ঈদ নাটকে HD আপলোড আর সাউন্ড মিউট নিয়ে যতো কথোপকথন!
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0
কিছুদিন আগে ‘এবারের ঈদের নাটক সমূহ আমার ছোট ছকে-দ্বিতীয় অংশ।’ লিখাটি পাবলিশ করার পর ব্লগে, আমার পার্সোনাল আইডিতে এবং যেখানে যেখানে আমার লিখাটি গিয়েছিলো সেখানে সেখানেই বেশ ভালো রেসপন্স পেয়েছি। নির্মাতা,রচিয়তা,অভিনেতা-অভিনেত্রি, সঙ্গীত আয়োজক থেকে শুরু করে সিনেমেটগ্রাফার, ফটোগ্রাফার, ডিওপি, গ্রাফিক্স ডিজাইনার, এডিটর, প্রোডাকশন কর্মীগণ, এমনকি প্রযোজকগণ ও সকল কলাকৌশলীগণ এবং হ্যাঁ সব থেকে জরুরী দর্শক সবাই বেশ এপ্রিসিয়েট করেছেন। এতোটাও আশা করিনি আমি। নিজের ঢোল পেটাচ্ছি ভাবছেন? না, এই ঢোলে একটা সাধারণ বার্তা আছে সে জন্যই সবাইকে এভাবে পদ দিয়ে মেনশন করলাম। আজ রিভিও লিখবো না, তবে আমার রিভিও এর একটি ব্যাপার নিয়ে ও আমাদের নাটক প্রচরানার খুব একটি জরুরী দিক নিয়ে আলোচনা করবো মানে চেস্টা করবো।

Untitled

আমার রিভিও (http://bit.ly/2d5Mucp) এর শেষ অংশে আমি মাত্র দুটি নেগেটিভ দিক তুলে ধরেছিলাম তার ভেতর একটা ছিলো
 
‘নাটক ইউটিউবে রিলিজ দিলে প্লীজ কপিরাইট আইন মেনেও যারা দিচ্ছে তাদের এইচডি তে আপলোড দিতে বলুন। একটা সময় ছিলো আপনারা নিজেদের আইডি থেকে আপলোড দিতেন হয়তো সেটা এখন কপিরাইট বা অন্য কারনে পারেন না সে ক্ষেত্রে যারা দিচ্ছে তাদের কে বলুন এইচডি তে আপলোড দিতে।আপনাদের নির্মাণ পুরোটাই ভেস্তে যায় এসব প্রিন্টের কারনে।’
 
এই ব্যাপারটা নিয়ে সকলেই কিছু না কিছু মত পোষণ করেছেন, আমরা সাধারণ দর্শক মহল থেকে এমন মন্তব্য পেয়েছি যেখানে দুঃখে এবং কস্টে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে এভাবে, “ভাই, বিজ্ঞাপনের যন্ত্রনায় ইউটিউবে দেখা শুরু করলাম কিন্তু সেই ইউটিউবেও এখন ৪৮০ পি এর উপরে প্রিন্ট দেয় না আবার কত গুলায় ৩৬০পি দেয়া থাকে আবার মধ্যে মধ্যে মিউট করে রাখা হয়, কিছু জিজ্ঞেস করলে বলে কপিরাইট এর ঝামেলা তাইলে শান্তি টা কই? একটু শান্তি মতো যদি দর্শকদের নাটকটাই দেখতে না দেয় তাহলে আমরা দেখবো কেন? স্বাভাবিক ভাবেই তখন আর নিজের দেশের নাটক দেখতে ইচ্ছে করে না কস্ট করে। ”
 
কমান্ট খানা হাইলাইট করলাম কারন কমান্ট খানা খুবই ভয়াবহ। ভাবুন তো একবার এত কস্ট করে শ্রম-অর্থ এবং নিজের সৃজনশীলতা দিয়ে যে কাজটি নির্মাণ করছেন তা কাদের জন্য? দর্শকদের জন্য আর সেটাই যদি দর্শক দেখে শান্তি না পায় তাহলে সে নির্মাণে সার্থকতা কতোটুকু তবুও আমরা দেখছি, কারন আমাদের দেখতে ইচ্ছে করে আমাদের দেশী কাজ, ভালবাসি তাই দেখি। প্রবাসী দর্শকরা কিন্তু এদিক থেকে আরও বেশী ভুক্তভোগী। যাইহোক অনেক কথা বলে ফেললাম এবার একটু কাজের কথায় আসি-
 
এ নিয়ে আমি শ্রদ্ধেয় কিছু নির্মাতা গনদের স্মরণাপন্ন হই এবং সব বিশ্লেষণ করে লিখাটা লিখছি কিছু সল্যুশনও দেয়ার চেস্টা করছি আমার যতদুর জ্ঞান আছে তা থেকে তাতেও যদি কিছু হয় আমি নিজেই নিজেকে সার্থক ভাববো।

Untitled2

 
ভালো মানসম্মত নাটক নির্ভর করে, ভালো নির্মাণ, অভিনয়, সঙ্গীত আয়োজন, গ্রাফিক্স এর কাজ থেকে শুরু করে তার প্রচার এবং প্রিন্টের উপর। একটা সময় ছিলো যখন আমাদের দেশে নাটকের পোস্টার হতো না কিন্তু পরবর্তীতে দেখা গেলো যে নাটকের সুন্দর পোস্টার এবং যে নাটকে গ্রাফিক্সের সুন্দর ব্যাবহার সে নাটক বেশী আকর্ষণ এর কেন্দ্র বিন্দু হয়ে যাচ্ছে। যাইহোক, একটা সময় আমাদের নির্মাতাগণ তাদের নিজেদের একাউন্ট থেকে দর্শকদের সুবিধার জন্য নাটকের এইচ ডি লিঙ্ক আপ্লোড করে দিতেন সেখানে শান্তি ও তৃপ্তি নিয়ে আমরা নাটক দেখে নিতাম তারপর একটা সময় এলো প্রযোজক প্রতিষ্ঠান গুলো নাটকগুলো আপ্লোড দেয়া শুরু করলো সেটা আরো ভালো। কপিরাইট এর ঝামেলা থাকে কিছু সেদিক দিয়ে এটাই ভালো কিন্তু সমস্যা দেখা গেলো তারা তাদের চ্যানেল থেকে নাটক গুলো ৪৮০ পি এর উপরে আপ্লোড দিচ্ছে না যার কারনে নাটক দেখে শান্তি টা পাওয়া যাচ্ছে না। না নাটকের মেকিং বোঝা যাচ্ছে ঠিকভাবে না তৃপ্তি নিয়ে অভিনয় উপভোগ করতে পাচ্ছি তারুপর আবার কয়েক মিনিট পর পর কয়েক সেকেন্ড মিউট করে রাখা হচ্ছে! কারন কপিরাইট আইন, মানে যাতে তাদের চ্যানেল বাদে অন্য চ্যানেলে নাটক গুলো আপলোড না হয় হলে কপিরাইট আইনে তাদের চ্যানেল বাদে বাকি চানেলের নাটকগুলো ডিলেট হয়ে যাবে আবার যে মিউজিক তারা থার্ড পার্টি থেকে নিয়ে ইউজ করছে সে থার্ড পার্টি ক্লেইম করলে তাদের চ্যানেল থেকেই নাটক এর ক্লিপ টি নামিয়ে নেয়া হবে। এডিটররা থার্ড পার্টি থেকে মিউজিক নিয়ে মনিটাইজ করতে না পারার কারনেই এরকম বাধ্য হয়েই করতে হচ্ছে তাদের। আর এইচডি আপলোড না করার কারন যেটা পাওয়া গেছে সেটা হচ্ছে এই ৩জি এর যুগে মানুষ নাকি ইউটিউবে এইচডি দিলে ব্রাউস করে শান্তি পায় না, এমবি বাঁচানোর জন্য এইচডি তে ক্লিক করে না তাই তাদের ভিও কমে যায়। এইচডি না থাকলে ভিউ বারে, মানুষ সহজে ব্রাউজ করতে পারে তাই তারা এইচডি আপলোড করেনা!!! (আমি যতোদুর জানি আমাদের দেশে শীর্ষ টেলিকোম্পানি গ্রামীনফোনও অনেক কম খরচে ৩জি দিচ্ছে, এই ডিজিটাল দেশে যদি এমন কারন দোষানো হয় তাইলে কি বলবো আর?)
 
আচ্ছা একটু প্রব্লেম গুলার সল্যুশনে আসার চেস্টা করে দেখি,

Untitled5

 
প্রথমে নাটকের ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর নিয়ে বলি, যারা নাটকের ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর এর জন্য এডিটরের উপর নির্ভর করেন মানে যাদের নাটকে আলাদা মিউজিক করার জন্য কোন বাজেট থাকে না তারা তাদের এডিটরদের প্লিজ বলবেন ফ্রী মিউজিক লাইসেন্স ইউজ করতে বা নিজেরাই ফ্রী স্টক লাইসেন্স ধারি মিউজিক গুলো কালেক্ট করে এডিটর কে দিন। ব্যাপার টা বোঝা যায়নি তো? আরেকটু ক্লিয়ার করে দিচ্ছি, ইউটিউবে অনেক চ্যানেল আছে মানে মিউজিক চ্যানেল যারা ফ্রী কপিরাইট মিউজিক ডিস্ট্রিবিউয়েট করে থাকে যেখানে খুব সুন্দর ভাবে লেখা থাকে ” NO COPYRIGHT MUSIC ” আর Description এ লেখা থাকে “• Licence:You’re free to use this song and monetize your video.” এখান থেকে মিউজিক নিয়ে ইউজ করে মনিটারাইজ করে সে ক্লিপ যদি ইউটিউবে দেয়া হয় দুনিয়ার কেও আপনার ভিডিও ক্লিপে ক্লেইম করতে আসবেনা মশাই। আচ্ছা, আমি কিছু লিঙ্কও দিয়ে দিলাম-
 
https://www.facebook.com/l.php?u=https%3A%2F%2Fwww.youtube.com%2Fchannel%2FUCht8qITGkBvXKsR1Byln-wA&h=yAQFF87gm
 
https://www.facebook.com/l.php?u=https%3A%2F%2Fwww.youtube.com%2Fwatch%3Fv%3D_C1dfBeo374&h=yAQFF87gm
 
https://www.facebook.com/l.php?u=https%3A%2F%2Fwww.youtube.com%2Fwatch%3Fv%3DMkNeIUgNPQ8%26list%3DPLzCxunOM5WFLNCSF0UEHZqFJJlmdeL71S&h=yAQFF87gm

Untitled6

এরা যেহেতু ফ্রী তে আপনাকে এতো টাকার কাজে মিউজিক দিচ্ছে তো এদের একটা ছোট দাবি আছে তা হচ্ছে এদের মিউজিক ইউজ করলে এদের নাম ডেসক্রিপশনে ইউজ করা তা ভদ্র মানুষ হলে এমনিতেই আপনি ইউজ করবেন।
এবার বলবেন যে মিউজিক তো কমন পড়ে যাবে তাহলে অনেক?মানে একই মিউজিক সবাই ইউজ করছে আপনার ইউনিকনেস থাকছেনা! সে ক্ষেত্রে একটু সময় নিয়ে ইউটিউবে ঘাটুন, অনেক মিউজিক পাবেন এমন যা কমন না, বা অনেক কম ইউজ করা হয়েছে আর তাও না হলে আমাদের উপরেও ছেড়ে দিতে পারেন। আমরাই খুজে দিবোনে। তাও নাটকের মধ্যে মধ্যে মিউট করার ব্যাপার টা বন্ধ করুন প্লিজ!
 
তবে এখানে অবশ্যই মনে রাখবেন “NO COPYRIGHT MUSIC” ব্যাপার টা খেয়াল রাখবেন। কিছু চ্যানেল আছে যেখানে লেখা থাকে “THIS TRACK IS ROYALTY FREE BUT NOT FREE.”
 
ধরুন নিচের লিঙ্ক-
 
https://www.facebook.com/l.php?u=https%3A%2F%2Fwww.youtube.com%2Fwatch%3Fv%3Dvjjhmy7x34w%26list%3DPLVtygK_yEim4_0Ai84s3IwPJzRzkaYbF_&h=yAQFF87gm
 
এর মানে আপনি এই ধরনের চ্যানেল থেকে মিউজিক নিতে চাইলে আপনাকে লাইসেন্স কিনতে হবে। মানে এগুলার ডেসক্রিপশনে লিখা থাকে “THIS TRACK IS ROYALTY FREE BUT NOT FREE.
To use it in a YouTube video, film or documentary, PURCHASE a license & DOWNLOAD”
 
তো একটু দেখে নিবেন যে “free to use, no copyright muic” লিখা আছে কিনা তাহলেই আর ঝামেলা থাকবেনা।
 
আর হ্যাঁ, সবথেকে ভালো হয় যদি নাটকে আলাদা ভাবে মিউজিক করার বাজেট রাখেন। সেটাকে আমরা সবাই খুব বেশী সাপোর্ট করি। একটা নাটক তার মিউজিক দিয়েই হিট হয়ে যায় এবং মানসম্মত হয়ে ওঠে যদি সেখানে মৌলিক সঙ্গীত আয়োজন করা হয়। এর উদাহারন অনেক আছে নতুন করে দেয়ার প্রয়োজন নেই বলেই বোধ করি সে ক্ষেত্রে আমাদের দেশের অনেক ইয়াং মিউজিক কম্পোজার ও মিউজিশিয়ান আছেন তাদেরকে কাজে লাগান তাতে আপনাদের বাজেটেও তেমন হেরফের হবেনা আবার ভালো কাজ বের হয়ে আসবে। দু’দিক দিয়েই অগ্রসর হবে ইন্ডাস্ট্রি। আমরা সেটাই চাই।

14495454_1789722207937640_2098868397550665737_n

এবং এইচডি আপলোড এর ব্যাপারে বলবো উপরের এত কথা সব কিছুই নস্ট হয়ে যাবে যদি নাটক বা টেলিফিল্ম গুলো এইচডি তে আপলোড না হয়। এই ব্লুরে আর ৪কে পি এর যুগে ৩৬০পি আর ৪৮০পি দিয়ে নিজের এত সুন্দর কাজকে আবর্জনায় পরিণত করার কোন মানে হয়না। আর যে লজিক দেখানো হয়েছে যে এইচডি থেকে নরমাল মানে ৪৮০ পি তে আপলোড করলে নাকি ব্রাউজ বেশী হয়, এমবি বেঁচে যায়, ভিউ বেশি পাওয়া যায় ব্লা ব্লা সে ক্ষেত্রে বলবো এইচডি থাক্লেও কিন্তু ৩৬০পি আর ৪৮০পি এর অপশনটা থেকে যায় বরং নরমাল আপলোডে ঐ এইচডি থেকেই দর্শকরা বঞ্চিত হয় আর তারা বাধ্য হয় অন্য কোথা হতে দেখে নেবার জন্য এবং আপনাদের ভিউ কমে যায়।
 
আশা করবো পরবর্তী বিশেষ দিবসে নাটক নির্মাতাগণ তাদের নাটক আপলোড করার বা করানোর ক্ষেত্রে এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন। সামনে পুজো তারপর হয়তো ডিসেম্বার তারপর ফেব্রুয়ারি তারপর ভালবাসা দিবস ও পরের বছর আবার ঈদ আসবে। আমি রিভিও নিয়ে হয়তো হাজির হবো আবার ঈদে, তো সে ঈদে আমার কস্ট করে লিখা এই আর্টিকেলের যেন ফলপ্রসূ দেখতে পাই সে আশা নিয়ে বিদায় নিলাম। কারন শান্তি মতো নাটক দেখতে না পারলে রিভিও টাও লিখতে ইচ্ছে করেনা আর যখন কোনো শ্রদ্ধেয় নির্মাতা বা কলাকৌশলী এসে বলেন আমার নাটক টি কি দেখেছেন ভাইয়া? তখন নিজের কাছেই খারাপ লাগে। আমাদের এ থেকে মুক্তি দিন প্লিজ। ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা।
 
-অবয়ব সিদ্দিকী
 
লিখাটি লিখায় অনেক তথ্যউপাত্তি দিয়ে সহযোগিতা করেছেনঃ Jafreen Sadia আপু। আপুকে অনেক বেশী ধন্যবাদ। 🙂

এই পোস্টটিতে ১টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. Kamrul Ahsan says:

    এইচডি আপলোড দিলে ভিউ কমবে কেন? যে যার সুবিধামত রেজুলেশন কমিয়ে রাখবে। এখন যারা এইচডি দেখতে চায় তারাতো বঞ্চিত হচ্ছে।

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন