The Grand Budapest Hotel: জাদুকরী এক মুভির নাম

মুভির নাম শুনছি রিলিজের অনেক আগে থেকেই। কোনো সন্দেহই ছিল না, ভালো একটা ছবি হবে। দেখার পর সন্দেহ রইল না, “বেস্ট মুভি বোধহয় একেই বলে।”

 

কি নাই, এবং কে নাই এই মুভিতে। ড্রামা, কমেডি, ইমোশন, ক্রাইম, থ্রিলার, সাইকো, এডভেঞ্চার,এমনকি প্রিজন ব্রেকও! ম্যাজিকাল মুভি।

 

মুভিটা পাঁচ স্তরে সাজানো।
১ম- রিডিং
২য়- টেলিং
৩য়- স্টোরি
৪র্থ- এগেইন টেলিং
৫ম- মূল গল্প। এটাই মূল মুভি।

 

মুভির মূল গল্পটা থেকেই বলি। অন্য স্তরগুলো নিজে দেখলেই ভালো লাগবে।

 

কাহিনি “দ্য গ্রান্ড বুদাপেস্ট হোটেল”- এর ম্যানেজার মি. গুস্তাভ এইচ আর তার ভ্যালেট ও শিক্ষানবিশ লবি বয় জিরো মুস্তাফাকে নিয়ে। কি করে তারা বিভিন্ন ধরেণের সমস্যার সম্মুখীন হয়। হোটেলের মালিক মিসেস ডি মারা যাওয়ায় সেখানে উপস্থিত হয় তারা দু’জন। এরপর মহিলার কুটিল ছেলে দিমিত্রি, গুস্তাভকে ফাঁসিয়ে দেয় তার মায়ের হত্যার দায়ে। জেলের ভিতরে গুস্তাভ, আর বাইরে থেকে সাহায্য করে জিরো।

 

সাধারণভাবে নাম শুনে আমরা অনেকেই ভেবেছিলাম হোটেলের বিভিন্ন অতিথিদের নিয়ে মজার অনেক কিছু হবে। কিন্তু এটা তারচেয়ে আরো বেশি মজার। জাদুকরি এক মুভি। স্ক্রিন থেকে চোখ ফেরানো দায়।

 

গল্প শোনার স্টাইলে দেখা, দুর্দান্ত সেট, চমৎকার প্রেজেন্টেশন, বেস্ট কাস্টিং, অভিনয়, এবং অবশ্যই মুভির কাহিনি। আর কমেডির কথা না বলে শুধু দেখাই ভালো।

 

অনেক সময় বলি, “ক মুভিটার অভিনেতা খ। ক মুভিটা শুধুমাত্র খ এর।”
“দ্য গ্রান্ড বুদাপেস্ট হোটেল” শুধু মাত্র গুস্তাভ এইচের। শুধুমাত্র রালফ ফিয়েনেসের। হ্যারি পটার-4 এ. ভোল্ডেমর্ট চরিত্রে প্রথম দেখি। এরপর যখন আসল চেহারা দেখি, আমি আশ্চর্য হয়ে গিয়েছিলাম, এতো সুন্দর আর সুদর্শণ মানুষ ভোল্ডেমর্ট এর ঐ মড়া মুখের অভিনয় করেছে? সেই থেকে আমার দেখা অন্যতম স্মার্ট অভিনেতা ফিয়েনেস। মি। গুস্তাভ চরিত্র টায় এতো দুর্দান্ত লাগছে বলার মতো না। অনেকটা “Pink Panther” মুভির ক্লুস্যো টাইপ স্টাইল। আর এসেন্ট টা দুর্দান্ত দিছে।

বলতে হয় টনি রিভোলারির কথাও। জিরো মুস্তাফা (ইয়ং, গুস্তাভের সাথে) চরিত্রে করা এই ছেলেটার এটা প্রথম মুভি একটুও মনে হয় নাই। সেও খুব ভালো করছে।
বাফটা ও গোল্ডেন গ্লোবে রালফ নমিনেশন পেয়েছিল বেস্ট এক্টর হিসেবে। রালফেরও অস্কারে এটলিস্ট একটা নমিনেশন পাওয়ার যোগ্যতা ছিল।

 

অনেক নামি-দামী অভিনেতা ক্যামেও বা ছোট পরিসরে নেওয়া হইছে। বিল মুরাই, ওয়েন উইলসন; এই দু’জন হঠাৎ ধুম করে দেখায় শেষ। টিল্ডা সুইনটনকে চিনতেই পারি নাই। দেখিয়েছেও কম। এফ মুরাই আব্রাহামও ছিল, বয়স্ক জিরো মুস্তাফা চরিত্রে। হলিঊডের ‘Walking School of Acting’ এর সদস্য হার্ভে কেইটেল একটা বড়সর ক্যামেও তে ছিল।

 

তিনজনের কথা না বললে ভুল হবে; নর্টন, ব্রডি, ড্যাফো। তিনজনই খুব ভালো করছে। নর্টনের কমেডিক ফেস, ব্রডির ডেভিলিশ লুক আর ড্যাফোর একশন মুড। আর তিন জনেই হালকা পাতলা কমেডিক ছিল।

 

মেইন কমেডি ছাড়াও অনেক ছোটো ছোটো কমেডি ছিল। হাঁটা-চলা, উঠা-বসা, খুব সিম্পল দুই একটা কথা, বা ডায়লগ ছাড়া সিনে চুপচাপ দাঁড়ায় আছে, ঐখানেও কমেডি দিয়ে দিছে।

ডিরেক্টর ওয়েস এন্ডারসন কে নিয়া কিছু বলা দরকা। বয়স মাত্র ৪৫, অথচ এরই মধ্যে ৪ টা নমিনেশন আর ১ টা জয় করেছে। মাত্র ৩০ বছরেই বেস্ট স্ক্রিনপ্লের জন্য অস্কার পেয়েছিল। তবে ডিরেক্টর হিসেবে এবারই প্রথম পেল নমিনেশন সামনে Screenplay র জন্যও পেয়েছে নমিনেশন। আসছে তার “দ্য দার্জিলিং এক্সপ্রেস”। এটাও যে ভালো হবে, এখনই বুঝা যাচ্ছে।

 

আরেকটা, যেটা সবচেয়ে বেশি ভালো লাগছে, মুভির সাউন্ড, মিউজিক চমৎকার, যাদুকরী ফিলিং দেয়।

সেট নিয়ে আগেই বলছি। হ্যারি পটার-১ এর পর এই প্রথম একটা যাদুকরী সেট দেখলাম।

সবশেষে, ক্ল্যাসিক মুভি লাভারদের অবশ্যই একটা মাস্ট ওয়াচিং মুভি।

 

মুভি বোধহয় একেই বলে 😉 !

 

The Grand Budapest Hotel (2014)

Director: Wes Anderson

Cast: Ralph Fiennes, Tony Revolori, Saoirse Ronan, F. Murray Abraham, Mathieu Amalric, Adrien Brody, Willem Dafoe, Jeff Goldblum, Harvey Keitel, Jude Law, Bill Murray, Edward Norton, Jason Schwartzman, Léa Seydoux, Tilda Swinton, Tom Wilkinson, Owen Wilson

Genre: Comedy, Drama, Adventure, Thriller

Error: Incorrect IMDb ID

(Visited 127 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ৪ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Ralph Fiennes কে অস্কার নমিনেশান দেওয়া উচিত ছিল ।

  2. Gazi Saikat Gazi Saikat says:

    Ralph Fiennes জীবনের সেরা কাজ করছিলেন, আমার মতে।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন