Fullmetal Alchemist (Anime) – Guaranteed Entertainment
1235549_10201358045786292_1045090493_n

Edward Elric, The Fullmetal Alchemist

Alchemy, পদার্থের গঠন বোঝার, ভেঙ্গে ফেলার এবং নতুন করে ভিন্ন কিছু গড়ার বিজ্ঞান। বেশ ছোটবেলা থেকেই এই রহস্যময় বিজ্ঞানে পারদর্শী হয়ে উঠেছিলো দুই ভাই, এডওয়ার্ড এলরিক (বয়স-১১) এবং এলফনস এলরিক (বয়স-১০).

ছোটবেলায় বাবা তাদেরকে ছেড়ে চলে গিয়েছিলো, আর এখন জটিল কোন এক রোগে ভুগে মা মারা গেলো………….. দুই ক্ষুদে বিজ্ঞানী প্রতিজ্ঞা করলো, যে কোনভাবেই হোক, মা’কে মৃত্যুর ওপার থেকে হলেও ফিরিয়ে আনতে হবে। শুরু হলো আলকেমির মাধ্যমে তাদের কঠিন সাধনা। কিন্তু বিধি বাম, বিক্রিয়া শুরু করার পর একটা দুর্ঘটনা ঘটে গেল। আলকেমি’র বেসিক প্রিন্সিপ্যাল হচ্ছে, কিছু পেতে হলে সমমানের কিছু বিসর্জনও দিতে হবে। তারা তখনো এই প্রিন্সিপ্যালের সম্পূর্ণ প্রায়োগিক খুঁটিনাটি বুঝে উঠতে পারেনি। মা-কে ওপার থেকে ফিরিয়ে আনার স্বপ্ন তো পূরণ হলোই না, বরং বড় ভাইয়ের বাম পা আর ছোট ভাইয়ের পুরো শরীর’টাই চলে গেলো ওপারে। নিজের ডান হাত বিসর্জন দিয়ে হলেও ছোটা ভাইয়ের আত্মা’টা একটা বর্মের সাথে এটাচ করে ধরে রাখলো এডওয়ার্ড !!!

Alphonse Elric

Alphonse Elric

বিধ্বস্ত, পরাজিত, মেটাল হাত-পা লাগানো এডওয়ার্ড; কিন্তু চোখে আগুন। রক্ত-মাংসের শরীরবিহীন ভাইয়ের দিকে তাকিয়ে শপথ নিলো সে- যে করেই হোক, নিজেদের আসল শরীর ফেরত পেতে হবে। এই প্রতিজ্ঞায় যাত্রা শুরু করলো দুই ভাই……

The Elric Brothers

The Elric Brothers

 

শরীর হারানোর কয়েক দিন পর Roy Mustang নামে এক স্টেট আলকেমিস্ট ওদের বাড়িতে আসে এবং এডওয়ার্ড-কে স্টেট আলকেমিস্ট হিসেবে মিলিটারিতে জয়েন করতে পরামর্শ দেয়, যেন সে নিজের এবং এল-এর আসল শরীর ফিরে পাবার উপায় খুঁজে পায়। স্টেট আলকেমিস্ট হচ্ছে Military Certified Alchemist, যারা দেশের বিভিন্ন মিলিটারি ইমার্জেন্সিতে তাদের আলকেমি’কে কাজে লাগাতে বাধ্য। বিনিময়ে তারা রাষ্ট্রের সকল লাইব্রেরি, গবেষণাগারে যাওয়ার অনুমতি পেয়ে যায়। কঠিন পরীক্ষায় উতরে যায় এডওয়ার্ড, রাষ্ট্রের সবচাইতে কমবয়সী স্টেট আলকেমিস্ট হিসেবে মিলিটারিতে যোগ দেয় সে……

দুই ভাই জানতো, থিওরেটিক্যালি একটা উপায় আছে যার মাধ্যমে ওরা নিজেদের শরীর ফেরত পেতে পারে, ফিলসফার স্টোন। কিন্তু এটা কি আসলেই বাস্তবে আছে কোথাও? নাকি এটা জাস্ট একটা কিংবদন্তী? যাত্রার শুরু এখানে…………… কোথায় যে গিয়ে ঠেকবে, নিঃসন্দেহে কল্পনার বাইরে !!

FULLMETAL ALCHEMIST BROTHERHOOD

দুটো সিজন আছে এটার। প্রথমটা Fullmetal Alchemist (৫১ পর্ব), দ্বিতীয়টা Fullmetal Alchemist Brotherhood (৬৪ পর্ব). দুটোই একই জায়গা থেকে শুরু হয়, তাই সেকেন্ড সিজনের প্রথম দিকে একটু হোঁচট খেতে পারেন। কিন্তু এগিয়ে যান, ১৪তম পর্বেই কাহিনীর মোড় ঘুরে যাবে, একেবারে ভিন্নভাবে শেষ হবে কাহিনী। তাই, ব্রাদারহুডকে সেকেন্ড সিজন না বলে রিমেক বলাই উত্তম !!

Fullmetal Alchemist Brotherhood, the best among the bests

Fullmetal Alchemist Brotherhood, the best among the bests

ব্যাপারটা হচ্ছে এমন- এই এনিমে বানানো হয়েছে manga (comics) থেকে। অরিজিনাল লেখিকা Hiromu Arakwa যখন চল্লিশটি চ্যাপ্টার লিখেছে, তখন এক এনিমে কোম্পানি ওকে অফার করলো এটা থেকে এনিমে বানানো যায় কিনা। তখন আরাকাওয়া বললো যা তার লেখা এখনো অনেক বাকি, অবশ্য ইচ্ছা করলে ওরা এই চল্লিশ চ্যাপ্টার নিয়ে বাকিটা নিজেরা লিখে বানাতে পারে, কিন্তু সে তার নিজস্ব লেখা চালিয়ে যাবে। এভাবেই প্রথমটা বানানো হলো।

কিন্তু অরিজিনাল রাইটার এর মাথায় যা ছিলো, সেটা যখন বের হলো, তখন দেখা গেলো যে এটা আরো আরো মাত্রাতিরিক্ত রকম ভালো এবং এটা নিয়ে ডেফিনিটলি আরেকটা এনিমে বানানো যায়। আরাকাওয়া মোট ১০৮ চ্যাপ্টার লিখেছিলো, তার সময় লেগেছিলো সর্বমোট নয় বছর, প্রতিমাসে একটা চ্যাপ্টার। ফার্স্ট সিজনে যদি ৫১টা পর্ব থাকে, তাহলে ব্রাদারহুডে ৫১টা নতুন পর্ব আছে (প্রথম ১৩ টার পর)……

আমার কাছে (এবং এ পর্যন্ত যাকেই দেখিয়েছি, তাদের সবার কাছেই) “ব্রাদারহুড” মাত্রাতিরিক্ত রকম জোস লেগেছে। সেকেন্ড সিজনটা আমার জীবনের দেখা ONE OF THE BEST ENTERTAINMENTS. ফ্যামিলিয়ার হওয়ার কারণে প্রথম ১৩টা পর্ব দেখতে দেখতে একটু দ্বিধা লাগলেও ১৪তম পর্ব থেকেই মাথার চুল ছিঁড়বেন উত্তেজনায়……

প্রতিটা চরিত্রের একটা আলাদা tone আছে। সেকেন্ড সিজনের সব কয়টা চরিত্রই মূল্যবান (জাস্ট আসলো আর গেলো, এমনটা নয়), তবে আমার পার্সোনাল ফেভারিট হচ্ছে ROY MUSTANG. He has the most powerful Alchemy, and oh my god, WHAT A STRATEGIC BRAIN !! আক্ষরিক অর্থেই তুড়ি মেরে প্রবলেম সলভ করার সামর্থ্য আর কার আছে, শুনি?

Roy Mustang, The Flame Alchemist

Roy Mustang, The Flame Alchemist

ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের জন্য Akira Senju আমার প্রিয় মিউজিশিয়ানদের লিস্টের এক থেকে তিনের মধ্যে চলে এসেছে। অসাধারণ গল্প, অতিরিক্ত ভালো screenplay, প্রশংসা করতে গেলে শেষ হবেনা……… এটা বলে শেষ করি, অনেক মুভি আছে, যেগুলো দেখার পর মনে হয়, এটা আমার দেখা বেস্ট মুভি; অথবা কোন কোন গান শুনে মনে হয়, এটা আমার শোনা বেস্ট গান। আর ব্রাদারহুড দেখার পর সমীকরণ পাল্টে যায়, তখন আলাদা করে এটাকে বেস্ট এনিমে বলতে ইচ্ছে হয়না। তখন মনে হয়, “এটা আমার দেখা বেস্ট এন্টারটেইনমেন্ট”

Streaming Link

Fullmetal Alchemist – http://justdubs.tv/anime/dubbed/fullmetal-alchemist/

Fullmetal Alchemist Brotherhood – http://justdubs.tv/anime/dubbed/fullmetal-alchemist-brotherhood/

Direct Link

Fullmetal Alchemist – http://pastebin.com/B6CiDG6e

Fullmetal Alchemist Brotherhood – http://sho.rtify.com/15997

(Visited 137 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন