স্মৃতির পাতায় মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র “হাঙর নদী গ্রেনেড (১৯৯৭)”!!!

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে নির্মান করা সিনেমার মধ্যে আমার অন্যতম প্রিয় একটি সিনেমা হচ্ছে ১৯৯৭ সালে মুক্তি পাওয়া “হাঙর নদী গ্রেনেড” নামক সিনেমাটি। ছোটবেলায় স্বাধীনতা দিবস অথবা বিজয় দিবসে বিটিভিতে প্রায় এই সিনেমাটি সম্প্রচারিত হত বলে অনেকবার দেখা হয়েছে। তখন সিনেমাটির নামও জানতাম না ভাল করে কিন্তু সিনেমা দেখার সময় এক প্রকার ভাল লাগা,আবেগ, মুক্তিযুদ্ধ চেতনা কাজ করতো ভিতরে। এখনো স্পষ্ট চোখের সামনে ভাসে সুচরিতার সেই দুজন তরুণ মুক্তিযুদ্ধা কে বাঁচানোর জন্য নিজের বোবা ছেলে “রহিজ/রইজ” কে পাকসেনাদের হাতে তুলে দেয়ার সেই বিষাদময় দৃশ্যটি। এই দৃশ্যটা আসার সময় আমার মা প্রতিবারই কেঁদে দিতেন। আজ হঠাৎ সিনেমাটির কথা মনে পরে গেল। নিশ্চিত বলা যায় ৯০ দশকে অথবা কাছাকাছি সময়ে যাদের জন্ম তাদের এই সিনেমাটি অনেকবার দেখেছেন।
Cover_hangornodigranade
সিনেমাটিতে মুক্তিযুদ্ধ কে অসাধারণ ভাবে ফুটিয়ে তুলার পাশাপাশি আবহমান গ্রাম বাংলার দৃশ্য গুলোও দেখার মত ছিল। কৃষক চরিত্রে সোহেল রানার হাল চাষ করা, চার দিয়ে মাছ ধরা অথবা “বুড়ি” চরিত্রে গ্রামের চঞ্চল-তরুণীর সারা গ্রামে বয়ে বেরানো, বৈরাগীনি চরিত্রে অরুনা বিশ্বাস সহ আরো অনেক গ্রাম বাংলার সচিত্র দেখানো হয়েছে খুব সুন্দর ভাবে।

প্রয়াত পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম এই সিনেমার জন্য শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। প্রথমে সেলিনা হোসেন এর বিখ্যাত উপন্যাস “হাঙর নদী গ্রেনেড” অবলম্বনে সত্যজিৎ রায় সিনেমাটি নির্মাণ করতে চেয়েছিলেন কিন্তু পরে বিভিন্ন কারনে আর করা হয়নি। পরবর্তিতে লেখিকা সেলিনা হোসেন এর সাথে আলোচনা করে চাষী নজরুল ইসলাম সিনেমাটি নির্মান করেন।

হাঙর নদী গ্রেনেড (১৯৯৭)
পরিচালনাঃ চাষী নজরুল ইসলাম
গল্পঃ সেলিনা হোসেন
অভিনেতাঃ সোহেল রানা,চম্পা,সুচরিতা,অরুনা বিশ্বাস, রাজীব,মিজু আহমেদ প্রমুখ।

ইউটিউব লিংকঃ

(Visited 317 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন