি হলেই ভালো। কিছু মনে করবেন না।

    • প্রফেসর মরিয়ার্টি says:

      নাহ! কিছু মনে করবো কেন! ইংলিশের ছড়াছড়ি কারনটা আগের পোস্টে বলছিলাম, যে নাম গুলো বাংলা লেখতে কষ্ট হয় তাই নাম গুলো ইংলিশে লিখছি , ধরুন আমি লিখব Wolverine সেটা লিখতে হবে অলভারিন বা ওভারিন দেখতে কেমন কেমন জানি একটু লাগে তাই নাম গুলো ইংলিশেই লিখি আর টাইটেলটার ব্যপার হল পোস্টটা তাড়াহুড়া করে লিখছি তাই এর থেকে ভাল কিছু মাথায় আসেনি।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন