The Handmaiden: Extraordinary and Charming Art
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0

কোরিয়ার বাইরে তিনি পরিচিত বিখ্যাত রিভেঞ্জ ট্রিলজি ‘Vengence Trilogy’-র মাধ্যমে। আরো নির্দিষ্ট করে বললে ট্রিলজির দ্বিতীয় মুভি মাস্টারপিস ‘Oldboy’ এর মাধ্যমে। ম্যাড ডিরেক্টর হিসেবে খ্যাত পার্ক চ্যান-উক গতবছরই ফিরে এলেন তিন বছরে পরে ক্যামেরার পিছনে আর তৈরি করলেন আরেকটা মাস্টারপিস, ‘The Handmaiden’, যেটি ‘Agassi (Lady)’ নামেও পরিচিত।

 

কিভাবে প্রকাশ করবোএই মুভিকে? অসাধারণ বললে অবশ্যই কম বলা হয়ে যাবে। মনোমুগ্ধকর, সম্মোহনের মাঝে রেখে প্রচন্ড পরিমাণে ডার্ক কিন্তু একইসাথে অনন্যভাবে জাদুকরী মুগ্ধতায় রেখে বোল্ড এবং রহস্যে পরিপূর্ণ একটি থ্রিলার মুভি। সাথে ক্রাইম আর রোমান্টিকের ছোঁয়া।

 

কাউন্ট ফুজিয়েরা নামের এক কন আর্টিস্ট পরিকল্পনা করে বিশাল সম্পত্তির মালিক জাপানী বংশোদ্ভূত লেডি হিদেকোকে বিয়ে করে সম্পত্তির মালিক হতে। এই লক্ষ্যে সে এক পকেটমার সু-কি কে তামাকো নামে হিদেকোর হ্যান্ডমেইডেন বা সোজা বাংলাতে আয়া হিসেবে পাঠায়, পরিকল্পনাকে আরো প্রভাবিত করতে, যেনো হিদেকোকে কাছে পেতে আরো সুবিধা হয়। তবে এখানেই প্ল্যানের শেষ নয়। প্ল্যানে আছে হিদেকোকে সুযোগমতো মানসিক হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া, যেন কোনো ধরা পড়ার আশঙ্কা না থাকে। আর এই পরিকল্পনাতে ভালভাবে কাজ করলে সু-কি কে পর্যাপ্ত পরিমাণে লাভের অংশ দেয়া হবে।

 

The Handmaiden

পার্ক চ্যান-উক যে মুভিটাকে একদম শুরু থেকে দর্শকদের চোখে আটকানোর ব্যবস্থা করে রেখেছেন। প্রথম দৃশ্য থেকেই তার মাস্টার কাজের ছাপ স্পষ্ট। কোথাও কোনো খুঁত রাখেননি তিনি। ক্যামেরার কাজ, সিনক্রোনাইজড ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক আর চোখে বেঁধে থাকার মতো লোকেশন।
চুং চুং-হোন এর দুর্দান্ত ক্যামেরার কাজের সাথে চো ইউং-উকের মন মাতানো জ্যাজ স্টাইলের ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক এতো সুন্দর আর সহজাতভাবে সিঙ্ক্রোনাইজ করে, সেটা আসলে না শুনলে যতো যা-ই বলি, অনুভব করা অসম্ভব। আমার দেখা মুভিগুলোর মাঝে সবচেয়ে সেরা ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের মাঝে বেশ উপরেই জায়গা দখল করে নিলো এই মুভির মিউজিক।

 

The Handmaiden
ওয়েলশ ঔপন্যাসিক সারা ওয়াটারসের ভিক্টোরিয়ান যুগের পটভূমিতে লেখা ক্রাইম ফিকশন ‘Fingersmith’ কে কোরিয়াতে জাপানি কলোনিয়াল যুগ (১৯১০-১৯৪৫) যুগে নিয়ে এসে চিত্রনাট্য রচনা করেন পরিচালক পার্ক চ্যান-উক আর চুং সে-ক্যুং। পার্ক চ্যান-উকের মুভি মানেই ভিজ্যুয়াল প্রেজেন্টেশনে কিছুই বাদ যাবে না। ভায়োলেন্স, সেক্সুয়ালিটি, রিভেঞ্জ, স্যালভেশন; এই সব মিলিয়েই পার্ক চ্যানের কাহিনী আবর্তিত হবে। ‘ফিঙ্গারস্মিথ’ উপন্যাসটার থিম একদম ঠিক ছিল তাঁর মুভি তৈরির জন্য। নিজের মতো করে সব এলিমেন্ট সাজিয়ে তিনি দুর্দান্তভাবে সাজালেন এবারের কাহিনী। তিনটি আলাদা পার্স্পেক্টিভ থেকে কাহিনী বর্ণনার মাধ্যমে দর্শকদের সারাক্ষণ নতুন কিছুর আশায় রেখে মূহুর্তের জন্য চোখ সরানোর অবকাশ দেননি তিনি। ডার্ক থ্রিলার, ইরোটিক এলিমেন্টের সাহায্যে দক্ষতার সাথে প্রচুর হিউমার আর কাহিনীর রোমান্টিক এলিমেন্ট মিশিয়ে দিলেন তিনি এখানে।

 

Kim Tae-Ri as The Handmaiden

Kim Tae-Ri as The Handmaiden

 

‘হ্যান্ডমেইডেন’ চরিত্রে অভিনয় করেছে প্রথমবার বড় পর্দায় আসা কিম তাই-রি। প্রচন্ড প্রতিভা নিয়ে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে পা দিলো সে। অভিনয়টা তার একদম সহজাত প্রতিভা তার পার্ফর্ম্যান্সই তার প্রমাণ। এই মেয়ে একদিন কোরিয়ান ইন্ডাস্ট্রির নামকরা অভিনেত্রী হবে, সেই সংকেতই দিচ্ছে তার এখানকার পার্ফর্ম্যান্স।

 

 

লেডি হিদেকো চরিত্রে দারুণ অভিনয় করেছে কিম ইন-হি। ব্লু ড্রাগন ফিল্ম অ্যাওয়ার্ডসে কিম তাই-রি আর কিম ইন-হি বেস্ট নিউ অ্যাক্ট্রেস আর বেস্ট সাপোর্টিং অ্যাক্ট্রেস এর পুরষ্কার জিতে নিয়েছে। কিন্তু সত্যিই কি লেডি হিদেকোর চরিত্র সাপোর্টিং ছিল? নাম যদিও “দ্য হ্যান্ডমেইডেন”, কিন্তু সু-কি বা লেডি হিদেকো, দুইটি চরিত্রই আমার কাছে লিড চরিত্র হিসেবে মনে হয়েছে।

 

Kim Meen-Hee as Lady Hideko

Kim Meen-Hee as Lady Hideko

 

প্রতারক কাউন্ড ফুজিয়ারা হিসেবে হা জুং-উ এর অভিনয় আর হিউমার প্রচন্ড প্রাণবন্ত ছিল। তার চরিত্রের একদম শেষ দৃশ্যে তার ঐ অবস্থার মাঝেও তার হিউমারের কমতি ছিল না। আর একজন কনফিডেন্স আর্টিস্ট হিসেবেও তাকে একদম মানিয়ে গিয়েছিল তার উপস্থাপনার সাথে। অল্প সময়ে চরিত্র অনুযায়ী ভয়াবহ উপস্থাপনা ছিল লেডি হিদেকোর ‘আঙ্কেল’ ও অভিভাবক চরিত্রে চো জিন-উং এর।

 

 

কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা মুভির পুরষ্কার স্বর্ণ পামের জন্য প্রতিদ্বন্দিতা করলেও জিততে পারেনি শেষ পর্যন্ত। তবে অন্যান্য অনেক ফিল্ম ফেস্টেই সম্মাননা পেয়েছে বেস্ট মুভি বা অন্য ক্যাটাগরিতে। ৮৮ তম ন্যাশনাল বোর্ড অব রিভিউ এর সেরা পাঁচ ফরেইন ফিল্মের তালিকায় দ্বিতীয় মুভি হিসেবে স্থান পেয়েছে ‘দ্য হ্যান্ডমেইডেন।’

 

 

একটা মুভি তখনই মাস্টারপিস হয়, যখন প্রতিটা ব্যাপারে একদম নিখুঁত কাজ হয়। কোনো খুঁত ধরার অবস্থা নেই এই মুভিতে। আর তাছাড়া এতো মোহনীয় দুই ঘন্টা বিশ মিনিটের পরে খুঁত ধরার চিন্তা করার ঠিক না। আর এখানেই একজন পরিচালকের পরিচয়, যখন তিনি একটি শিল্প তৈরি করে ফেলেন। ‘The Handmaiden’ শুধু একটি মাস্টারপিস মুভি নয়, একটি মাস্টারপিস আর্ট।

 

 

The Handmaiden
Year: 2016
Origin: Korea

 

Cast: Kim Min-hee, Ha Jung-woo, Cho Jin-woong, Kim Tae-ri

 

Screenplay by: Park Chan-wook, Chung Seo-kyung
Based on: “Fingersmith” by Sarah Waters

 

Music by: Cho Young-wuk
Directed by: Park Chan-wook

 

 

IMDb Rating: 8.1/10
My Rating: 10/10
Box Office: 35.9 million/8.8 million (in US Dollar)

Rate: R

The Handmaiden (2016)
The Handmaiden poster Rating: 8.1/10 (13,953 votes)
Director: Chan-wook Park
Writer: Sarah Waters (inspired by the novel "Fingersmith" by), Seo-kyeong Jeong (screenplay), Chan-wook Park (screenplay)
Stars: Min-hee Kim, Tae-ri Kim, Jung-woo Ha, Jin-woong Jo
Runtime: 144 min
Rated: NOT RATED
Genre: Drama, Romance, Thriller
Released: 01 Jun 2016
Plot: A woman is hired as a handmaiden to a Japanese heiress, but secretly she is involved in a plot to defraud her.

এই পোস্টটিতে ৫ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. কাহিনী টা ধরতে পারলে চরম একটা মুভি 😊

  2. Lupa Lia says:

    -কোরিয়ান ছেলে গুলোকেও মেয়ে মনে হয় 😉 :p এতটাই সুন্দর

  3. Obosshoi dekhbo…. memories of murder And train to busan dekhe korea er upor amr vorosha bere gese

  4. Moner Manush says:

    Movier link gulo dia dele better hoy easily download korte partam

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন