The Lucky Ones – ৩ যুদ্ধফেরতের বাড়ি ফেরার গল্প

এতটা এঞ্জয়েবল হবে ভাবিনাই, অনেকগুলা দৃশ্য ছিল, যেগুলায় আমি হাসতে হাসতে লুটোপুটি, ধন্যবাদ চিত্রনাট্য এবং অভিনয় কে। গল্পটা ইস্পেশাল কিছু না, কিন্তু it worked big time কারন দারুণ চরিত্রায়ন এবং অভিনয়। মুভিটা ড্রামা হলেও বোরিং লাগেনাই চমৎকার কিছু লাইট হার্টেড মোমেন্ট থাকার কারনে, সে সাথে মেসেজ ছিল পুরা মুভিতেই।

MV5BMjE2NTg2NjY1N15BMl5BanBnXkFtZTcwNDMyNzkwNQ@@._V1_SX640_SY720_

চিভার, কলি আর টিকে – ৩ যুদ্ধ ফেরত আর্মি ছুটি কাটাতে ঘরে ফিরবে, ঘটনাচক্রে তাদের এক সাথে বাই রোডে যাত্রা করতে হয়। ৩ জনই যুদ্ধে মৃত্যুর হাত থেকে ফিরে এসেছে, তাই মুভি টার নাম The Lucky Ones.

চিভার ফিরছে তার স্ত্রীর কাছে, কিন্তু সে জানেনা তার অবর্তমানে তাদের সম্পর্ক আর আগের মত নেই। ঘরে ফিরে এমন অবস্থা হয়, যে তার ২০,০০০ ডলার এর প্রয়োজন পড়ে তার ছেলের পড়ালেখার খরচের জন্য। সে টাকা যোগাড় করার একটাই উপায় তার মাথায় আসে – ক্যাসিনো তে জুয়া খেলা।

কলি তার ফ্যামিলির সাথে অনেক আগে থেকেই আলাদা, সে ফিরছে তার সহযোদ্ধা যুদ্ধে শহীদ র‍্যান্দির ঘরে, প্রত্যাশা র‍্যান্দির ফ্যামিলি তাকে আপন করে নেবে, কারন তার সম্বল র‍্যান্দির মূল্যবান গীটার এবং যুদ্ধে আহত পা, যেটার জন্য তাকে খুঁড়িয়ে হাঁটতে হচ্ছে।

টিকে এর সমস্যা আরও গুরুতর – যুদ্ধে তার মেন পয়েন্ট আহত, সেটা নিয়ে তার গার্লফ্রেন্ড এর কাছে সে কিভাবে যাবে সেটাই ভাবছে।

নিজেদের গল্প শেয়ার করার পর নিজেদের মধ্যে নিজদের জন্য এমন একটা টান তৈরি হয় যেন, তারা আর একজনকে সমস্যায়ে রেখে আলাদা হতে পারেনা। চেষ্টা করে একে অপরকে যথাসাধ্য হেল্প করতে, যেমনটা যুদ্ধক্ষেত্রে তারা সবসময় করে এসেছে। মুভি তে এই জিনিষটা খুব টাচ করেছে, তাছাড়া যুদ্ধফেরত আর্মিদের সম্পর্কে সাধারণ মানুষের ধারনাও পাওয়া যায় কিছু কিছু দৃশ্যে। মুভিটায় সিরিয়াস এই ইস্যুগুলা খুব রাফলি দেখানো হয়নাই, বরং ব্রিফ্লি লাইট হালকা ভাবেই রাখা হয়েছে, যেটা দর্শকদের মেসেজ দিবে ঠিক মতই, তবে বোর করবেনা। পরিচালক কে বাহবা দিব, তার এহেন স্টাইল এর জন্য, কমেডি এমন হলেই ভাল লাগে।

পুরো মুভিটাই রোডে, এ ধরনের মুভি তে প্রায়ই সিনেমাটোগ্রাফি এবং লোকেশান কে তুলে ধরার একটা বাড়াবাড়ি দেখা যায়, কিন্তু এখানে শুধু ৩টা চরিত্র এবং তাদের মধ্যকার বোঝাপড়া দেখানোর উপরই জোর দেয়া হয়েছে। কোন চিজি কমিকাল মোমেন্ট নাই চিত্রনাট্যে। তবু চরিত্রগুলার কারশাজি হাসির খোরাক জুগিয়েছে।

রাচেল ম্যাক অ্যাডামস এর কোন মুভি আমার এখন পর্যন্ত খারাপ লাগেনাই, অনেক পছন্দের অভিনেত্রী আমার। এই প্রথম তাকে রোম্যান্টিক মুভি এর বাইরে কিছু করতে দেখলাম। খুব বোকা না, আবার খুব চালাক ও না। স্মার্ট আবার জায়গামত ভালনারেবল চরিত্রটা চমৎকার নিভিয়েছেন তিনি। তবে তাকে যোদ্ধা হিসেবে কল্পনা করা একটু টাফ ছিল, তাই যুদ্ধক্ষেত্রে তার কিছু ব্যাকসিন দেখালে মন্দ হত না।

টিম রবিন্স শক্তিমান অভিনেতা, যদিও খুব বেশি মুভি সে অরথে দেখা হয়নাই আমার তার, তবে যা দেখেছি, তাই ভাল লেগেছে আমার।

মাইকেল পেনা কে আগে ছোটখাটো চরিত্রে দেখেছি কোথাও। এখানে হার্ড নাট একটা চরিত্রে দারুণ করলো ব্যাটা, সব চেয়ে কনভিন্সিং ছিল তার চরিত্রটা। কমিকাল কারনেই হয়ত পরিচালক তাকে কাস্ট করেছেন।

মুভি টা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একটা পেস বজায় রেখেছে, রিপিটিটিভ লাগেনাই কখনই, প্রতিটা চরিত্রে সমানভাবে দেখানো হয়েছে এবং জাস্টিস করা হয়েছে। ক্লাইমেক্স টাও মজার। এন্দিং টা বেস্ট! খুবই পছন্দ হইসে, সিকুয়েল হলে মন্দ হতোনা। 🙂

পরিচালক নেইল বার্গার এর আগের মুভিগুলার নাম শুনলে আরও দেখতে চাবেন এটা – The Illusionist, Limitless. ২টাই জোস মুভি ছিল। সুতরাং He is definitely one director to Look forward to.

The Lucky Ones এমন একটা মুভি, যেটা সব সময় দেখা যায়, দৃষ্টিনন্দন সব জায়গা, সিনেমাটোগ্রাফি আর যুতসই আবহ সঙ্গীত এর কারনে একটা কোয়ালিটি টাইম চাইলে দেখতে পারেন মুভিটা।

 

The Lucky Ones (2008)
The Lucky Ones poster Rating: 7.0/10 (10901 votes)
Director: Neil Burger
Writer: Neil Burger, Dirk Wittenborn
Stars: Rachel McAdams, Tim Robbins, Michael Peña, Molly Hagan
Runtime: 115 min
Rated: R
Genre: Comedy, Drama, War
Released: 26 Sep 2008
Plot: The story revolves around three soldiers - Colee, TK and Cheever - who return from the war after suffering injuries and learn that life has moved on without them. They end up on an ...

(Visited 33 time, 1 visit today)

মন্তব্য করুনঃ

You must be Logged in to post comment.

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন