Miracle in Cell No. 7 [2013], ‘হত্যার দায়ে দণ্ডিত ফাঁসির আসামি একজন বাবার গল্প’।
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

> > > ছয় বছর বয়সের একটি ফুটফুটে বাচ্ছামেয়ের গল্প।। মেয়ে তার বাবার কাছে বায়না ধরে Sailor Moon এর কার্টুন আঁকা একটি স্কুল ব্যাগের জন্য।

fullsizephoto268772

বাবা ব্যাগ নিয়ে ফেরার পথে ঘটে এক অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা। সহজ-সরল ও মানসিক প্রতিবন্ধী Yong-Goo তার মেয়ের জন্য ব্যাগ কিনতে দোকানে গিয়ে দেখা হয় তার মেয়ের বয়সী একটি মেয়ের সাথে যার কাঁধেও ঝুলানো থাকে Sailor Moon এর ব্যাগ। রাস্তায় তুষার পাত থাকায় মেয়েটি পিছলে পড়ে অচেতন হয়ে গেলে Yong-Goo তাকে উষ্ণতা দিয়ে বাঁচানোর চেষ্টা করে।  এমন সময় এক মহিলা তা দেখে ফেলে আর মেয়েটি ছিলো একজন প্রভাবশালী পুলিশ কমিশনারের। তারই রেশ ধরে অপহরণ, হত্যা এবং ধর্ষণের মামলা হয় Yong-Goo এর নামে। মৃত্যুদন্ডে দণ্ডিত(sentenced to death)হয়ে থাকতে হয় কারাগারে, Cell No. 7 এ। সেই cell no.7 এ দুই গ্রুপের মধ্যে চলমান দলীয় ক্রোন্দলের সূত্রপাতে একদিন Yong-Goo তার cell এর দলনেতা কে বাঁচায়। তারই বদৌলতে দলনেতা Yong-Goo কে কিছু একটা চাইতে বলে। বিনিময়ে Yong-Goo তার ছোট্ট মেয়ে Ye Seung কে দেখতে চায়। দলের সবার প্রচেষ্টায় কৌশলে একদিন  Ye Seung  আসে কারাগারে। কারাগারে ওই Cell no. 7 এ সবার সাথে ছোট্ট Ye Seung এর ঘটতে থাকা হাসি কান্নার টুইস্ট গুলো দিয়েই এগিয়ে যেতে থাকে মুভির কাহিনী।

maxresdefault

একদিন কারাগারে আগুন লাগে, নিশ্চিত পুড়ে মারা যাওয়া থেকে কারাপ্রধান কে রক্ষা করে Yong-Goo । কারাগারের কয়েদি থেকে কারাপ্রথান সবাই আসল ঘটনা জানতে পারে, জানতে পারে Yong-Goo আসলে নির্দোষ। বিনা কারণে সে জেল খেটে যাচ্ছে আর তার ফাঁসির দিনও ঘনিয়ে আসছে । কারাপ্রধান আর Cell No. 7 এর সকল কয়েদি মিলে চেষ্টার কোন ত্রুটি রাখে না Yong-Goo কে ফাঁসি থেকে বাঁচানোর জন্য । কারন Yong-Goo মানসিক দুর্বলতা আর প্রতিবন্ধীতা এবং Ye Seung মেরে ফেলার হুমকি আদালতে Yong-Goo এর মুখ থেকে প্রকৃত সত্যটুকু বেরিয়ে আনতে পারে না।

কারাগারের কারারক্ষীদের চোখকে ফাঁকি দিয়ে কিভাবে Ye Seung তার বাবার কাছে আসে একবার নয়, দুই দুইবার ?

কারাগার থেকে Ye Seung কীভাবে আবার বেরিয়েই বা গেলো ??

Ye Seung এর সহজ-সরল বাবা Yong-Goo এর কি ফাঁসি কার্যকর হয়েছিল ???

প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজতে দেখে ফেলুন IMDB তে 8.2 রেটিং পাওয়া জনপ্রিয় এই সাউথ কোরিয়ান মুভিটি। মুভি দেখা শেষ হয়ে গেলেও আপনার মনে এর রেশ থেকে যাবেই। ছোট্ট মেয়ে Ye Seung এর অঙ্গভঙ্গি গুলো কিছুতেই মন থেকে ফেলতে পারবেন না। বিশেষ করে কারাগারে Sailor Moon ব্যাগ পেয়ে Ye Seung তার বাবার প্রতি ভীষণ খুশি আর বিনম্র শ্রদ্ধায় ‘আপ্পা’ ডাকটি মুখ গোল করে মুখ থেকে বের করে সেই দৃশ্যটি।

Kal-So-Won-2

যারা ইংলিশ সাবটাইটেল দিয়ে মুভি বুঝতে কষ্ট হয় তারা চাইলে মাতৃভাষা বাংলা সাবটাইটেলে খুব ভালো ভাবে মুভিটি উপভোগ করে নিতে পারেন।

বাংলা সাবটাইটেল লিংকঃ bangla subtitle

Miracle in Cell No. 7 (2013)
Miracle in Cell No. 7 poster Rating: 8.2/10 (6,569 votes)
Director: Hwan-kyung Lee
Writer: Hwan-kyung Lee (screenplay), Yeong-ah Yoo (screenplay), Hwang-sung Kim (screenplay), Young-seok Kim (screenplay)
Stars: Seung-ryong Ryu, So Won Kal, Dal-su Oh, Man-sik Jeong
Runtime: 127 min
Rated: N/A
Genre: Comedy, Drama
Released: 23 Jan 2013
Plot: A story about love between a mentally ill father and his lovingly adorable daughter. Which is her father, accused of murder and rape.

এই পোস্টটিতে ১৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Sarah Naz says:

    1 of the most favorite movie. যতবার দেখেছি ততবার কেঁদেছি

  2. Rk Nahid says:

    যারা “I’m Sam” মুভিটা দেখেছে, তাদের কাছে মুভিটা অন্য রকম স্বাদের মনে হবে ৷ কারন দুইটা মুভির স্টোরি রুট একই, তবে কাহিনী কিন্ত সম্পূর্ণ আলাদা ৷

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন