“Hunger” নির্যাতিত, নিষ্পেষিত আর ক্ষুধার্ত কিছু কয়েদীর গল্প।

hunger_xlg

চলচ্চিত্রঃ Hunger
জনরাঃ হিস্টোরিকাল ড্রামা, বায়োগ্রাফি
পরিচালকঃ Steve McQueen
অভিনয়ঃ Michael Fassbender, Liam Cunningham

IMDb রেটিংঃ ৭.৫/১০
রিভিউয়ার রেটিংঃ ৫/৫

১৯৮১ সালের “আইরিশ হাঙ্গার স্ট্রাইক” সম্বন্ধে কোন ধারণা ছিল না আমার। “দ্যা মেইজ”, “দ্যা ট্রাবলস” শব্দগুলোও কোন অর্থ বহন করত না আমার কাছে যদি না আমি এই মুভিটা দেখতাম। ১৯৬০ সাল থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত নর্দান আয়ারল্যান্ড এর ব্রিটিশ এবং আইরিশদের মধ্যে ছোট বড় সংঘর্ষ চলতে থাকে যেটিকে “দ্যা ট্রাবলস” বলা হয়। আর “দ্যা মেইজ” হচ্ছে নর্দান আয়ারল্যান্ড এর একটি জেলখানার নাম যেখানে “দ্যা ট্রাবলস” চলাকালীন আইরিশ আধাসামরিক আন্দোলনকারীদের আটক রাখা হত। মেইজ প্রিজন এর কয়েদীদের পলিটিকাল স্ট্যাটাস তুলে নেয়ার ফলে তারা “ব্ল্যাংকেট” এবং “নো ওয়াশ” আন্দোলন শুরু করে। যেটি দমন করার জন্য ব্রিটিশ সরকার কয়েদীদের উপর অমানুষিক অত্যাচার চালিয়ে যায়। কিন্তু আন্দোলন থেমে থাকে না এক মুহূর্তের জন্য। তাদের নেতা ববি সেন্ডস “হাঙ্গার স্ট্রাইক” করার সিদ্ধান্ত নেয় যেটির সর্বপ্রথম আন্দোলনকারী হয় সে নিজেই।

images

প্রিজন অফিসার রেমন্ড লোহান আয়নায় নিজেকে নিজেই যেন চিনতে পারে না। হাতের ক্ষত দাগগুলো যেন তাকে প্রতি মুহূর্তে ধিক্কার দিচ্ছে। বাসা ছাড়ার আগে চারপাশ ভালভাবে দেখে নেয় কোন আন্দোলনকারী লুকিয়ে আছে কিনা। গাড়ীর নিচে বোমা আছে কিনে দেখে নেয়। স্ত্রীর উদ্বিগ্ন চেহারাই যেন সব বলে দেয় একজন প্রিজন মেইজ এর অফিসারের দিন কিভাবে পেরোয়। তারা যা করে সেটি একজন মানুষ হয়ে কখনই করা সম্ভব নয়। নিজেদের কাজে মোটেও গর্বিত নয় তারা। হাঁসি ঠাট্টা করে সেটি ভুলে থাকার ব্যার্থ চেষ্টাটাও একঘেয়ে হয়ে গিয়েছে।

tumblr_mr8aktd2dX1s9wtifo1_500

ঐতিহাসিক সত্য ঘটনার উপর ভিত্তি করে “হাঙ্গার” লিখেছেন Enda Walsh এবং Steve McQueen যুগ্মভাবে। গল্পটি আমার দারুণ লেগেছে। ঠিক যেমনটি হওয়া উচিৎ এই ধরণের মুভির ক্ষেত্রে। Steve McQueen নিঃসন্দেহে একজন প্রতিভাধর মুভি ডিরেক্টর। হাঙ্গারের মেকিং দেখে এটা আঁচ করা যায়। ষোলোআনার যায়গায় আঠারো আনা দেয়ার যেমন প্রয়াস নেই ঠিক তেমনি এক আনা ছাড় দিতেও রাজি নন তিনি। যতটা সম্ভব নিখুঁত কাজ করেছেন তিনি। মুভির স্ক্রিনপ্লে, সিনেমাটোগ্রাফি অসাধারণ। মুভির পঁয়তাল্লিশ মিনিটের মাথায় শুরু হওয়া প্রিস্ট(Liam Cunningham) আর ববির(Michael Fassbender) ১৭ মিনিটের অবিচ্ছিন্ন শটের কথা না বললেই নয়। এই একটি শটের পারফেকশনের জন্য কানিংহাম ফাসবেন্ডারের বাসায় বেশ কয়দিনের জন্য চলে আসেন এবং দিনে ১০-১৫ বার সিনটি প্র্যাকটিস করতেন। ফলাফল শুটিং এর সময় একটি অবিচ্ছিন্ন শটই যথেষ্ট মনে করেছেন পরিচালক।

1233616833hunger2

আমার দেখা ফাসবেন্ডারের সেরা কাজ হাঙ্গার। একটা মুভির জন্য যতটুকু সেক্রিফাইস একজন আর্টিস্ট করতে পারেন তার সবটাই করেছেন তিনি। একটি সিম্পল স্টোরিকেও মেকিং আর অভিনয় দক্ষতা দিয়ে কতটা উপরে তোলা যায় সেটির একটি উজ্জ্বল উদাহরণ হয়ে থাকবে হাঙ্গার মুভিটি। প্রত্যেকটি কাস্ট তার নিজ নিজ ক্যারেক্টারে অসাধারণ কাজ করেছেন।

500full
অনেক প্রখ্যাত ক্রিটিকের ২০০৮ এর সেরা দশটি চলচ্চিত্রের একটিতে স্থান করে নিয়েছে হাঙ্গার। কিন্তু মুভিটি সেভাবে দর্শক জনপ্রিয়তা পায় নি। এর পেছনে প্রধান কারণ হচ্ছে মুভিটি ডেভেলপ করেছে ধীরগতিতে। মনোযোগ দিয়ে মুভিটি দেখলে মুভির ভেতরে ঢুকতে সময় লাগবে না কিন্তু ধুমধারাক্কা মুভি লাভারজ দের জন্য এই মুভি না। তাই এই মুভি দেখার আগে সবার কাছে অনুরোধ থাকবে একটু ধৈর্য নিয়ে মুভিটি দেখতে বসতে হবে। মুভিটি শুধু দেখার জন্যে নয় অনুভব করারও একটা ব্যাপার আছে। এই মুভিটি দেখে আমার ঐদিনের মুডই চেঞ্জ হয়ে গিয়েছিল। মুভিটি যে মানের সেটি আমি রিভিউতে একটুও হয়ত তুলে ধরতে পারি নি। তবে যারা এখনো মুভিটি দেখেন নি তারা আশা করি মুভিটি দেখবেন।

এই ধরণের মুভি দেখে সবসময় একটা কথা মাথায় আসে, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে একটি এই মানের মুভি যদি নির্মিত হত! আমাদের দেশের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি আবার উঠে দাঁড়াচ্ছে। হয়ত অদূর ভবিষ্যতে ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে নির্মিত মুভি বিশ্বের বড় বড় ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল থেকে সুনাম আর সাফল্য বয়ে আনবে।

(Visited 67 time, 1 visit today)

এই পোস্টটিতে ৭ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. আইম্যান আইম্যান says:

    দারুন মুভি, রিভিউ খুব ভাল লাগছে। এটা ম্যাককুইন এর সেরা ডিরেকশনের একটি। এ বছর তার পরিচালিত আরেকটি মুভি
    [12 Years a Slave (2013) > http://www.imdb.com/title/tt2024544/ ] ক্রিটিক দের কাছ থেকে ভাল সুনাম কুড়িয়েছে। অস্কারের দৌড়ে মুভিটা বেশ এগিয়ে থাকবে বলেই ধারণা করছি।
    এই মুভিতেঅ ফেসবেন্ডার থাকছেন পার্শ্ব চরিত্রে। হাঙ্গার মুভিতে ফেসবেন্ডার একাই কাপিয়ে দিয়েছিল। দারুন অভিনয় করছিল।

  2. অসাধারণ লেগেছে মুভিটা। অসাধারনের চেয়েও বেশি কিছু। লেখার জন্য ধন্যবাদ। লেখার মধ্যে বিশেষ করে দ্বিতীয় প্যারা চমৎকার ছিল।

  3. ট্রিপল এস ট্রিপল এস says:

    মুভিটা দেখা হয় নাই, কিন্তু চমৎকার একটা শেয়ার…

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন