Zootopia: প্রাণিদের ইউটোপিয়া!
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

‘ইউটোপিয়া’ এমন এক কাল্পনিক সমাজ, যেটা প্রায় নিঁখুত এবং পূর্ণাঙ্গ, তার নাগরিকদের জন্যে। এই কাল্পনিক সমাজব্যবস্থাকে নির্ভর করে তৈরি হয়েছে অনেক সাই-ফাই চলচ্চিত্র, লিখিত হয়েছে অনেক বই। এই ‘ইউটোপিয়া’-কে বেজ করে ২০১৬ সালে তৈরি হয় ডিজনির অন্যতম সেরা অ্যানিমেটেড চলচ্চিত্র ‘জুটোপিয়া’।

 

এক অল্টারনেট ইউনিভার্স, যেখানে পৃথিবী এন্থ্রোপোমরফিক ম্যামালদের দ্বারা পপুলেটেড, যেখানে শিকারী প্রাণী আর তাদের শিকাররা আর আলাদা বাস করে না, তারা শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে। এই পৃথিবীরই মডেল সিটি ‘জুটোপিয়া’, যেখানে সকল প্রাণীরা তাদের স্বপ্নপূরণের উদ্দেশ্যে গমন করে। এমনই স্বপ্ন দেখা এক খরগোশ জুডি হপস স্বপ্ন দেখে সে তাদের পুলিশ ফোর্সের প্রথম খরগোশ পুলিশ হবে। সবাই হেসে উড়িয়ে দিলেও একদিন সে সত্যিই পুলিশ হয়ে সবাইকে দেখিয়ে দেয়। কিন্তু এই মডেল আর নিঁখুত ‘জুটোপিয়া’তেও তাকে স্বাজাতিকতার মুখে পড়তে হয়। তারপরও সে হাল ছেড়ে দেয় না। কিছুটা ঝুঁকি নিয়েই দায়িত্ব নেয় হারিয়ে যাওয়া শিকারী প্রাণীদের খুঁজে বের করার কেসের। সেই কেসে তার সাথে জোটে আর চালাক শিয়াল নিক ওয়াইল্ড, যে পরে তার বন্ধুতে পরিণত হয়।

 

YCRHLioRJue8aXlrfXyL1mBDYJA

 

সত্যি বলতে ‘জুটোপিয়া’ নিয়ে আমার আগ্রহ ছিল কম। কিন্তু দেখার পর বেশ অবাক হয়ে দেখলাম খুবই ইউনিক স্টাইলের অ্যানিমেশন, যে অ্যানিমেশন শুধু বাচ্চাদের জন্যেও না, আবার শুধুমাত্র বড়দের জন্যেও না। দারুণ গল্পে আর স্টোরিটেলিং এর সাথে অ্যানিমেটেড মুভির হিসেবে ইউনিক স্টাইলের প্রেজেন্টেশনে ‘জুটোপিয়া’ আসলেই অ্যানিমেটেড মুভির জন্যে একটা মাস্টারপিস।

 

কেনো ‘জুটোপিয়া’ অ্যামেইজিং? এই প্রশ্ন করবে অনেকেই বিরক্ত হয়ে। অনেক কারণেই। প্রথমতো, অ্যানিমেশন এর ক্ষেত্রে ইউনিক স্টাইলের গল্প। বাডি-কপ মুভি আমরা দেখে অভ্যস্ত, কিন্তু অ্যানিমেশনের সাধারণত এমন দেখা যায় না। তার উপরে মানুষের দুনিয়ায় না, বরং এন্থ্রোপোমরফিক প্রাণিদের মাধ্যমে এক ইউনিভার্সে। ডিজনির প্রিন্সেস দের কাহিনী ছেড়ে অন্য এক কাহিনীতে দেখানো, যেখানে শুধু রূপকথা নয়, মানুষের বাস্তবতাই মজার ছলে দেখানো, যা দেখে বড়রা যেমন দ্রুত মিলাতে পারবে বাস্তব জীবনের সাথে, তেমনি বাচ্চারাও এর মাঝের থেকে স্বপ্ন ছোঁয়া আকাঙ্খা, রেসিজম সিখব আর একদম বাচ্চারা হয়তোবা শিখবে অনেক ধরণের প্রাণী আর তাদের বাসস্থান সম্পর্কে।

 

বাডি-কপ আর থ্রিলার স্টাইলের এই মুভির কাহিনী যে প্রেডিক্টেবল না, তা নয়। কিন্তু এটা ভালো লাগার কারণ এর স্টোরিটেলিং আর প্রেজেন্টেশন। নরমাল অ্যানিমেটেড মুভির মতো নয়, সাধারণ লাইভ-অ্যাকশন চলচ্চিত্রের মতোই দেখানোর কারণে দেখতে গিয়ে মেইনস্ট্রিম অ্যানিমেশনগুলোর মতো বোর হতে হয় নি। এখন প্রায় সব অ্যানিমেটেড মুভিই একই ঘরানার স্টাইল আর মেসেজে পরিপূর্ণ হবার ফলে, বিগ ফ্রাঞ্চাইজের গুলোও আগের মতো লাগে না, সেখানে ‘জুটোপিয়া’ একদমই অন্যকিছু।

 

‘জুটোপিয়া’ এর অ্যানিমেশন ও ছিল আগের চেয়ে অনেক উন্নত। ডিজনি-পিক্সার মিলে ১৯৯৫ সালে প্রথম কম্পিউটার অ্যানিমটেড ফিচার ফিল্ম ‘টয় স্টোরি’ রিলিজ করার পর থেকেই একের পর এক অসাধারণ অ্যানিমেটেড মুভি আমরা পেয়েছি। কিন্তু সেগুলো যে সবসময় ডেভেলপ হয়েছে, সেটা আমরা খেয়াল করেছি কমই। প্রতিযোগিতা সবখানেই চলবে, তাই এক প্রোডাকশন হাইজ সবসময়ই চাইবে তাদের কাজটা অন্যদের থেকে সেরা হোক। আর সে কারণেই ডিজনি একা হোক কিংবা সাথে ট্রাম্প-কার্ড পিক্সার থাকুক, তারা সবসময়ই তাদের নিত্যনতুন কাজ করে যাচ্ছে, মাঝ দিয়ে ছোটো বাজেটের কিছু মুভিও রিলিজ দেয় সেই কাজগুলো টেস্ট করার জন্যে। ‘জুটোপিয়া’-ও ছিল অনেক আপগ্রেডেড এফেক্ট এর কাজ। হাজারখানেক প্রাণীর সবার বডির নিখুঁত কাজের জন্যে, ঐ ছোটোখাট লোম পর্যন্ত পারফেক্ট রাখতে নতুন ধরণের এফেক্ট ক্রিয়েত করেছে ডিজনি। আর একারণেই ডিজনি অনন্য, অনন্য এই ‘জুটোপিয়া’।

 

অসংখ্য ছোটো ছোটো ভুল শুধরেছে ডিজনি এখানে। আগের ডিজনি মুভি বা অন্যান্য অ্যানিমেশন মুভির ছোটোখাট ভুলের হোমওয়ার্ক করে, সেইগুলো ঝেড়ে ফেলেছে। তাই দেখতে লেগেছে আগের চেয়ে আরো ভালো।

 

বিখ্যাত টেলিভিশন সিরিজ ‘দ্য সিম্পসন’ আর অস্কার নমিনেটেড অ্যানিমেটেড মুভি ‘রেক-ইট-রালফ’ এর পরিচালক রিচ মুরের সাথে জুটি বেঁধে ‘বোল্ট’, ‘ট্যাঙ্গলড’ এর পরিচালক রায়রন হাওয়ার্ড পরিচালনা করেন ‘জুটোপিয়া’। দারুণ ভয়েজ কাস্টিং এ ছিলেন জেনিফার গুডউইন, জেসন বেটম্যান, অক্টেভিয়া স্পেনসার, জেকে সাইমন্স, ইদ্রিস অ্যালবা আর শাকিরা সহ আরো অনেকে।

 

3dc124d2ce2e294ab17a7b7b6c4782092e46ed36_hq

 

ডিজনির প্রিন্সেস ফ্রাঞ্চাইজের গুলো বাদে ডিজনি সহ প্রায় কোনো প্রোডাকশন হাউজের অ্যানিমেটেড ফিচারেই ফিমেল প্রোটাগনিস্ট সাধারণত দেখা যায় না। সেখানে জুডি হপসের মতো একটা ক্যারেক্টার ক্রিয়েট করা খুবই প্রোমাইজিং। উইমেন এম্পাওয়ারমেন্ট, রেসিজমের বিরুদ্ধে কণ্ঠ আর স্বপ্ন আঁকড়ে ধরার এই প্রধান চরিত্র শুধু ডিজনি নয়, অ্যানিমেটেড দুনিয়ারই অন্যতম সেরা চরিত্র বটে। আর তার সাথে বাডি-কপ হিসেবে পার্টনার নিক ওয়াইল্ড এর মতো চালাক, মাথাভর্তি বুদ্ধি আর হিউমারওয়ালা শিয়ালের চরিত্র বাডি-কপ লাইভ-অ্যাকশন মুভিগুলোর বুদ্ধিসম্পন্ন চরিত্রগুলোর কথাই মনে করিয়ে দেয় ক্ষণে ক্ষণে। এই চরিত্রটাও কোনো অংশে কম খারাপ লাগে না জুডি হপসের চেয়ে।

 

eu_zootropolis_gi_nick-wilde_6e4abafb

 

দারুণ কাহিনীর সাথে ছিল দুর্দান্ত রকমের হিউমার। ডিজনির আন্ডারের মার্ভেল কমিকস এর রাইভাল ডিসি কমিকসের সুপারহিরো ‘ফ্ল্যাশ’-কে মক করা যেমন ছিল, তেমনি ছিল কমেডির ছলে বিখ্যাত মুভি ‘গডফাদার’-এর প্রতি ট্রিবিউট প্রদান করা। এছাড়াও সবসময় ছড়ানো হিউমারতো ছিলই।

 

আমেরিকার বাইরে ইউরোপ সহ অনেক দেশে ‘জুটোপিয়া’ মুভিটি ‘জুট্রোপলিস’ নামেও রিলিজ দেয়া হয়, মেট্রোপলিস থিমের আদলে।

 

এই বছরই রিলিজ পায় ডিজনির আরেকটি মাস্টারপিস ‘মোয়ানা’। দুইটি মুভিই অস্কার, গোল্ডেন গ্লোব, বাফটা সহ প্রায় সবখানেই সেরা অ্যানিমেটেড ফিচার ফিল্মের নমিনেশন পেয়েছে। কিন্তু দুইটির মাঝে ‘জুটোপিয়া’-ই সবখানে এগিয়ে থাকবে বলে মনে করি। ইতোমধ্যে গোল্ডেন গ্লোবে সেরা অ্যানিমেটেড ফিচারের পুরষ্কার ঘরে তুলে নিয়েছে ‘জুটোপিয়া’।

 

রেসিজম, উইম্যান এম্পাওয়ারমেন্ট, নিখুঁত সমাজব্যবস্থা আর স্বপ্ন ছোঁয়ার এই অ্যানিমেটেড মুভি ছোটোরা যেমন বুঝতে পারবে তাদের মতো সহজে, তেমনি বড়রাও ধরতে পারবে সকল এলিমেন্টগুলো। একই সাথে দুই দলের কাছে প্রেজেন্টেশনের কারনেই ‘জুটোপিয়া’ তাই অসাধারণ।

 

evidenza-zoo-e1450362936245

 

Zootopia
Year: 2016
IMDb Rating: 8.1/10
My Rating: 9/10
Rotten Tomatoes: 98% Fresh      
Box office: $1.024 billion/$150 million

 

Directed by: Byron Howard & Rich Moore
Screenplay by:  Jared Bush & Phil Johnston
Voice Cast: Ginnifer Goodwin, Jason Bateman, Idris Elba, J. K. Simmons, Octavia Spencer, Shakira

Genre: Adventure, Buddy-Cop. Thriller, Comedy

Accolades:
1. 89 Academy Awards: Nomination for Best Animated Feature
2. 74th Golden Globes: Won for Best  Animated Feature
3. 70th BAFTA Awards (Pending): Nomination for Best  Animated Film

Zootopia (2016)
Zootopia poster Rating: 8.1/10 (3,192 votes)
Director: Byron Howard, Rich Moore, Jared Bush
Writer: Jared Bush (screenplay), Phil Johnston (screenplay), Byron Howard (story), Jared Bush (story), Rich Moore (story), Phil Johnston (story), Jennifer Lee (story), Josie Trinidad (head of story), Jim Reardon (head of story), Dan Fogelman (additional story material)
Stars: Ginnifer Goodwin, Jason Bateman, Idris Elba, Jenny Slate
Runtime: 108 min
Rated: PG
Genre: Animation, Action, Adventure
Released: 04 Mar 2016
Plot: In a city of anthropomorphic animals, a fugitive con artist fox and a rookie bunny cop must work together to uncover a conspiracy.

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন