THE OTHERS (কতটা জানেন নিজেকে?)
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

রিভিউ শুরু করব মুভির জেনর দিয়ে। কোন জেনরের মুভি আপনার পছন্দ? আলাদা করে বলতে পারছেন না? কোন সমস্যা নাই। এই মুভি দেখতে শুরু করেন… আমার গ্যারান্টি … আপনার পছন্দের জেনরের ছোঁয়া পাবেনই 😀 । ভাবছেন আমি কেন গ্যারান্টি দিচ্ছি? সেটা মুভি দেখার পরই বুঝবেন (আর না হলেই বা কি করবেন? আমারে কই পাচ্ছেন?) 😉 । এবার আসুন মুভির রিভিউ শুরু করি সেই চিরায়ত নিয়মে..

*** আলোচনা অংশঃ

চিন্তা করুন ও এমন একটা হরর ফিল্ম এর কথা যেখানে কোন রক্তারক্তি নেই, নেই কোন বীভৎস দৃশ্য দেখিয়ে অযথা ভয় দেখানোর চেষ্টা, অথবা কোন সস্তা যৌনতা। কি? পারছেন না মনে করতে? পারবেন আজকের পর থেকে পারবেন। অথবা চিন্তা করুন তো এমন একটি মুভির কথা যা প্রায় ১টি জায়গায় ধারণ করা হয়েছে কিন্তু মুভি দেখার সময় বিষয়টি হয়ত আপনি খেয়ালই করেন নি। মনেMV5BMTY2MjU4NTk0OF5BMl5BanBnXkFtZTcwMDk1MzU5Ng@@._V1_SX640_SY720_ আসতে পারে 12 Angry Men এর কথা। আবার আমার গ্যারান্টির পালা। আজকের পর থেকে সেই সংক্ষিপ্ত তালিকায় আরেকটি নাম যোগ হচ্ছে। 😉

Goya পুরষ্কার এ এই মুভি সেরা পরিচালক এবং সেরা ফিল্ম সহ মোট ৮ টি পুরষ্কার জিতে নেয়। এটিই প্রথম কোন ইংরেজী ভাষার মুভি যা Goya পুরষ্কার (স্পেন এর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার) পায় যদিও মুভিতে একটি কথাও ইংরেজী ছাড়া বলা হয় নি। এছাড়াও Saturn Awards এ ছয়টি category তে মনোনয়ন পায় যার মধ্যে তিনটিতে পুরষ্কার জিতে নেয়। আরও আছে… Nicole Kidman এই মুভির জন্য গোল্ডেন গ্লোব এ মনোনয়ন পায়….। হাঁপিয়ে গেলাম… আপনাদেরও বিরক্ত করছি… তাই আর বলব না। 😯

এইবার একটু কাহিনী বলতে হয়… ভয় পাবেন না… আপনাদের মুভি দেখার মজা নষ্ট করব না। 😉

index

সময় তখন ১৯৪৫ সন। এক পরিত্যক্ত বাড়িতে বসবাস করত এক জনৈকা মহিলা… সাথে থাকে তার ২ ছেলে মেয়ে। স্বামী আছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে। মহিলার যন্ত্রণার শেষ নাই। একে তো কাজের লোক নেই বলে এত বিশাল বাড়ির কাজ এক হাতে সামলাতে হয় তার উপর তার আছে বিশেষ রোগে (xeroderma pigmentosa) আক্রান্ত দুইজন বাচ্চা। (আমার মত আপনারও কি দাঁত ভাঙ্গছে ?? তাহলে বলি, এই রোগ হইলে পোলাপান রোদে যেতে পারে না… চামড়া পুড়ে যায়)… যাকে শুদ্ধ বাংলায় বলে অসূর্যস্পশ্যা। তার উপর আবার মরার উপর খাড়ার ঘা হিসেবে আছে এই বাচ্চাদের অসম্ভব ভুতের ভয়। এই মহিলা অত্যন্ত ধার্মিক প্রকৃতির… সে নিজে তার বাচ্চাদের বাইবেল পড়ায় আর বিভিন্ন পাপ কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য বলে 😕 । একদিন তার বাসায় কাজ করার জন্য আসে ৩ জন লোক। এরপর থেকে শুরু হয় আসল ঘটনা…    ওমা? আপনারা এখনও ঘটনা পড়বেন বলে বসে আছেন? তাহলে আর মজা থাকল কোথায়? এরপর একে একে আপনার জন্য এমন কিছু থাকছে তাতে আপনারা স্থাণুর মত বসে থাকতে বাধ্য হবেন…। আর নড়াচড়া যাতে মোটেও না করতে পারেন তার জন্যই কাহিনী আর বললাম না। 😉

*** সমালোচনা অংশঃ

প্রথমেই আসি অভিনয়ে……। Nicole Kidman হলিউডের একজন নামী অভিনেত্রী। তবে দুঃখজনক হলেও সত্যি আজ পর্যন্ত তার বলার মত অভিনয় খুব কম মুভিতেই দেখেছি 😡 । আমার মত কারও যদি এই ধারনা থেকে থাকে তাকে আমি এই মুভি দেখার জন্য বলব। আমার দেখা সেরা অভিনয় করেছে সে এইখানে। তিনি তার চরিত্র এত ভাল ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন যে আপনি নিজেও তার আবেগ অনুভূতি গুলো চাইলেই হাত দিয়ে ছুঁয়ে দিতে পারবেন। এরপর আসি বাচ্চাদের অভিনয়ের কথাতে। মেয়ে চরিত্রে Alakina Mann খুব যে ভাল অভিনয় করেছে এমন কিন্তু নয়। তবু প্রথম ছবি হিসেবে তার অভিনয়কে কোন ভাবেই খারাপ বলা যায় না। আর ছেলে চরিত্রে James Bentley এক কথায় অসাধারণ। এটি তার প্রথম মুভি তা আমি বলে দিলাম বিধায় আপনারা বুঝতে পারবেন। এত ভাল অভিনয় করতে অনেক দিন লেগে যায়। আমি এর ভক্ত হয়ে গেলাম এক মুভি দেখেই 😀 । এর পর আছে কাজের লোক হিসেবে Fionnula Flanagan এর অভিনয়। অসম্ভব সুন্দর অভিনয় করেছেন উনি বরাবরের মত। বাগান রক্ষক চরিত্রে Eric Sykes  ও ছিলেন উপযুক্ত। তবে বাকী চরিত্র গুলি অতটা ভাল লাগে নি। তবে ভয় পাবেন না তারা শুধু আসা যাবার জন্যই মূলত মুভিতে আছে। 😀

এবার আসি অন্যান্য দিক নিয়ে…। ছবিতে ডার্ক ইফেক্ট যারা পছন্দ করেন তাদের ছবিটা বেশ ভাল লাগবে বলে মনে হয়…ডার্ক ইফেক্ট বেশ ভাল ভাবেই ব্যবহার করা হয়েছে এখানে। গল্প আমার দারুণ পছন্দ হয়েছে। আর পরিচালনা তো এক কথায় অসাধারণ। হরর মুভিতে আবেগ ফুটিয়ে তোলা খুবই কঠিন কাজ। এটি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে করেছেন পরিচালক। তবে ক্যামেরার কাজ আমার মনের মত হয়নি… এত ভাল মুভিতে সামান্যতম খুঁতও চোখে পড়ে। তাই ক্যামেরার কাজে আরও যত্নশীল হওয়া উচিৎ ছিল। তবে সিনেমাটোগ্রাফীতে Javier Aguirresarobe আমার কাছে এ+ নাম্বার পাবে। তার কাজ প্রশংসা করার মত হয়েছে।

আরও একটি দিক হল মুভিটি প্রথম দিকে একটু ধীর ধরনের। এই কারনে অনেকের কাছে প্রথম দিকটা বোরিং লাগতেও পারে। তবে কথা দিচ্ছি একবার মূল ঘটনা শুরু হবার পর আপনি নিঃশ্বাস নিতেও ভুলে যেতে পারেন।

হরর মুভি নিয়ে অনেকের একটু দোদুল্যমান ভাব থাকে। তবে জগত-খ্যাত পরিচালক Stanley Kubrick এর জগত-খ্যাত মুভি The Shining এর সাথে যার তুলনা করেছেন অনেক মুভি বোদ্ধা তার মান নিয়ে কোন ধরনের সন্দেহ থাকলে তা ঝেড়ে ফেলে দেবার জন্য বলছি। একে আপনি শুধু আরেকটা অতিপ্রাকৃত থ্রিলার মুভি ভাবলে ভুল করবেন। এটি আমার দেখা সেরা হরর মুভির তালিকাতে উপরের দিকে থাকবে। এখনও যদি আপনারা কেউ এই মুভি না দেখে থাকেন তাহলে আর একটা কথাও না বলে দেখতে বসে যান। না হয় মিস করবেন অনেক কিছু…। 😉

*** রিভিউয়ারের রেটিং- 

গল্প এবং চিত্রনাট্যঃ ২.৫/৩

পরিচালনাঃ ২.১/২.৫

অভিনয়ঃ ২.২/২.৫

মিক্সিং (শব্দ এবং দৃশ্য)ঃ ১.৬/২

মোটঃ ৮.৪/১০…………

ডাউনলোড লিঙ্কঃ

ব্লুরে ৭২০ পি টরেন্ট

>উপভোগ করুন<

The Others (2001)
The Others poster Rating: 7.6/10 (239806 votes)
Director: Alejandro Amenábar
Writer: Alejandro Amenábar
Stars: Nicole Kidman, Fionnula Flanagan, Christopher Eccleston, Alakina Mann
Runtime: 104 min
Rated: PG-13
Genre: Horror, Mystery, Thriller
Released: 10 Aug 2001
Plot: A woman who lives in a darkened old house with her two photosensitive children becomes convinced that her family home is haunted.

এই পোস্টটিতে ৬ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Yunus Ali says:

    The Sixth Sense is also the one of the best in this genere.

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন