Passengers: দারুণ সুযোগের করুণ অপমৃত্যু
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

মাকড়সার মতোন দেখতে স্পেসশিপ চলছে মহাকাশে, তার গন্তব্যে। স্পেসশিপের হাইবারনেশন পড অটোম্যাটিক খুললে, স্পেসশিপের যাত্রী জিম প্রেস্টন বেড়িয়ে এলো। কিন্তু অবাক হয়ে দেখলো সে বাদে আর কেউই সজাগ হয়নি, অথচ সবারই সজাগ হবার কথা একসাথে, নতুন পৃথিবীর গন্তব্যে যাওয়ার এই যাত্রায়। কিন্তু সে জেগে উঠলো যাত্রা শেষ হবার নব্বই বছর আগে, আর হাইবারনেশনে যাবার ত্রিশ বছর পরে।

 

হাইবারনেশন থেকে জেগে ওঠার পর এক বছর শুধুমাত্র একা আর অ্যান্ড্রয়েড বারটেন্ডার আর্থার সাথে কাটিয়ে বিরক্ত মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার জিম স্পেসশিপের কি হয়েছে এই রহস্য ভেদ করার হাল ছেড়ে দেয়। এমন সময় তার চোখে পড়ে জার্নালিস্ট অরোরা লেনের পড। সিদ্ধান্ত নেয় জাগিয়ে তোলার তাকে। অদ্ভুত আকর্ষণ আর নীতিগত মানসিকতার ডায়ালেমায় পরে জিম। কিন্তু শেষমেশ জাগিয়ে তোলে অরোরা কে।

 

ব্রাদার গ্রিমস এর রূপকথা ‘স্লিপিং বিউটি’ এর প্রিন্সেস এর নাম ছিল ‘অরোর’ বা বিভিন্ন অ্যাডাপশনে ‘অরোরা’। আর বিভিন্ন অ্যাডাপশনে তার সাথে সম্পর্কিত এক প্রিন্সের নাম ছিল ‘জিম’। প্রথমেই স্লিপিং বিউটি স্টাইলে জেনিফার লরেন্সের এই চরিত্রের নাম দেখে তাই বেশ আগ্রহ সৃষ্টি সহ, প্রথম দিকের ইন্ট্রোডাকশনে। কিন্তু সত্যি বলতে এন্টারটেইনিং হলেও হতাশ এই মুভি নিয়ে।

 

‘দ্য ইমিটেশন গেম’ খ্যাত পরিচালক মর্টেন টিলডামের কাছ থেকে সকলেই বেশ ভালো একটা স্পেস-ভয়াজ অ্যাডভেঞ্চার আসা করেছিল, কিন্তু সে আশায় গুঁড়ে বালি। ‘দ্য মার্শান’ বা ‘ইন্টারস্টেলার’ এর মতো দেখানোর চেষ্টা করেও শেষমেশ টিপিক্যাল রোমান্টিক ফিলই যেন হয়ে গেল।

MV5BODA5ODUxMDk1MF5BMl5BanBnXkFtZTgwMTE0ODc4MDI@._V1_SX1777_CR0,0,1777,736_AL_

 

ক্রিস প্র্যাট বা জেনিফার লরেন্সের অভিনয় সত্যিই ভালো ছিল। দুইজন যে রোমান্টিক কাস্ট হিসেবে ভালো ছিল, এ বিষয়ে কোনো প্রশ্ন থাকতে পারে না। কিন্তু জেনিফার লরেন্সের নতুন নতুন এক্সপ্রেশনের জাদুর বাক্স কিংবা ক্রিস প্র্যাটের আসলেই বেশ ভালো অভিনয়ের পরেও এই মুভি মার খেয়ে গেছে স্টোরিতে।

 

সাই-ফাই স্টোরি হিসেবে খুব বেশি স্ট্রং কাহিনী না। মর্টেন টিলড্যাম, যিনি ‘দ্য ইমিটেশন গেম’ এর জন্যে পেয়েছিলেন সেরা পরিচালকের নমিনেশন, বাগিয়েছিলেন সেরা ফিল্মের নমিনেশন অস্কারে, তার কাছ থেকে এতো দূর্বল ন্যারেটিভ আর হোমওয়ার্ক ছাড়া সাই-ফাই কাজ আশা করা যায় না আসলেই। কিন্তু এসব বলা শুধুমাত্র খুব আশা তোলা মুভি ছিল বলেই। এন্টারটেইনিং ছিল কী? হ্যাঁ, এন্টারটেইনিং ছিল, হিউমেরাস ছিল, দারুণ ভিজ্যুয়াল এফেক্ট আর দৃশ্য ছিল, ছিল জেনিফার লরেন্স আর ক্রিস প্র্যাটের দারুণ অভিনয়। মার্টিন শিনের অভিনয়ে জেন্টলম্যান অ্যান্ড্রয়েড বারটেন্ডার আর্থার ছিল হিউমেরাস। অল্প সময়ে লরেন্স ফিশবার্ন আবারো একবার শিপের ক্যাপ্টেন হিসেবে ছিলেন দারুণ। কয়েক সেকেন্ডের ক্যামেও তে ছিলেন অ্যান্ডি গার্সিয়া। কিন্তু শেষমেশ শুধুই ছিল টাইম-পাসের জন্যে। ‘ইন্টারস্টেলার’, ‘দ্য মার্শান’ এর মতো দেখার চিন্তা করে দেখতে বসলে তাই হতে হবে হতাশ।

 

MV5BNjJmOGIyYmUtMTg0YS00NDhmLTgzNmYtNGNlOTE2ZDJiYjU3XkEyXkFqcGdeQXVyNTY0MTkxMTg@._V1_SX1777_CR0,0,1777,809_AL_

 

MV5BYzlhNDRlZTMtMWU3OS00MDgwLTg3YWMtYjY2MDlhMWYzMGQ2L2ltYWdlL2ltYWdlXkEyXkFqcGdeQXVyNTY0MTkxMTg@._V1_SX1777_CR0,0,1777,737_AL_

 

মুভির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক ছিল বেশ ভালো। ভিজ্যুয়াল এফেক্ট আর প্রোডাকশন ডিজাইনও দারুণ ছিল। অস্কারে সেরা অরিজিনাল স্কোর আর প্রোডাকশন ডিজাইনে পেয়েছে নমিনেশন। জিরো গ্রাফিটির সুইমিং পুলের দৃশ্য ছিল লিটারেরি এবং ফিগারটেভলি শ্বাসরুদ্ধকর। দারুণ কিছু ডায়লগ ছিল, যেমন ‘We are passengers, we go where the luck takes us’। এছাড়া মূল চরিত্র দুইটির নামকরণের কথাতো প্রথমেই বলেছি। কিন্তু মর্টেন টিলড্যাম, জেনিফার লরেন্স, ক্রিস প্র্যাট, স্পেস ভয়াজ; এই ট্যাগ গুলো থাকার কারণের হাইপ অনুযায়ী পারফর্ম্যান্স ছিল না। সব মিলিয়ে ছিল অনেক ভালো অপর্চুনিটির দারুণ মৃত্যু।

 

মোটের উপর বি+ আর এন্টারটেইনিং, রোমান্টিক মুভি। না দেখার সাজেস্ট করবো না। কিন্তু দেখার সময় দুর্দান্ত মুভিগুলোর সাথে তুলনায় যাবেন না।

 

MV5BNDdjNTBhZGItMDhlOS00YjI5LWJiNDEtYzBlYzFmMjA1NWM0L2ltYWdlXkEyXkFqcGdeQXVyNjU5NDU4NDg@._V1_SY1000_CR0,0,1500,1000_AL_

 

IMDb Rating: 7/10
My Rating: 6.5+/10
Rotten Tomatoes: 31% Fresh
Box Office: $292.7 million/$110 million

 

Passengers
Year: 2016

Written by: Jon Spaihts
Directed by: Morten Tyldum
Cast: Jennifer Lawrence, Chris Pratt, Michael Sheen, Laurence Fishburne, Andy García

Genre: Science Fiction, Adventure, Romantic

 

Accolades:
1. 89 Academy Awards: Nomination for Best Production Design (Guy Hendrix Dyas & Gene Serdena), Best Original Score (Thomas Newman)
2. Art Directors Guild Awards: Nomination for Best Fantasy Film (Pending)

Passengers (2016)
Passengers poster Rating: 7.1/10 (66,391 votes)
Director: Morten Tyldum
Writer: Jon Spaihts
Stars: Jennifer Lawrence, Chris Pratt, Michael Sheen, Laurence Fishburne
Runtime: 116 min
Rated: PG-13
Genre: Adventure, Drama, Romance
Released: 21 Dec 2016
Plot: A spacecraft traveling to a distant colony planet and transporting thousands of people has a malfunction in its sleep chambers. As a result, two passengers are awakened 90 years early.

এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন