Tanna: প্যাসিফিক আইল্যান্ডে দুই রোমিও-জুলিয়েট (Oscar Nominated Foreign Film)

ট্যানা। দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের একটা দ্বীপ। এই মহা সমুদ্রের অন্য সকল দ্বীপের মতোই এখানেও বাস আদিবাসীদের। প্রযুক্তির ছোঁয়া থেকে বেঁচে প্রকৃতির সাথে মিলেমিশে বাস করা এই আদিবাসীদের প্রধান ও প্রথম দায়িত্ব তাদের গোষ্ঠীকে নিয়ে একসাথে বেঁচে থাকা। যে লক্ষ্যে প্রায়ই চলে তাদের অন্য গোষ্ঠীর সাথে লড়াই।

 

ছোটবেলা থেকে তিন গোয়েন্দা আর অন্যান্য বইয়ে পড়ে পলিনেশিয়ান আর প্যাসিফিক আইল্যান্ডস এর এই আদিবাসী আর তাদের ট্রাইব নিয়ে যেমনটা ভাবতাম, ঠিকই তেমনই দেখা গেল অস্ট্রেলিয়ান মুভি ‘Tanna’ তে। কিন্তু এই মুভি কোনো দুই গোষ্ঠীর লড়াই নিয়ে নয়, বরং দুইজনের ভালোবাসা নিয়ে তৈরি।

 

sj_product_image_65_6_1552_7662

 

চলচ্চিত্রের কাহিনির সাথে শেক্সপিয়ারের ‘রোমিও-জুলিয়েট’-এর মিল পেলেও, কাহিনিটি আসলেই ট্যানা এর আদিবাসীদের এক বিয়ের আসল ঘটনা অবলম্বনে তৈরি, যেখানে মেয়ে রাজি হয় না অন্য গোষ্ঠী বা ট্রাইবের সাথে সুসম্পর্ক তৈরি করতে বিয়েতে রাজি হতে। বরং সে নিজের ট্রাইবের একজনকে ভালোবেসে পালিয়ে যায়।

 

এই চলচ্চিত্রের পজিটিভ দিক অনেক। প্রথমতো, এই চলচ্চিত্রের কোনো অভিনেতাই আসল অভিনেতা নন। এনারা সবাই ই ট্যানা দ্বীপের আদিবাসী। সহ-পরিচালক বেন্টলি ডেন সাতমাস এই আদিবাসীদের সাথে বাস করে তাদের পর্যবেক্ষণ করেন। অতঃপর তাদেরকে দিয়েই অভিনয় করান। সাধুবাদ প্রাপ্য দুই পরিচালক বেন্টলি ডেন আর মার্টিন বাটলারের। একজনের অভিনয় দেখেও আপনার মনে হবে না, এনারা আসল অভিনেতা নন। কিন্তু দুই পরিচালক সবার মাঝ থেকেই আসল অভিনেতা বের করে আনলেন। গ্রামের অধিবাসীরা এ বিষয়ে বলেন, যে তাদের আসলে তেমন কষ্ট হয় নি, কারণ প্রায় সবারই খুব সাধারণ কাজগুলো করতে হয়েছে, যা তারা সবসময়ই করেন।

 

অভিনেতারা প্রায়ই সবাই ই নিজেদের চরিত্রেই অভিনয় করেছেন। নায়ক মুংগাও ডেইয়িন কে কাস্টিং করার পিছনের উদ্দেশ্য হিসেবে বেন্টকি ডেন বলেন, এনাকেই সবচেয়ে বেশি হ্যান্ডসাম লেগেছে অন্যদের চেয়ে। এবং কথাটা আসলেই সত্য। এই আদিম সভ্যতার মাঝেও তার মাঝে কেমন যেন আধুনিকতার ছোঁয়া ছিল। তার বিপরীতে অভিনয় করেন মেরি ওয়াওয়া।

 

s

 

চমৎকার ক্যামেরার কাজের জন্য পরিচালক বেন্টলি ডেন এর আলাদা সম্মান প্রাপ্য। সিনেমাটোগ্রাফি ডিরেক্টর হিসেবে তিনি চেয়েছিলেন এই রোমান্টিক কাহিনীর মাঝেই আদিবাসী আর তাদের দ্বীপের নৈসর্গিক সৌন্দর্য্যকে তুলে ধরতে। এদিক থেকে সার্থক তিনি। পাহাড়, জঙ্গল, আগ্নেয়গিড়ির লাভা আর সমুদ্রের মাঝে ভালোই লাগছিল দেখতে সবকিছু। এই চমৎকার ক্যামেরা কাজের সাথে ছিল দুর্দান্ত ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক। অ্যান্টোনি পার্তোস এর করা এই মিউজিক এই কাহিনী আর আদিবাসীদের সাথে মিলেমিশে এক অদ্ভুত অনুভুতির সৃষ্টি করে।

 

sj_product_image_65_6_1552_7661

 

এতোসব ভালো ভালো পয়েন্টের পরেও, এই মুভির একমাত্র নেগেটিভ দিক হচ্ছে, এই মুভিটা তেমন এন্টারটেইনিং না। আমি মুভি দেখবো আগে এন্টারটেইনড হতে। সেটা না হলে আসলে কোনো লাভই নেই। এতো পজিটিভ দিকের পরেও এই একটা কারনেই খারাপ লাগে, যে মুভিটা অনেক এন্টারটেইনিং হতে পারতো, শ্বাসরুদ্ধকর এক কাহিনী মিশিয়ে দেয়া যেত চিরচেনা রোমান্টিক গল্পের সাথে। কিন্তু শেষমেশ এটা শুধুই আরেকটা লিটারেচার হয়ে গেল।

 

অনেকগুলো স্ট্রং পজিটিভ দিকের কারণেই এই মুভি ক্রিটিক্যালি এক্লেইমড। অস্কারেও নমিনেশন পেয়েছে সেরা বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র হিসেবে।

 

Tanna
Year: 2015
Origing/Language: Australia/Nauvhal (Tanna Native)

Screenplay by: Martin Butler, Bentley Dean & John Collee
Directed by: Martin Butler & Bentley Dean

Genre: Romantic, Drama

 

IMDb Rating: 7.1/10
My Rating: 7/10
Rotten Tomatoes: 83% Fresh

 

Accolades:
1. 89 Academy Awards: Nomination for Best Foreign Language Film
2. 2015 Film Critics Circle of Australia: Won for Best Music. Also nominated for Best Film, Cinematography & Editing.

Error:

(Visited 733 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন